ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত! ফেসবুকে ‘অহংকারী’ সুদীপার মন্তব্যে উঠলো তুমুল বিতর্কের ঝড়

Riya Chatterjee

Published on:

জি বাংলা (Zee Bangla) রান্নাঘর (Rannaghor) রিয়েলিটি শোয়ের সঞ্চালিকা সুদীপা চ্যাটার্জী (Sudipa Chatterjee) আর বিতর্ক যেন দুটি সমার্থক শব্দ হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিতর্ক কোনওভাবেই পিছু ছাড়ছে না সুদীপার। কখনও সুইগী ডেলিভারি বয়দের নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে সোশ্যাল মিডিয়ার বিরাগভাজন হচ্ছেন, তো কখনও আবার লাইভে শাড়ি বিক্রি করতে বসে তার বিরুদ্ধে উঠছে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগ। তবে এবার ভিন্ন সম্প্রদায়ের ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দিয়ে ফের বিতর্কের মুখে পড়তে হল তাকে।

রান্নাঘরের সঞ্চালনা ছাড়াও সুদীপার বর্তমানে শাড়ির ব্যবসা রয়েছে, সে কথা প্রায় সকলেরই জানা। সোশ্যাল মিডিয়াতে তার শাড়ির ব্যবসার অনেক নাম রয়েছে। সময় সুযোগ পেলেই লাইভে শাড়ি বিক্রি করতে বসে পড়েন রান্নাঘরের রানী। এবার ফেসবুক লাইভে শাড়ির প্রচার করতে এসে ফের একবার বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন সুদীপা।

এদিন দুপুর থেকে লাইভ করার কথা ছিল সুদীপার। বসতে বসতে অনেকটাই দেরি হয়ে যায় তার। কারণ হিসেবে তিনি বলেন তার দোকানের কর্মচারীরা দেরি করিয়ে দিয়েছেন তাকে। তাই দুপুরে লাইভ করার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত সন্ধ্যেবেলায় তিনি তার শাড়ির পসরা নিয়ে বসেন। লাইভ করা নিয়ে এদিন একাধিক অনুযোগ করছিলেন তিনি। শুরু থেকেই একাধিক বিঘ্ন পড়ছিল তার লাইভ করায়।

প্রথমত দোকানের কর্মচারীরা তাকে দেরি করিয়ে দেন। এরপর নাকি ঘুমিয়ে পড়েছিলেন সুদীপা। ঘুম থেকে জেগে উঠে লাইভে যখন এলেন তখন সন্ধ্যে গড়িয়ে গিয়েছে। সন্ধ্যাবেলায় লাইভ করার সময় তার বারবার মনে হচ্ছিল মুখের উপর যথেষ্ট পরিমাণ আলো পড়ছে না। তবে অনুগামীরা তাকে জানিয়ে দেন আলো ঠিকই আছে। এরপরই মসজিদের আজান শুরু হয়। আজানের শব্দে বিরক্ত হয়ে পড়েন রান্নাঘরের রানী।

সুদীপা লাইভ করতে করতে বলতে থাকেন, “এরা আর কতক্ষণ চেঁচাবে?” তার প্রশ্নের জবাবে পাশে থাকা তার কর্মচারীরা বলেন পাঁচটা থেকে ছয়টা অব্দি আজান চলে। সুদিপা বলেন এরপর থেকে পাঁচটা থেকে ছয়টা তিনি আর লাইভে আসবেন না। তবে নেটিজেন্দের মধ্যে থেকে যারা লাইভ দেখছিলেন তারা জানাচ্ছেন আজানের কারণে সুদীপার কথা শুনতে তাদের কোনও সমস্যা হচ্ছিল না।

এদিকে সুদীপার মুখে এমন বিতর্কিত মন্তব্যের কারণে ফের উত্তাল হয়ে উঠল সোশ্যাল মিডিয়া। এর আগেও বহুবার বিভিন্নভাবে নিজের ‘অহংকারী’ স্বভাবের পরিচয় দিয়েছিলেন সুদীপা। নিয়ে বিস্তর গোলযোগের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। এবারেও নেটিজেনরা সুদীপাকে ছেড়ে কথা বলছেন না। এমনকি তিনি তার কর্মচারীদের সঙ্গেও দুর্ব্যবহার করছিলেন লাইভ চলাকালীন। সেটাও ভালভাবে নিচ্ছেন না নেটিজেনরা।