‘এই শিক্ষা দিয়েছেন ছেলেকে’! আবির চ্যাটার্জীর বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ বিপ্লব চ্যাটার্জীর

বড়দের সম্মান দেন না আবির, আবিরের বিরুদ্ধে নালিশ ঠুকলেন বিপ্লব চ্যাটার্জী

ফের একবার বাংলা ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতাদের নিয়ে সরব হলেন অভিনেতা বিপ্লব চ্যাটার্জী (Biplab Chatterjee)। এবারে তার রোষের মুখে পড়েছেন টলিউডের হার্টথ্রব অভিনেতা আবির চ্যাটার্জী (Abir Chatterjee)। সম্প্রতি ‘দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট বেঙ্গল’ এর কাছে একটি সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে আবিরের সম্পর্কে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন তিনি। তার অভিযোগ, আবির নাকি তার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। সেই নিয়ে তিনি তার বাবা ফাল্গুনী চ্যাটার্জীকেও ছেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

সুনাম বলুন বা দুর্নাম, ইন্ডাস্ট্রির অভ্যন্তরে বিপ্লব চ্যাটার্জীর ঠোঁটকাটা বলে একটা ইমেজ আছে। তিনি কখনও রেখেঢেকে কথা বলেন না। এই যুগের অভিনেতা বা অভিনেত্রী, পরিচালক কিংবা প্রযোজকদের সঙ্গে তার তেমন বনেও না। এর আগেও বহুবার ইন্ডাস্ট্রির বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন বিপ্লব চ্যাটার্জী। বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে মাঝেমধ্যে তিনি সংবাদ মাধ্যমের শিরোনাম দখল করে নেন। এবারেও তেমনটাই হয়েছে।

Biplab Chatterjee Controversial Comment

সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি থেকে শুরু করে টলিউডের পরিস্থিতি নিয়ে তিনি মন খুলে কথা বলেন। সেখানে তাপস পালের মৃত্যুর পর তাকে গান স্যালুট দিয়ে শেষ বিদায় জানানো সম্পর্কে তাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি অকপটে বলেন, “সত্যি কথা বলতে ব্যক্তিগতভাবে আমার ভালো লাগেনি। কারণ এটা নেতাদের দেয়, শহীদদের দেয়। ওরা দিয়েছে ওদের খুশি। সে পেয়ে গেছে। বেচারা ভাল অভিনেতা ছিল। কিন্তু আমার সঙ্গে পরের দিকে খুব অভদ্র ব্যবহার করেছিল।”

বিপ্লব চ্যাটার্জী জানিয়েছেন তাপস পাল একবার মাথায় চপারের আঘাত পেয়ে মারাত্মক জখম হয়েছিলেন। ৩৪ টা সেলাই পড়েছিল তার মাথায়। সেই সঙ্গে তাকে রক্ত দিতে হয়েছিল। রক্ত দিতে এগিয়ে এসেছিলেন বিপ্লব চ্যাটার্জীই। অথচ তাপস পাল পরে তার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। একইভাবে প্রয়াত অভিনেতা অভিষেক চ্যাটার্জীও বিপ্লব চ্যাটার্জীর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেছেন। সেই প্রসঙ্গেই উঠে আসে আবির চ্যাটার্জীর নাম।

এই প্রসঙ্গে বিপ্লব চ্যাটার্জী বলেছেন, ‘‘আমাদের এখনকার একজন শিল্পী.. মহান শিল্পী, অনেক পাঠ করছে। সল্টলেক থেকে সে যাবে কালিকাপুর, আমি যাব দেশপ্রিয় পার্ক। সে পরিষ্কার গাড়ির ছেলেটাকে বলল, আগে আমাকে কালিকাপুর নামাবে তারপর দেশপ্রিয় পার্ক যাবে। সে বলল এটা! আমি তো ওর বাবাকে (ফাল্গুনী চট্টোপাধ্যায়) বলেছি, ‘এই আপনি শিক্ষা দিয়েছেন ছেলেকে?’ একদম চুপ ওর বাবা।”

Biplab Chatterjee

পুরনো দিনের কথা তুলে তিনি বলেন, ‘‘আমরা নিজেরা…সৌমিত্রদা কোথায় থাকতেন, আমি তাঁকে পৌঁছে দিয়ে নিজে বাড়ি আসতাম। এটা বাড়াবাড়ি নয়, এটা স্বাভাবিক। বয়স্ক মানুষের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞান এঁদের নেই। এঁরা অনেককিছু পেয়ে গিয়েছে। এদের মানুষ বলব আমি? কোনওদিন বলব না’’। উল্লেখ্য, এর আগে প্রখ্যাত চিত্রনাট্যকার লীনা গাঙ্গুলীর সম্পর্কে আলটপকা মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন বিপ্লব চ্যাটার্জী। পরে অবশ্য ক্ষমা চেয়ে নিয়ে তিনি বলেন উত্তেজনার বশে তিনি কথাগুলো বলে ফেলেছিলেন।