বলিউডের সবথেকে অশিক্ষিত পরিবার, কাপুর পরিবারের পড়াশুনার দৌড় জানলে চমকে যাবেন

কেউ ক্লাস ৬ ফেল, তো কেউ টেনেটুনে মাধ্যমিক পাশ, কাপুর পরিবারের পড়াশোনার দৌড় জানলে চোখ কপালে উঠবে

বলিউডের (Bollywood) বিখ্যাত কাপুর পরিবারের (Kapoor Family) সদস্যরাই আজ রাজত্ব করছেন ইন্ডাস্ট্রিতে। তবে আজ থেকে নয়, বলিউড গড়ে ওঠার পেছনেও কাপুর পরিবারের অনেক বড় হাত রয়েছে। রাজ কাপুরের বাবা পৃথ্বীরাজ কাপুরের সময় থেকে আরম্ভ করে আজ রণবীর কাপুরের প্রজন্ম পর্যন্ত, কাপুর পরিবারে সবাই সুপারস্টার। কিন্তু তারা কে কতদূর পড়াশোনা (Educational qualification of The Kapoor family members) করেছেন জানেন? জানলে অবাক হতে বাধ্য হবেন।

পৃথ্বীরাজ কাপুর (Prithviraj Kapoor) : পৃথ্বীরাজ কাপুর হলেন কাপুর বংশের প্রথম সুপারস্টার। তাকে হিন্দি ছবির প্রতিষ্ঠাতাদের মধ্যে অন্যতম একজন বলেও ধরা হয়। তিনি অবিভক্ত ভারতবর্ষের লায়লপুরের খালসা কলেজ থেকে পড়াশোনা করেছেন। এরপর তিনি পেশোয়ার্ডের এডওয়ার্ডস কলেজে ভর্তি হন এবং সেখান থেকে বিএ ডিগ্রী নিয়েছিলেন।

রাজ কাপুর (Raj Kapoor) : রাজ কাপুর হলেন পৃথ্বীরাজ কাপুরের সন্তান। তাকে ভারতীয় সিনেমার চার্লি চ্যাপলিন বলা হয়। তিনি দেহেরাদুন, মুম্বাই এবং কলকাতার বিভিন্ন বিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। শোনা যায় তিনি নাকি ষষ্ঠ শ্রেণীতে পড়ার সময় ফেল করেন।

শম্মী কাপুর (Shammi Kapoor) : পৃথ্বীরাজ কাপুরের অপর সন্তান শম্মী কাপুর অবশ্য পড়াশোনাতে রাজ কাপুরের তুলনায় ভাল ছিলেন। পৃথ্বীরাজের কাজের সূত্রে শৈশবে তাকে বেশিরভাগ সময় কলকাতাতেই থাকতে হয়েছিল। তিনি ডন বসকো হাইস্কুলে ভর্তি হন এবং সেখান থেকে মাধ্যমিক পাশ করেন। কিন্তু এরপর তিনি আর পড়াশোনা করেননি।

শশী কাপুর (Sashi Kapoor) : পৃথ্বীরাজ কাপুরের কনিষ্ঠ সন্তান শশী কাপুরও মুম্বাইয়ের ডন বসকো হাইস্কুলে ভর্তি হয়েছিলেন। আসলে খুব ছোটতেই শিশু অভিনেতা হিসেবে পর্দাতে কাজ করতে শুরু করে দিয়েছিলেন শশী। সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায় শশী কাপুরও নাকি স্কুলের গণ্ডি পেরোতে পারেননি। মাঝপথেই পড়াশোনা করে শেষ করে দেন তিনি।

ঋষি কাপুর (Rishi Kapoor) : কাপুরের পাঁচ সন্তানের মধ্যে রণধীর কাপুর এবং ঋষি কাপুর বলিউডে অধিক প্রতিষ্ঠিত হতে পেরেছিলেন। এই দুই ভাইয়ের মধ্যে ঋষিকে ভর্তি করানো হয়েছিল মুম্বাইয়ের ক্যাম্পিয়ন স্কুলে। অষ্টম শ্রেণীতে পড়াশোনা করতে করতেই নাকি ফেল করেন ঋষি। পরবর্তীকালে তাকে আজমেরের মেয়ো কলেজে ভর্তি করানো হয়। তবে সেখানে এক বছরও তিনি পড়াশোনা করেননি।

