উড়ন্ত সিঁদুর, ছুটন্ত মালাবদল অতীত, এবার বাংলা সিরিয়ালে এল ঘুমন্ত বিয়ে

Riya Chatterjee

Published on:

বাংলা সিরিয়ালে (Bangla Serial) বিয়ে মানেই সেখানে অতিরঞ্জিত কিছু ঘটবেই। বিয়ের দৃশ্যগুলি আসলে টিআরপি তোলার অন্যতম সহজ পন্থা যেগুলো মিস করতে চান না নির্মাতারা। এতদিন বাংলা সিরিয়ালে উড়ন্ত সিঁদুর কিংবা ছুটন্ত মালায় বিয়ে হতে দেখেছেন দর্শকরা। তবে সব্বাইকে টক্কর দিয়ে এখন টেলিভিশনে হাজির ঘুমন্ত বউ! স্টার জলসার (Star Jalsha) বাংলা মিডিয়াম (Bangla Medium) সিরিয়ালে ‘ঘুমন্ত বউ’ নিয়ে হাসাহাসি শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে।

বাংলা মিডিয়াম অবশ্য বাকিদের কপি করেনি। অর্থাৎ অন্যান্য সিরিয়ালগুলোর মত নায়কের হাত থেকে সিঁদুর উড়ে নায়িকার কপালে ছুঁতেই বিয়ে হল কিংবা উড়ন্ত মালা বদলের মাধ্যমে বিয়ে হল, এমনটা দেখায়নি। তবে তার বদলে এখানে বিক্রম এবং ইন্দিরার বিয়েটা যেভাবে হল তাতে হাসি থামছেই না দর্শকদের। একপ্রকার ঘুমিয়ে ঘুমিয়েই বিক্রমকে বিয়ে করে নিল ইন্দিরা! দেখে শুনে থ বনে গেলেন দর্শকরা।

bangla medium

আসলে বিক্রমের সঙ্গে প্যামেলার বিয়ে ঠিক হয়েছিল। তবে তারও আগে বিক্রম ইন্দিরার সঙ্গে বিয়ের দিনে বিয়ে ভেঙে দিয়েছিল কারণ সে বাংলা মিডিয়ামে পড়া মেয়েকে বিয়ে করতে চায় না। এদিকে বিক্রমের ঠাকুমা ইন্দিরাকেই নাতবৌ বানাতে চান। প্যামেলাকে তার মোটেও পছন্দ নয়। তিনি বিয়ের দিন পাত্রী বদলানোর ফন্দি করেছিলেন। যদিও প্যামেলা অবশ্য নিজেই মদ খেয়ে অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে থাকে।

এদিকে বিক্রমের সঙ্গে ইন্দিরার বিয়ে দেওয়ানোর জন্য ঘুমের ওষুধ মেশানো শরবত তাকে খাইয়ে দেন ঠাম্মি। তারপর ঘুমন্ত ইন্দিরাকে সাজিয়ে গুছিয়ে মুখ ঢেকে আনা হয় মন্ডপে। শুভদৃষ্টির সময় প্যামেলার জায়গায় ইন্দিরাকে দেখেও পরিবারের সম্মানের কথা ভেবে মুখ বুজে থাকে বিক্রম। এদিকে ইন্দিরার জ্ঞান ফিরে আসে, সেও প্রতিবাদ করতে না পেরে বিয়েটা করেই ফেলে।

bangla medium 1

বাংলা মিডিয়াম সিরিয়ালের এই দৃশ্য দেখে দর্শকরা হেসে কুটোপাটি হলেন। তারা মজা করে বলছেন সিঁদুর ওড়েনি, তবে বউকে অজ্ঞান করে বিয়ে দেওয়ানো হচ্ছে বাংলা সিরিয়ালে এটা নতুনই বটে। কেউ কেউ আবার বলছেন এখন ইন্দিরাকে অজ্ঞান করে বিয়ে দেওয়াচ্ছে। কিছু না জেনে বুঝেই তার সঙ্গে এই ঘটনা ঘটছে। কিন্তু পরে এই বিয়ের জন্য সব দোষ তাকেই দেওয়া হবে।

bangla medium

উল্লেখ্য, কৃষ্ণকলি ধারাবাহিকের পর এক বছরের মধ্যেই বাংলা মিডিয়ামের হাত ধরে নীল ভট্টাচার্য এবং তিয়াসা লেপচা আবার পর্দায় ফিরলেন। কৃষ্ণকলি সিরিয়ালটি প্রায় চার বছরের কাছাকাছি সময় ধরে চলেছিল। এদিকে বাংলা মিডিয়ামের টিআরপিও এখন বেশ ভাল। সিরিয়ালটিকে কেন্দ্র করে ট্রোলিং হলেও দর্শকরা বেশ পছন্দ করছেন এই সিরিয়াল দেখতে।