দারুণ অঘটন! গাঁটছড়ার স্লট ছিনিয়ে স্টার জলসায় আসছে নতুন সিরিয়াল

তলানিতে টিআরপি, স্টার জলসার সিরিয়ালের স্লট ছিনিয়ে নিয়ে আসছে এই নতুন সিরিয়াল

Bangla Medium is going to replace Gantchhora

প্রিয় সিরিয়ালের (Bengali mega serial) টিআরপি কমলেই মনে মনে প্রমাদ গুনতে শুরু করেন দর্শকরা। এবার স্টার জলসায় (Star Jalsha) দর্শকদের অত্যন্ত পছন্দের সিরিয়াল গাঁটছড়াকে (Gantchhora) নিয়েও দর্শকদের আশঙ্কা বাড়ছে। কারণ দিন প্রতিদিন এই ধারাবাহিকের টিআরপি কমছে। এদিকে টিআরপি কম হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই প্রিয় এই ধারাবাহিকের স্লট হারানোর ভয় পাচ্ছেন দর্শকরা।

এই মুহূর্তে স্টার জলসার হাতে বেশ কিছু নতুন সিরিয়াল রয়েছে যেগুলোর স্লট ঘোষণা করা হয়নি। বাংলা মিডিয়াম তো ছিলই সেই সঙ্গে পঞ্চমীও যুক্ত হয়েছে এই নতুন সিরিয়ালের তালিকায়। একমাস আগেই বাংলা মিডিয়ামের (Bangla Medium) প্রোমো শেয়ার করেছিল স্টার জলসা। এবার শুধু স্লট ঘোষণা হওয়া বাকি। তবে একটা বিষয় নিশ্চিত যে নতুন ধারাবাহিক অবশ্যই প্রাইম টাইমে আসবে।

BANGLA MEDIUM

এদিকে এই মুহূর্তে স্টার জলসার দুর্বল প্রাইম টাইমের দিকে যদি নজর রাখা যায় তাহলে দেখা যাবে সন্ধে ৬.৩০ টার সময় সাহেবের চিঠি এবং সন্ধ্যা ৭ টার সময় গাঁটছড়ার স্লট দুটোই সব থেকে বেশি খারাপ। বাকি আর কোনও স্লটে নতুন ধারাবাহিক আসার সম্ভাবনা যেমন নেই। অন্যদিকে গাঁটছড়া শুরু থেকেই প্রথম তিনে থাকলেও বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে ক্রমাগত খারাপ ফল করেই চলেছে।

আসলে গাঁটছড়ার বিপরীতে জগদ্ধাত্রী এখন দারুণ টিআরপি পাচ্ছে। এমনকি এই সিরিয়ালটি বেঙ্গল টপারও হয়ে যাচ্ছে। তাই জি বাংলাকে টক্কর দিতে হলে সন্ধ্যা ৭ টার এই স্লটে স্টার জলসাকে আরও বেশি ভাল রেজাল্ট করতে হবে। সেক্ষেত্রে গাঁটছড়ার জন্য সময়টা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আর মাত্র কিছুদিনের মধ্যেই বাংলা মিডিয়ামের স্লট ঘোষণা হবে।

এই মুহূর্তে যা দেখা যাচ্ছে তাতে বাংলা মিডিয়াম গাঁটছড়ার স্লটেই যে আসছে তার প্রায় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। এখন শুধু চ্যানেলের তরফ থেকে ঘোষণা হওয়াটা বাকি। বাংলা সিরিয়ালের দশকের কাছে নীল এবং তিয়াসার জুটি দারুন জনপ্রিয়। একমাত্র এই সিরিয়ালই এখন স্টার জলসার তুরুপের তাস হয়ে দাঁড়াতে পারে। তাই নতুন সিরিয়ালের জন্য কপাল পুড়তে পারে ঋদ্ধি-খড়ির।

gantchhora

তবে এই সিরিয়ালটি কিন্তু এখনই বন্ধ হয়ে যাবে না। অন্যান্য সিরিয়ালের মত প্রথমে স্লট পরিবর্তন করে দেওয়া হবে। বিকেলে কিংবা রাতের দিকে পাঠিয়ে দেওয়া হতে পারে গাঁটছড়াকে। এখন আগামী দিনে গাঁটছড়ার টিআরপিই একমাত্র ভরসা যোগাতে পারে। যদি টিআরপি বাড়ে তবেই এই অঘটন এড়ানো সম্ভব।