রণধীর কাপুর (Randhir Kapoor) : কাপুর পরিবারের ট্রাডিশন ভাঙতে চাননি রণধীরও। তাকে দেরাদুনের কর্নেল ব্রাউন কেমব্রিজ স্কুলে ভর্তি করানো হয়। কোনওমতে স্কুলের গণ্ডিতে পেরিয়েই তিনি পড়াশোনা বন্ধ করে দেন। উচ্চশিক্ষার জন্য আর কলেজে ভর্তি হননি রণধীর।

করিশ্মা কাপুর (Karishma Kapoor) : রণধীরের কন্যা করিশ্মা প্রথমে মুম্বাইয়ের ক্যাথিড্রাল অ্যান্ড জন কনন স্কুলে ভর্তি হয়েছিলেন। স্কুলের পড়াশোনা শেষ করার পর তিনি উচ্চশিক্ষা লাভের জন্য মুম্বাইয়ের সোফিয়া কলেজেও ভর্তি হন। কিন্তু অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ার কারণে করিশ্মাও পড়াশোনা ছেড়ে দেন।

করিনা কাপুর খান (Kareena Kapoor Khan) : করিশ্মার মত করিনাও আর খুব বেশি দূর পড়াশোনা করেননি। তিনিও দিদির মতই খুব কম বয়সে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন। করিনা মুম্বাইয়ের জামনাবাই নার্সি স্কুলে ভর্তি হয়েছিলেন। তারপর দেরাদুনে ওয়েলহাম স্কুল থেকে পড়াশোনা শেষ করেন। স্কুলের পর মুম্বাইয়ের মিঠি বাই কলেজে ভর্তি হয়েছিলেন করিনা কিন্তু মাঝপথেই পড়াশোনা ছেড়ে দেন।

রণবীর কাপুর (Ranbir Kapoor) : রণবীর কাপুরই হলেন কাপুর পরিবার এসব থেকে বেশি শিক্ষিত সুপারস্টার! তিনি মুম্বাইয়ের বম্বে স্কটিশ স্কুলে ভর্তি হয়েছিলেন। তবে পড়াশোনার থেকে তার খেলাধুলার দিকে বেশি মন ছিল। তিনি স্কুলের পর মুম্বাইয়ের এইচ আর কলেজ অফ কমার্স এন্ড ইকোনোমিক্সে ভর্তি হয়েছিলেন। তারপর আবার উচ্চ শিক্ষার জন্য চলে যান নিউইয়র্কে। রণবীর নিউ ইয়র্কের স্কুল অফ ভিজুয়াল আর্টসে ফিল্ম মেকিং নিয়ে পড়াশোনা করেন। এরপরে আবার মেথড অ্যাকটিং নিয়ে পড়াশোনা করার জন্য নিউইয়র্কের লি স্ট্রাসবার্গ থিয়েটার অ্যান্ড ফিল্ম ইনস্টিটিউটে ভর্তি হন।

ঋধিমা কাপুর (Ridhima Kapoor) : ঋষি কাপুরের মেয়ে রণবীর কাপুরের দিদি ঋধিমা অবশ্য অভিনয়টাকে নিজের পেশা হিসেবে বেছে নেননি। তিনি গয়নার নকশাকেই নিজের পেশা বানিয়েছেন। তিনিও ভাইয়ের মত অনেক দূর পড়াশোনা করেছেন। উচ্চশিক্ষার জন্য তিনি লন্ডনেও গিয়েছিলেন। আমেরিকান ইন্টারকন্টিনেন্টাল ইউনিভার্সিটি থেকে ব্যাচেলার অফ ডিজাইনিং এন্ড মার্কেটিংয়ের উপর ডিগ্রি নিয়ে তিনি মুম্বাইতে ফিরে আসেন।