পরপর ছবি ফ্লপ, সংসার চালাতে জলের দামে গাড়ি বেচলেন হৃত্বিক, দাম শুনে হতচকিত সবাই

হাতে নেই কাজ, সংসার চালাতে জলের দরে গাড়ি বেচলেন হৃত্বিক, দাম শুনে মাথায় হাত সবার

বলিউড (Bollywood) অভিনেতা হৃত্বিক রোশনের (Hrithik Roshan) সময়টা এখন একেবারেই ভাল যাচ্ছে না। বহু সময় পর ‘বিক্রম বেধা’ ছবির হাত ধরে হৃত্বিক আবার ফিরেছিলেন ছবি দুনিয়াতে। কিন্তু সেখানেও সাফল্য সেভাবে মিলল না। সেই কারণেই নাকি এবার নিজের পছন্দের জিনিস বিক্রি করে অর্থ উপার্জন করতে হচ্ছে তাকে! নিজের একটি অতি পছন্দের গাড়ি একেবারে জলের দলে বিক্রি করে দিতে যাচ্ছেন বলিউড অভিনেতা।

আর মাধবনের যে ছবি দক্ষিণী ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ঝড় তুলেছিল, সেই ছবিরই রিমেক বানায় বলিউড। ছবিতে দুই মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন সইফ আলি খান এবং হৃত্বিক। কিন্তু বিধি বাম, দর্শকের অভাবে ছবিটি সেভাবে ব্যবসা করতে পারেনি। সম্প্রতি নিজের বিলাসবহুল মার্সিডিজ গাড়ি বিক্রি করা সংক্রান্ত সেই পোস্ট করেছিলেন অভিনেতা। এই গাড়িটি তিনি যে দামে বিক্রি করেছেন তা জানলে চমকে যাবেন।

হৃত্বিক রোশনের কাছে এই মুহূর্তে অনেক নামিদামী ব্রান্ডের গাড়ি রয়েছে। তারই মধ্যে থেকে একটি মার্সিডিজ গাড়ি তিনি বিক্রি করে দিতে যাচ্ছেন। এই মুহূর্তে ভারতের বাজারে এমন বেশ কিছু সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি রয়েছে যেগুলো বিলাসবহুল, কিন্তু তার দাম অনেক কম। এর মধ্যে আবার বেশ কিছু গাড়ির মালিক ছিলেন নামী তারকারা। বলিউডের গ্রিকগডের ব্যবহৃত গাড়িটিও চলে এসেছে বাজারে।

সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে একজন ব্লগার হৃত্বিক রোশনের ব্যবহৃত গাড়ি নিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেন। সেখানে দেখা যাচ্ছে ওই ব্লগার বিক্রেতার সঙ্গে গাড়িটি নিয়ে কথা বলছেন। গাড়িটি মার্সিডিজের মেব্যাক এস৫০০ লাক্সারি সেডান মডেলের গাড়ি। ২০১৬ সালে গাড়িটি কিনেছিলেন হৃত্বিক। তারপর থেকে গাড়িটিকে যথেষ্ট যত্ন করেই তিনি ব্যবহার করেছেন। সেই গাড়িই এখন একেবারে জলের দরে পাওয়া যাচ্ছে।

এই গাড়িটি যে একসময় হৃত্বিক রোশনেরই ছিল তার প্রমাণ হিসেবে গাড়ির সঙ্গে অভিনেতার একটি ছবিও সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করা হয়েছে। ২০১৬ সালে যখন তিনি এই গাড়িটি কিনেছিলেন তখন গাড়ির সঙ্গে তিনি ছবি শেয়ার করেন। তবে ছবিতে দেখা যাচ্ছে গাড়ির রং সম্পূর্ণ সাদা। আর যে গাড়িটি এখন বিক্রির জন্য বাজারে এসেছে তার বনেটের রং কালো। হতে পারে অভিনেতা হয়তো কেনার পর নিজে রং পরিবর্তন করেছিলেন। তবে গাড়ির ডিজাইনে কিছু পার্থক্য ধরা পড়ছে চোখে।

ওই ব্লগারের দাবি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি সম্পন্ন গাড়িটি ৩০ হাজার কিলোমিটার পথ চলেছে। এমনিতে এখন এই গাড়ির বাজার মূল্য প্রায় আড়াই কোটি টাকা। কিন্তু যেহেতু সেকেন্ড হ্যান্ড গাড়ি তাই কোটি থেকে লাখে নেমে এসেছে গাড়ির দাম। হৃত্বিক রোশনের ব্যবহৃত এই বিলাসবহুল মার্সিডিজ গাড়ি এখন মাত্র ৯০ লক্ষ টাকাতে কেনা যাবে। এত দামি গাড়ি এত কম দামে, তাও আবার বলিউড অভিনেতার ব্যবহৃত, কিনবেন নাকি এমন গাড়ি?