রেখাকে বিয়ে করেও দেননি স্ত্রীর মর্যাদা, চার-চারটে বিয়ে করে মর্মান্তিক পরিণতি হয় এই অভিনেতার

Riya Chatterjee

Updated on:

বলিউড (Bollywood) অভিনেত্রী রেখাকে (Rekha) যেমন চেনেন আপনি, তেমনই বলিউডের প্রখ্যাত অভিনেতা বিনোদ মেহরাকেও (Vinod Mehra) নিশ্চয়ই ভুলে যাননি? ৭০-৮০ এর দশকে একাধিক জনপ্রিয় বলিউড ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। কেরিয়ারে প্রায় ১০০ টিরও বেশি ছবিতে তিনি অভিনয় করেন। তিনি তার সমসাময়িক বহু নামীদামী অভিনেত্রীদের সঙ্গেও অভিনয় করেন।

বিনোদ মেহেরার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বহুবার গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। তিনি বেশিরভাগ ছবিতে রেখার সঙ্গে অভিনয় করেন। যে কারণে তাদের ঘনিষ্ঠতা হয়। শোনা যায় এক সময় নাকি একে অপরের প্রেমে পড়েছিলেন তারা। শুধু তাই নয়, কলকাতায় এসে রেখাকে গোপনে বিয়েও করেছিলেন বিনোদ। কিন্তু সেই সম্পর্কটাকে স্বীকৃতি দিতে পারেননি। কারণ তার মা বেঁকে বসেছিলেন।

VINOD MEHRA AND REKHA

রেখা এবং বিনোদের বিয়ে নিয়ে কানাঘুষো চললেও লেখক ইয়াসিন উসমানের লেখা রেখার বায়োগ্রাফি ‘রেখা এ্যান আনটোল্ড স্টোরি’তে প্রথমবার এই বিষয়টি নিয়ে নিশ্চিত খবর মেলে। বিনোদ মেহেরা কলকাতায় একটি ব্যক্তিগত অনুষ্ঠানে এসে রেখাকে বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু তার মা রেখাকে মেনে নিতে রাজি ছিলেন না।

রেখাকে নিয়ে বাড়িতে পৌঁছতেই বিনোদের মা রেখাকে উদ্দেশ্য করে চিৎকার করতে থাকেন। এমনকি তিনি তাকে জুতো ছুঁড়ে মেরেছিলেন বলে শোনা যায়। রেখাকে একপ্রকার বাড়ি থেকে চলে যেতে বাধ্য করেছিলেন তিনি। এরপর বিনোদের সঙ্গে রেখার সম্পর্কটা ভেঙ্গে যায়। অন্যদিকে ছেলের জন্য অন্য মেয়ে খোঁজেন বিনোদের মা। পছন্দের মেয়ের সঙ্গেই ছেলের বিয়ে দিয়ে দেন তিনি।

VINOD MEHRA AND BINDIYA

যদিও তাদের এই বৈবাহিক সম্পর্কটায় কিছুদিনের অশান্তি শুরু হয়। বিয়ের কিছুদিনের মধ্যেই হৃদরোগে আক্রান্ত হন অভিনেতা। এর জন্য তিনি তার স্ত্রীকে দায়ী করতে শুরু করেন। ঠিক সেই সময় তিনি তার সব অভিনেত্রী বিন্দিয়া গোস্বামীর প্রেমে পড়েন। বিয়েও করেছিলেন দুজনে। এদিকে খবর পেয়ে বিনোদের দ্বিতীয় স্ত্রী তাকে হুমকি দিতে শুরু করেন।

VINOD AND BINDIYA

বিন্দিয়া বিনোদের দ্বিতীয় স্ত্রীকে এতটাই ভয় পেতেন যে তিনি একটি হোটেলে থাকতে শুরু করেন। এরপর তিনিও বিনোদের জীবন থেকে সরে যান এবং জেপি দত্তকে বিয়ে করেন। এতে ভীষণ ভেঙ্গে পড়েন বিনোদ। এরপর তিনি তার দ্বিতীয় স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়ে দেন। ১৯৮৮ সালে তিনি কিরণকে বিয়ে করেন এবং অবশেষে একটা সুখের সংসারের মুখ দেখেন। তবে বিয়ের মাত্র দুই বছরের মাথায় তিনি আবার হৃদরোগে আক্রান্ত হন ও মারা যান।