হৃত্বিকের চরম ভুলেই আজ সুপারস্টার শাহরুখ খান! আজও কপাল চাপড়ান হৃত্বিক

Riya Chatterjee

Published on:

বলিউডে নিজের জায়গা করে নেওয়ার জন্য তিনি সময় পেয়েছেন ২২ টা বছর। বিগত দুই দশকে খুব বেছে বেছে ছবিতে অভিনয় করেছেন হৃত্বিক রোশন (Hrithik Roshan)। ফি বছর ২ থেকে ৩ টির বেশি ছবিতে তাকে অভিনয় করতে দেখা যায়নি। এই বেছে বেছে ছবি করার মানসিকতা থেকেই বলতে গেলে নিজের পায়ে নিজে কুড়ুল মেরেছেন হৃত্বিক। কারণ তার ছবি ‌প্রত্যাখ্যানে লাভবান হয়েছেন শাহরুখ খান, আমির খানরা। আজ জেনে নিন শাহরুখ, আমিরদের সেই পাঁচটি ছবির তালিকা যার প্রস্তাব প্রথমে গিয়েছিল হৃত্বিক রোশনের কাছে।

লগান (Lagaan) : আশুতোষ গোয়ারিকরের ‘লগান’ ছবি বক্স অফিসের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছিল। ২০০১ সালে মুক্তি পাওয়া এই ছবিটিতে পরাধীন ভারতে একটি প্রত্যন্ত গ্রামের বাসিন্দাদের ক্রিকেটের মাধ্যমে ব্রিটিশের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের কাহিনী তুলে ধরা হয়েছিল। এই ছবিতে ভুবনের চরিত্রের জন্য পরিচালকের আমির খানের আগে হৃত্বিক রোশনকেই পছন্দ ছিল। তবে হৃত্বিক ছবির চিত্রনাট্য পড়ে তেমন ভরসা পাননি। পরে নিশ্চয়ই ছবির সাফল্য দেখে তিনি হাত কামড়েছেন।

lagaan movie poster

স্বদেশ (Swadesh) : আশুতোষ গোয়ারিকরের আরও একটি ছবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন হৃত্বিক। তিনি বলেছিলেন চিত্রনাট্যের পড়ে আশুতোষের দৃষ্টিকোণ থেকে ধরতে পারেননি। তাই তার নিজেকে এই ছবির জন্য উপযুক্ত বলে মনে হয়নি। ‘স্বদেশ’ ছবির প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়াতে শাহরুখের দ্বারস্থ হন পরিচালক। এই ছবি দেশের মাটিতে তেমন সাফল্য না পেলেও বিদেশে ব্যাপক মুনাফা অর্জন করেছিল। ছবিতে শাহরুখের কেরিয়ারের জন্যও দারুণ লাভজনক সিদ্ধ হয়েছিল।

10 Mistakes In Bahubali No One Could Ever Notice

বাহুবলী (Bahubali) : ‘বাহুবলী’ ছবিতে অভিনয় করার দৌলতে ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেন প্রভাস। এই ছবিটি সারা বিশ্বজুড়ে দারুণ ব্যবসা করেছিল। তবে শোনা যায় এই ছবির জন্য এস এস রাজামৌলির প্রথম পছন্দ ছিলেন হৃত্বিক রোশন। অভিনেতা ‘যোধা আকবর’ এর পরে আর কোনও পিরিয়ড ড্রামা করতে চাননি। তাই তিনি প্রস্তাবটি ফিরিয়ে দেন।

দিল চাহতা হ্যায় (Dil Chahta Hai) : আমির খান, সেইফ আলি খান, অক্ষয় খান্না অভিনীত এই ছবিটিতে ফারহান আখতার পরিচালক হিসেবে হৃত্বিককে সমীর অথবা সিড, এই দুটি চরিত্রের মধ্যে যেকোনও একটি ছবি বেছে নিতে বলেছিলেন। তবে হৃত্বিক তাতে রাজি হননি। এই ছবিটি সমালোচকদের থেকে দারুণ প্রশংসা পেয়েছিল। বক্স অফিসেও দারুণ সফল হয়েছিল। এমনকি সেইফ আলি খানের ডুবন্ত কেরিয়ারকেও ভাসিয়ে তুলেছিল ছবিটি।

রং দে বাসন্তী (Rang De Basanti) : আমির খানের এই ছবিতে সিদ্ধার্থের চরিত্রের জন্য পরিচালককে পছন্দ ছিল হৃত্বিক রোশনকে। তবে আমিরের তুলনায় ছোট চরিত্রে অভিনয় করতে রাজি ছিলেন না হৃত্বিক। চরিত্রটি লুফে নিয়েছিলেন কর্ণ সিংহানিয়া। দর্শকরা তাকে অনেক ভালোবাসা দিয়েছিলেন এই চরিত্রের জন্য।