প্রসেনজিৎ নন! দেবশ্রীর মতে টলিউডের ‘ইন্ডাস্ট্রি’ এই অভিনেতা

প্রসেনজিৎ নন, কাকে ‘ইন্ডাস্ট্রি’ বলে মনে করেন দেবশ্রী রায়?

Riya Chatterjee

Published on:

টলিউডের স্বঘোষিত ‘ইন্ডাস্ট্রি’ তিনি। ক্যামেরার সামনে সগর্বে বলতে পারেন ‘‘আমিই ইন্ডাস্ট্রি।’’ উত্তমকুমার পরবর্তী সময়ে বাংলা সিনেমায় মাস অডিয়েন্স ধরে রাখতে নিঃসন্দেহে তার অনেক বড় হাত ছিল। গ্রাম বাংলার মানুষদের হলে টেনে নিয়ে যেত তার সিনেমাগুলো। তিনি আর কেউ নন, প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী। তবে তার নিজেরই প্রাক্তন স্ত্রী তাকে ‘ইন্ডাস্ট্রি’ মনে করেন না। প্রসেনজিতের প্রাক্তন স্ত্রী দেবশ্রী রায়ের নজরে ‘ইন্ডাস্ট্রি’ তাহলে কে?

টলিউডে একসময় প্রসেনজিৎ এবং দেবশ্রীর জুটি বেশ হিট ছিল। বাস্তব জীবনেও তাদের মধ্যে বিশেষ সম্পর্ক ছিল। প্রসেনজিৎ এবং দেবশ্রী ছিলেন ছোটবেলার বন্ধু। বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। একসময় তাদের বিয়েও হয়। কিন্তু সেই বিয়ে সুখের হয়নি। মাত্র তিন বছর টিকে ছিল প্রসেনজিৎ এবং দেবশ্রীর বিয়েটা। ডিভোর্সের পর তাদের মধ্যে স্বাভাবিক সম্পর্ক ছিল না।

Debashree Roy

প্রসেনজিৎ এবং দেবশ্রীর বিয়ে কেন ভেঙেছিল সেই নিয়ে অনেক তরজা রয়েছে। কেউ কেউ বলেন, দেবশ্রীর সাফল্য নাকি প্রসেনজিতের সহ্য হচ্ছিল না। বিশেষত ‘উনিশে এপ্রিল’ ছবির জন্য দেবশ্রী রায় জাতীয় পুরস্কার পান। কিন্তু প্রসেনজিৎ নাকি চেয়েছিলেন বিয়ের পর দেবশ্রী অভিনয় ছেড়ে দিন। কিন্তু দেবশ্রী তার কেরিয়ারের সঙ্গে আপোষ করতে রাজি ছিলেন না।

দেবশ্রীর সঙ্গে বিয়ে ভাঙ্গার পর আরও ২ বার বিয়ে করেন প্রসেনজিৎ। দেবশ্রী অবশ্য একাই রয়েছেন আজও। বহু বছর পর যখন ‘ইন্ডাস্ট্রি’ বিতর্কে প্রসেনজিতকে নিয়ে টলিউডে সমালোচনা শুরু হয় তখন দেবশ্রীকেও এই প্রসঙ্গে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। দেবশ্রী কিন্তু প্রসেনজিৎকে নিয়ে তখন বিস্ফোরক মন্তব্য করেন। তিনি প্রাক্তন স্বামীকে ‘ইন্ডাস্ট্রি’ বলে মানতেই নারাজ।

আরও পড়ুন : দেবশ্রীকে ডিভোর্স দিয়ে পস্তাচ্ছেন আজও! কেন ভেঙেছিল প্রসেনজিৎ-দেবশ্রীর বিয়ে?

DEBASHREE AND PRASENJIT

আরও পড়ুন : টলিউড দিল না যোগ্য সম্মান, একরাশ অভিমান নিয়ে মুখ খুললেন দেবশ্রী রায়

দেবশ্রী নাম না নিয়ে প্রসেনজিতকে উদ্দেশ্য করে বলেন, “এখন একজন নিজেকে ইন্ডাস্ট্রি বলেন। কিন্তু আমি তাকে ইন্ডাস্ট্রি মনেই করি না। আমার কাছে ইন্ডাস্ট্রি একজনই। তিনি হলেন উত্তম কুমার। মহানায়ক তিনিই। আর কেউ হতে পারবে না।” শুধু দেবশ্রী নয়, সমগ্র টলিউড এবং সাধারণ দর্শক আজও উত্তম কুমারকেই মহানায়ক বলে মনে করেন। তার জায়গা কোনওদিনই দখল করতে পারবে না কেউ।