গান গাইতে এসে মাতলামি! নোবেলকে জুতোপেটা করে মঞ্চ থেকে তাড়ালেন দর্শকরা

Avatar

Published on:

বাংলাদেশের গানের জগতের জনপ্রিয় পরিচিত মুখ হলেন মইনুর আহসান নোবেল (Mainul Ahsan Noble)। কখনও ব্যক্তিগত জীবন আবার কখনও পেশাদার জীবনের কারণে বিতর্কে জড়িয়ে পরেন তিনি। এপার বাংলা বিখ্যাত রিয়ালিটি শো (reality show) ‘সারেগামাপা’তে (Saregamapa) গান গাইতে এসে সকলের নজর কেড়েছিলেন তিনি।

দুই বাংলাতেই তাকে‌ প্রচুর মানুষ চেনেন। কিন্তু বার বার ভুল মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি। আবার কখনও স্ত্রী তার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছে। তবে এবার গান গাইতে উঠে অসংলগ্ন আচরণ করলেন তিনি। ঘটনাটি ঘটেছে বাংলাদেশেই।

NOBLE

সম্প্রতি বাংলাদেশের কুড়িগ্ৰাম ফুলবাড়ি ডিগ্ৰি কলেজের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে নোবলকে গান গাওয়ার জন্য আমন্ত্রন জানানো হয়েছিল। সেখানে সঙ্গীত পরিবেশন করার কথা ছিল তার। সেখানেই আবার অসংলগ্ন আচরণ করে বসলেন তিনি।

জানা গিয়েছে, রাত ৯টায় তার মঞ্চে ওঠার কথা ছিল। কিন্তু তিনি গান গাইতে ওঠেন ১১টা ২০ নাগাদ। আর গান গাইতে উঠে হঠাৎ মাতলামি করা শুরু করে দিয়েছিলেন তিনি। তার আচরণে দর্শকরা এতটাই রেগে গিয়েছিলেন যে তাকে লক্ষ করে অনেকে বোতল ও জুতো মারা শুরু করেছিলেন।

NOBLE

সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। বিপদের আঁচ পেয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষ গায়ক নোবেলকে মঞ্চ থেকে সরিয়ে নেন। যদিও এই প্রথম নয় আগেও এই ধরনের কান্ড কারখানা করে মানুষের কটাক্ষের শিকার হয়েছেন তিনি।

NOBLE

অত্যাধিক নেশা করার ফলেই এমনটা ঘটান তিনি। এক নিজেও শিকার করেছেন তিনি। এই প্রসঙ্গে তিনি কিছু দিন আগেই বলেছিলেন, ‘জীবনে অপ্রত্যাশিত সব কিছুই ঘটেছে। হৃদয় ভেঙেছে। মদ এবং মাদকে আসক্ত হয়েছি। আমার মাথায় ৭০টি স্টিচ আছে। আমার প্রাক্তন স্ত্রী তাতে খুশি হয়েছে। আমার কেরিয়ার নষ্ট হয়ে গিয়েছে। শুধু মৃত্যুটাই বাকি আছে।”