পকেট মারতে গিয়ে ধরা পড়েন হাতেনাতে! পকেটমার থেকে অভিনেতা কীভাবে হলেন বিপ্লব চ্যাটার্জী?

Riya Chatterjee

Updated on:

৯০ এর দশকের টলিউডের (Tollywood) দাপুটে একজন খলনায়ক তিনি। পর্দায় তার উপস্থিতি মানেই দর্শকদের গায়ে জ্বালা ধরাত। শুধু পর্দা নয়, পর্দার বাইরেও তাকে দেখলে লুকিয়ে পড়তেন ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা। মানুষের মনে এমনই ছিল তার প্রভাব। বাস্তবে এই মানুষটা ভীষণ স্পষ্টবাদী, ঠোঁটকাটা বলে টলিউড আজও সমঝে চলে তাকে।

কথা হচ্ছে টলিউডের বর্ষিয়ান অভিনেতা বিপ্লব চ্যাটার্জীকে (Biplab Chatterjee) নিয়ে। বাংলা সিনেমার এই অভিনেতা এর আগে বহুবার টলিউডের তারকাদের সম্পর্কে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বিতর্কের মুখে পড়েন। এবার তিনি নিজেই নিজের সম্পর্কে একটি অজানা তথ্য ফাঁস করে সবাইকে চমকে দিলেন। তিনি নাকি ছোটবেলায় পকেটমার ছিলেন!

BIPLAB CHATTERJEE

বেশ কয়েক বছর আগে জি বাংলাতে শাশ্বত চ্যাটার্জীর পরিচালনায় অপুর সংসার নামের একটি টক শোতে হাজির হয়ে ইন্টারভিউ দিতে গিয়ে একের পর এক বিস্ফোরণ ঘটাতে থাকেন বিপ্লব চ্যাটার্জী‌। সেই সঙ্গে নিজের ছোটবেলার বেশ অজানা কিছু কাহিনীও তিনি তুলে ধরে সবাইকে চমকে দেন।

এমনিতে ঠোঁটকাটা, রগচটা স্বভাবের মনে হলেও বিপ্লব চ্যাটার্জী ভীষণ মজার মানুষ। ছোটবেলাতে তিনি বেশ দুষ্টুও ছিলেন। শৈশবে একবার স্কুলের স্যারের পকেট মারতে গিয়েছিলেন তিনি। তবে ধরাও পড়ে গিয়েছিলেন হাতেনাতে। সেই কাহিনী তিনি শোনালেন সকলকে। তিনি বলেন তখন তিনি ক্লাস সেভেনে পড়তেন।

BIPLAB CHATTERJEE

একদিন ক্লাসে ভূগোলের একজন নতুন শিক্ষক এলেন। তিনি আসার পর চন্দনের গন্ধে চারিদিক ভরে যায়। সেই গন্ধে মোহিত হয়ে পড়েছিলেন ক্লাসের সমস্ত ছাত্ররা। বিপ্লব ওই গন্ধ পেয়ে ভেবেছিলেন শিক্ষক মশাই হয়তো চন্দন কাঠ সঙ্গে নিয়ে এসেছেন। তখন তার মনে শিক্ষকের পকেট মারার ইচ্ছে জাগে।

BIPLAB CHATERJEE 2

এরপর আর সাতপাঁচ না ভেবে শিক্ষক মশাই যখন ক্লাস থেকে বেরিয়ে যাচ্ছিলেন তখন চন্দন কাঠ খোঁজার জন্য সোজা স্যারের পকেটের মধ্যে হাত ঢুকিয়ে দেন তিনি। কিন্তু শিক্ষক মহাশয় তখন সঙ্গে সঙ্গে তার হাত ধরে ফেলেন। এই কথা শুনে হেসে গড়াগড়ি খান এবং তার পাশে বসে থাকা অভিনেত্রী অনামিকা সাহা। সোশ্যাল মিডিয়াতে ফের ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও।