কেমন আছেন জন্মভূমির ‘পিসিমা’, স্বর্ণযুগের বিখ্যাত অভিনেত্রী মিতা চ্যাটার্জী

Riya Chatterjee

Published on:

যে অভিনেতা এবং অভিনেত্রীদের নিয়ে ধীরে ধীরে পথ চলা শুরু করেছিল বিনোদনের দুনিয়া, তারা সকলেই আজ বর্ষীয়ান, প্রবীণের দোরগোড়ায় পৌঁছেছেন। এদের মধ্যে অনেকেই এখন আর পৃথিবীতে নেই। তবে তাদের স্মৃতি এখনও দর্শকদের মনে রয়ে গিয়েছে। এমনই একজন মানুষ ছিলেন মিতা চট্টোপাধ্যায় (Mita Chattopadhyay)। বর্ষীয়ান এই অভিনেত্রীকে একাধিক ছবি এবং ধারাবাহিকে (Bengali Mega Serial) পিসিমা, দিদা কিংবা ঠাকুরমা চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। তবে ‘জন্মভূমি’ (Jonmobhumi) ধারাবাহিকের ‘পিসিমা’ হিসেবে তাকে আজও সকলে মনে রেখেছেন।

জীবন সায়াহ্নে পৌঁছেও বর্ষীয়ান এই অভিনেত্রী ‌চুটিয়ে অভিনয় করেছেন। তার অভিনয় দর্শকদের মনে দাগ কেটে যেতে বাধ্য। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে তাকে নিয়ে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এই ভিডিওটি ‘জি বাংলা’র (Zee Bangla) ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’ (Didi Number One) এর মঞ্চের ভিডিও। ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’ খেলতে এসেছিলেন অভিনেত্রী। খেলার ফাঁকে সঞ্চালিকা রচনা ব্যানার্জির (Rachana Banerjee) সঙ্গে আড্ডাও দিতে দেখা গেল তাকে।

ভাইরাল এই ভিডিওতে মিতা চট্টোপাধ্যায়কে তার অভিনয় শুরুর দিনগুলোর কথা বলতে শোনা যায়। তিনি রচনাকে জানান, ‘১৯৪৪ সাল থেকেই রয়েছি অভিনয়ের জগতে। সেই সময় খবরের কাগজে ছবি বেরিয়েছিল, পাড়ার সবাই কি আদরটাই না করেছিলো আমায়। নিয়মকানুনের মধ্যেই বড় হয় উঠেছিলাম। অভিনয় নয় নৃত্যশিল্পী হিসাবেই পরিচিত পেতে শুরু করেছিলাম। বরাবরই অল ইন্ডিয়া ড্যান্স কম্পিটিশনে প্রথম হতাম।’

এই ভিডিওটি যে সময়কার সেই সময় মিতা চট্টোপাধ্যায়ের বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। এই বয়সেও তাকে এত প্রাণবন্ত দেখে অবাক হয়েছেন রচনা। তার প্রশংসা করেছেন মন খুলে। বর্ষিয়ান অভিনেত্রী জানিয়েছেন তিনি একসময় ঘোড়ায় চড়েছেন, রাইফেল চালিয়েছেন। তবে তার শরীরে একাধিক স্ট্রাকচার রয়েছে। তাই এখন আর নাচ করেন না। তিনি নিজেই রচনাকে বলেন, ‘তবুও তো চলছি রে মা… এটার জন্যই আমি ভগবানকে ধন্যবাদ জানাই’।

দিদি নাম্বার ওয়ান সিজন ১ থেকে এই ভিডিও ক্লিপিংস ভাইরাল হয়েছে। এরপর কেটে গিয়েছে ১০টা বছর। এতদিন পর নেটিজেনরা ফের একবার ভিডিওটি স্যোশাল মিডিয়ায় ফিরিয়ে এনেছেন। এই ভিডিওতে রচনা মিতা চট্টোপাধ্যায়কে তার ফিটনেস রহস্য জানতে চান। অভিনেত্রী প্রাণখোলা হাসি মুখে জানান, ‘আমি এখনো সবই খাই। তবে রুটিগুলো ছোট ছোট করে নিতে হয়। কারণ উত্তর-দক্ষিণ উভয়ই খোলা’।

অভিনেত্রীর এই স্পিরিট দেখে রচনা ব্যানার্জী তার প্রশংসা করে ওঠেন। রচনা বলেন, ‘৮৬ বছর বয়সেও মিতা দিদি নাম্বার ওয়ানে আমার সাথে খেলতে এসেছেন। ও তার কথার মধ্যে এতোটুকু জড়তা নেই, বরং কি সুন্দর সেজে এসেছে’। ভিডিওটি নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছে নিমেষেই। অনেকেই তাকে ‘জন্মভূমি’ ধারাবাহিকে প্রথম দেখেছিলেন। এত বছর পেরিয়ে যাওয়ার পর পছন্দের অভিনেত্রীকে ফের একবার ‌ সামনে থেকে দেখে তারাও নস্টালজিক হলেন।