কেমন দেখতে শাহরুখ খানের বাড়ির অন্দরমহল, ঘুরে দেখুন বাড়ির অন্দরমহল

মাত্র ৫ জনের জন্য ২০০ কোটির রাজপ্রাসাদ, ঘুরে দেখুন শাহরুখ খানের বাড়ির অন্দরমহল

Inside View of Shahrukh Khan's Rs 200 Crore House Mannat

মুম্বাইয়ের বান্দ্রার সব থেকে অভিজাত এলাকায় বলিউডের (Bollywood) বাদশার বাস। ‘মন্নত’ (Mannat), শাহরুখ খানের (Shah Rukh Khan) স্বপ্নের রাজপ্রাসাদের নাম শোনেননি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া ভার। এই রাজপ্রাসাদের মতো বাড়িতেই তিন সন্তান এবং স্ত্রী গৌরী খানকে নিয়ে থাকেন শাহরুখ। এই বাড়ি আবার পর্যটকদের জন্য অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটনস্থল হিসেবে বেশ পরিচিত। তাই তো মুম্বাইতে কেউ এলে একবার অন্তত বান্দ্রাতে মন্নতকে নিজের চোখে দেখতে আসবেনই!

এহেন মন্নতে ভেতরে বিনা অনুমতিতে প্রবেশ করার অধিকার নেই কারও। উঁচু পাঁচিল দিয়ে ঘেরা মন্নতের অন্দরে উঁকি ঝুঁকি মেরেও লাভ নেই কোনও। তবে শাহরুখ এবং গৌরী কিন্তু ভক্তদের মনের অপূরণীয় ইচ্ছাপূরণ করে দেন মাঝেমধ্যে। সোশ্যাল মিডিয়াতে সাজানো-গোছানো মন্নতের অন্দরমহলের ছবি পোস্ট করে থাকেন তারা। যা দেখে চোখ ফেরাতেই পারা যায় না।

From Shah Rukh Khan to Ratan Tata, See Mumbai`s Most Expensive Houses

মন্নতকে খুব যত্ন সহকারে গড়েছেন শাহরুখ খান। গৌরী খান নিজে এই রাজপ্রাসাদের ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং করেছেন। ২৭ হাজার স্কয়ার ফিটের উপরে গড়ে উঠেছে এই রাজমহল। যার ভেতরে জিম, সুইমিংপুল, বিশাল বাগান, একাধিক ঘর, জিমখানা, শাহরুখের নিজস্ব অফিস, লাইব্রেরী এবং রয়েছে একটা আস্ত সিনেমা হল। মন্নতকে মুম্বাইয়ের সব থেকে সুন্দর প্রাসাদ বলে চিহ্নিত করা হয়।

শাহরুখ তার জীবনে ছবিতে অবদানের জন্য পেয়েছেন বহু ট্রফি এবং অ্যাওয়ার্ড। শুধুমাত্র সেই ট্রফি এবং অ্যাওয়ার্ড সাজিয়ে রাখার জন্যই রয়েছে একটা বিশাল ঘর। এছাড়া এই রাজপ্রাসাদের ভেতরে যে হোম থিয়েটার রয়েছে সেখানে ৪২ জন আরাম করে বসে সিনেমা দেখতে পারে। হোম থিয়েটারের দেওয়াল জুড়ে সাজানো রয়েছে ক্লাসিক হিন্দি ছবির পোস্টার।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Gauri Khan (@gaurikhan)

শাহরুখের বাড়িতে প্রবেশের পথেই ‘শোলে’, ‘রাম অউর শ্যাম’, ‘মুঘল এ আজম’ এর পোস্টার চোখে পড়ে। চার্লি চ্যাপলিনের লাঠি সযত্নে সাজিয়ে রেখেছেন শাহরুখ। শাহরুখ যখন মন্নত কিনেছিলেন তখন এর দাম ছিল ১৩ কোটি টাকা। তারপর তিনি সুন্দর করে সাজিয়ে তুলেছেন তার স্বপ্নের রাজপ্রাসাদকে। আজ এই বাড়ির দাম ২০০ কোটি টাকার কম নয়।

মুম্বাইয়ের নারিমান ডুবাসের কাছে ১৯৯৫ সালে যখন প্রথমবার এই বাংলোটি কেনার জন্য দেখতে গিয়েছিলেন শাহরুখ-গৌরী, তখন প্রথম দেখাতেই মন্নতের প্রেমে পড়ে যান শাহরুখ-পত্নী। যদিও তখন অবশ্য মন্নতের নাম ছিল ভিলা ভিয়েনা। গৌরী বলেন তার তিন সন্তান মন্নতকে সাজাতে সাহায্য করেছে। তাদের প্রত্যেকের ব্যক্তিত্ব এবং পছন্দ-অপছন্দের খেয়াল রেখে ঘর সাজিয়েছেন গৌরী।