হিন্দু হয়েও কেন মুসলিমকেই ‘নিকাহ’ করলেন বাঙালি অভিনেত্রী দেবলীনা? দিলেন জবাব

Riya Chatterjee

Published on:

বছর শেষে একেবারে চুপিসারে মনের মানুষকে বিয়ে করেছেন দেবলীনা ভট্টাচার্য (Devoleena Bhattacharya)। গোপী বহুর (Gopi Bahu) বিয়ে নিয়ে এখন তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। আর হবে নাই বা কেন? এই বাঙালি অভিনেত্রীর খ্যাতি যে গোটা ভারত জোড়া। তাই তার ব্যক্তিগত জীবনে বিতর্কিত কিছু ঘটলেই তা সংবাদ মাধ্যমের শিরোনাম দখল করবেই। হিন্দু হয়েও মুসলিম যুবককে বিয়ে করেছেন দেবলীনা। সোশ্যাল মিডিয়ার একাংশের অভিযোগের আঙ্গুল উঠছে এখন তার দিকে।

স্বামীর পরিচয় ফাঁস করতেই সোশ্যাল মিডিয়াতে তীব্র কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়েছে অভিনেত্রীকে। দেবলীনার স্বামী শাহনওয়াজ শেখ। তিনি পেশায় একজন জিম ট্রেনার। শেষমেষ জিম ট্রেনারের প্রেমে পড়ে তার সঙ্গেই ‘নিকাহ’ সেরে ফেলেছেন দেবলীনা। এদিকে নিন্দুকরা এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে ক্রমাগত তাকে এবং তার স্বামীকে বিঁধছেন। যদিও চুপ করে নেই দেবলীনাও।

প্রশ্ন উঠছে তিনি কেন একেবারে সাদামাটাভাবে বিয়ের আয়োজনটা করলেন? কেন তার বিয়েতে কোনও এলাহী আয়োজন রইল না? এই প্রশ্নের জবাবে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, “ছোটবেলায় বিয়ে নিয়ে ধারণাটা ছিল অন্যরকম। ভীষণ রাজকীয় কিছু পরিকল্পনাই ছিল সবসময়ই। কিন্তু কোভিড টাকার মর্যাদা দিতে শিখিয়েছে। বিয়ের পেছনে সর্বস্ব উজাড় করে দেওয়ার পক্ষপাতী নই। বরং সেই অর্থ যাদের সত্যি প্রয়োজন, তাদের দিয়ে সাহায্য করতে চাই। সকলের আশীর্বাদটাই জীবনের সুখ। আমি লোক দেখানোতে বিশ্বাসী নই।”

অভিনেত্রীর এই বিয়েতে খুশি নন তার পরিবার। বিয়ের পরপরই তার দাদা সোশ্যাল মিডিয়াতে বোনের নাম না নিয়ে ‘আত্মকেন্দ্রিক’ বলে ধুয়ে দেন। তবে অভিনেত্রীর মা বিয়ের সময় মেয়ের পাশে ছিলেন। তাই দেবলীনা বলেছেন, “এটা আমার জীবনের একটা বড় দিন। আমার মা ছিলেন আমার সঙ্গে। আমার আস্থা রয়েছে ভালবাসার উপর। সর্বোপরি আমি কৃতজ্ঞ এই ব্রহ্মাণ্ডের কাছে, আমার জীবনে এমন একটা সুন্দর দিন উপহার দেওয়ার জন্য।”

যে যাই বলুন না কেন, শাহনাওয়াজের মত স্বামী পেয়ে নিজেকে ধন্য বলে মনে করছেন দেবলীনা। স্বামীকে উদ্দেশ্য করে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি পোস্ট করে তিনি লিখেছিলেন, “হ্যাঁ আমি চিরকালের জন্য তোমার হলাম। চিরাগ নিয়ে খুঁজলেও তোমার মত কাউকে পেতাম না। আমার সব কষ্টের জবাব তুমি। তোমাকে খুব ভালোবাসি সোনু”। এদিকে আফতাব-শ্রদ্ধা কাণ্ডের প্রসঙ্গ তুলে ধরে সোশ্যাল মিডিয়াতে কেউ দেবলীনাকে উদ্দেশ্য করে মন্তব্য করেছিলেন, ‘‘এবার ফ্রিজে তোমার দেহ মিলবে।’’

এই কথায় প্রচন্ড রেগে গিয়েছিলেন দেবলীনা। তিনি পাল্টা মন্তব্য করেন, “তোমার স্ত্রী সন্তান তোমাকেই না ফ্রিজে পুরে দেয়। ঘটনাটা সাম্প্রতিক, তাই মনে করিয়ে দিতে হবে না”। প্রশ্ন উঠেছিল তার তার হবু সন্তানের ধর্ম পরিচয় নিয়েও। তিনি পাল্টা জবাব দেন, “আমার বিয়ে, আমার সন্তান, আমার স্বামী, আমার ধর্ম। আপনাদের এত মাথাব্যাথা থাকলে অনাথ আশ্রম থেকে সন্তান দত্তক নিন। নিজের ধর্ম অনুযায়ী নামকরণ করুন না। আমার সন্তান আমার ধর্ম নিয়ে আপনারা বলার কে?”