৭ বছরের ছোট প্রেমিক, অরিন্দম শীলের লালসার শিকার, দীপার শাশুড়ি ‘লাবণ্য’র জীবনে শুধুই বিতর্ক

অফিসে ডেকে কুপ্রস্তাব, পরিচালক অরিন্দম শীলের মুখোশ খুলে দেন রূপাঞ্জনা

দাপুটে খলনায়িকা হোক বা স্নেহময়ী শাশুড়ি, ‘অনুরাগের ছোঁয়া’ (Anurager Chhowa) ধারাবাহিকের লাবণ্য সেনগুপ্তকে টেক্কা দেবে এমন কেউ নেই বাংলা টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে। স্টার জলসার এই সিরিয়ালে লাবণ্য সেনগুপ্তর চরিত্রের প্রতিটি শেডস নিখুঁতভাবে তুলে ধরছেন অভিনেত্রী রূপাঞ্জনা মিত্র (Rupanjana Mitra)। দর্শকদের কাছে এই মুহূর্তে প্রচুর ভালবাসাও পাচ্ছেন তিনি।

সম্প্রতি রূপাঞ্জনা মিত্র তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মুখ খুলেছিলেন সংবাদ মাধ্যমের কাছে। সেখানে উঠে আসে তার থেকে বয়সের ছোট প্রেমিকের কথা। তবে এর আগেও কিন্তু বহুবার রূপাঞ্জনাকে নিয়ে সরগরম হয়েছিল টলিউড। এর আগে তিনি পরিচালক অরিন্দম শীলের বিরুদ্ধে কাস্টিং কাউচের অভিযোগ নিয়ে মুখ খুলেছিলেন। সরাসরিই বলেছিলেন পরিচালক নাকি তার দুর্ব্যবহার করেন।

রূপাঞ্জনার অভিযোগ, কয়েক বছর আগে পরিচালক নিজেই তাকে কলকাতার অফিসে ডেকে পাঠিয়েছিলেন। ‘ভূমিকন্যা’ সিনেমার স্ক্রিপ্ট শুনতে তিনি পৌঁছে যান পরিচালকের অফিসে। তবে সেখানে গিয়ে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা হয়েছিল রূপাঞ্জনার। অভিনেত্রী অরিন্দমের অফিসে গিয়ে দেখেন সেখানে আর কেউ ছিলেন না। তখনই নাকি পরিচালক তার উদ্দেশ্যে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করতে থাকেন!

রূপাঞ্জনা বলেন তিনি পরিচালকের ইশারা বুঝতে পেরে ভয় পেয়ে সেখান থেকে সঙ্গে সঙ্গেই পালিয়ে আসেন। তার এই বক্তব্যকে কেন্দ্র করে তোলপাড় হয়েছিল টলিউড। তবে রূপাঞ্জনার জীবনে এমন বহু বিতর্ক রয়েছে বরাবর। ২০১৭ সালে বিবাহ বিচ্ছেদের পর সিঙ্গেল মাদার হিসেবে তিনি তার ৮ বছরের ছেলের প্রতি দায়িত্ব পালন করছেন। তবে তিনি সিঙ্গেল নন মোটেও।

রূপাঞ্জনার জীবনে এখন রয়েছেন অভিনেতা তথা পরিচালক রাতুল মুখার্জী। ‘বাঘ বন্দী খেলা’ সিরিয়ালে রাতুলকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল। রাতুলের সঙ্গে রূপাঞ্জনার প্রেম নিয়েও তুমুল চর্চা রয়েছে স্টুডিও পাড়াতে। তবে অভিনেত্রী কখনও এই বিষয়ে মুখ খুলতে চাননি। তিনি জানিয়েছেন রাতুলের সঙ্গে তার একটা মিষ্টি সম্পর্ক রয়েছে।

রাতুলের সঙ্গে তার বয়সের একটা পার্থক্য রয়েছে। তবে রূপাঞ্জনা কিন্তু প্রথম বিবাহ করেছিলেন সাত বছরের ছোট এক অভিনেতাকে। তাকে ডিভোর্স দিয়ে রাতুলের সঙ্গেই সুখী দীপার শাশুড়ি লাবণ্য। তারা দুজনেই চান তাদের সম্পর্কটা যেন একটা পরিণতি পায় ভবিষ্যতে।