এতদিনে কিছু ভালো দেখালেন, দিদি নাম্বার ওয়ানের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা

দিদি নাম্বার ওয়ানে বীরভূমের দোলনদি, জীবনযুদ্ধের গল্প শুনে উপচে পড়ছে প্রশংসা

DIDI NUMBER ONE

জি বাংলার (Zee Bangla) দিদি নাম্বার ওয়ান (Didi Number One) বাংলা টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় একটি রিয়েলিটি শো। এই গেম শো শুধুমাত্র দর্শকদের বিনোদনের জন্য নয়, এর সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে বাংলার ঘরে ঘরে হাজার হাজার মহিলার আবেগ। বিগত ১০ বছরের বেশি সময় ধরে বাংলার কোটি কোটি মহিলাকে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে দিদি নাম্বার ওয়ান।

তবে মাঝে মধ্যেই এই ধারাবাহিকের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ ওঠে। টিআরপির লোভে অতিরঞ্জিত ঘটনাবলী দেখানো হয় বলে অভিযোগ করেন নেটিজেনরা। আবার ভাল কিছু দেখালে প্রশংসাও জোটে। এই যেমন সম্প্রতি দিদি নাম্বার ওয়ানের একটি এপিসোড দেখে প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন দর্শকরা।

DIDI NUMBER ONE

সম্প্রতি দিদি নাম্বার ওয়ানের মঞ্চে এসেছিলেন বীরভূমের দোলন দেবী। জীবনের শত কঠিন পরিস্থিতিতে তার জীবন যুদ্ধের গল্পটা দর্শকদের অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে। তিনি ভাজা বাদাম বিক্রি করে সংসার চালান। শুধু নিজের সংসার নয়, তিনি তার গ্রামের বহু মহিলাকে কর্মসংস্থান করে দিয়েছেন। আজ তিনি অনেকের কাছেই অনুপ্রেরণা।

আজ থেকে ১০ বছর আগে স্বামীকে হারিয়ে দুই সন্তানকে নিয়ে অথৈ জলে পড়েছিলেন দোলন। কিন্তু তার মনোবল কখনও ভাঙেনি। বরং তিনি শত কঠিন পরিস্থিতিতে রুখে দাঁড়িয়েছেন। নিজের পাশাপাশি আরও বেশ কয়েকজন মহিলাকে নিজের পায়ে দাঁড়াতে শিখিয়েছেন। চানাচুর বাদাম প্যাকেটে ভরে দোকানে দোকানে সরবরাহ করে চলে তার সংসার। আর এভাবেই সুখ কিনে নিয়েছেন তিনি।

নিজে দিনরাত পরিশ্রম করে নিজের দুই মেয়েকে লেখাপড়া শিখিয়েছেন। এমনকি মাথার উপরে ছাদও গড়েছেন। গ্রামের গৃহবধূদের রোজগারের পথ দেখিয়ে দিয়ে দোলন দেবী আজ প্রকৃত অর্থেই জীবন যুদ্ধের একজন প্রকৃত যোদ্ধা হয়ে উঠেছেন। এই সোশ্যাল মিডিয়াতে তার প্রতি প্রশংসা উপচে পড়ছে। তার সাহসকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন নেটিজেনরা।