‘পরিবারের সঙ্গে বসে দেখা যায় না’, জি বাংলার সিরিয়ালের বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছে নেটপাড়া

নোংরামির মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার, ধুয়ে দিলেন দর্শকরা

জি বাংলার (Zee Bangla) লক্ষ্মী কাকীমা সুপারস্টার (Lokkhi Kakima Superstar) ধারাবাহিককে নিয়ে দর্শকদের মধ্যে এখন বেশ অসন্তোষ লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সম্প্রতি এই ধারাবাহিকে যে নতুন মোড় আনা হয়েছে তা নিয়ে আপত্তি তুলছেন দর্শকদের একাংশ। লক্ষ্মী কাকিমা অসুস্থ, তাই তার পরিবার সন্দেহ করছে তিনি নাকি এই বয়সে প্রেগন্যান্ট হয়েছেন। এই নতুন ট্র্যাকের উপর ভর করে গত কিছুদিন ধরে গল্প যেভাবে এগোচ্ছে বা যে ধরনের সংলাপ ব্যবহৃত হচ্ছে তাতে দর্শকরা খুব একটা খুশি নন।

জি বাংলা এবং স্টার জলসা, রাত ৮.৩০টার স্লটে একে অপরকে টেক্কা দেওয়ার জন্য লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার এবং মাধবীলতাকে টিআরপি দখলের জন্য ময়দানে নামিয়েছে। লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার প্রথম থেকেই দর্শকদের বেশ ভালই লেগেছে। এদিকে মাধবীলতা তার দুর্বল প্লট, নায়িকার আলটপকা সংলাপের কারণে সমালোচিত হচ্ছে। দর্শকরা বলছেন দুই চ্যানেলের এই দুই সিরিয়াল একে অপরকে টেক্কা দিতে গিয়ে নাকি সব থেকে খারাপ গল্প লেখার প্রতিযোগিতায় নেমেছে!

কিছুদিন আগেই যেমন মাধবীলতাকে বলতে শোনা গিয়েছিল সে নাকি পেনের কালি ফুরিয়ে যাওয়ার কারণে পদার্থবিজ্ঞানে ১০০ মধ্যে ৯৮ পেয়েছে‌। দুই নম্বরে প্রশ্নের উত্তর জানলেও লিখতে পারেনি কারণ কেউ তাকে পেন দিয়ে সাহায্য করেনি। এই নিয়ে তুমুল ট্রোল্ড হতে হয়েছিল মাধবীকে। এদিকে দর্শকরা ছেড়ে কথা বলছেন না লক্ষ্মী কাকিমাকেও।

৪০ পেরিয়ে মা হতে চলেছেন লক্ষ্মী কাকিমা। এই নিয়ে সিরিয়ালে ডাক্তার, লক্ষ্মী কাকিমা কিংবা তার স্বামীর মধ্যে যে কথোপকথন চলছে তাতে একাধিক দর্শক আপত্তি তুলেছেন। তাদের দাবি অবাস্তব গালগল্পে ভরিয়ে ফেলা হচ্ছে সিরিয়ালটিকে। অবিলম্বে গল্পের ট্র্যাকে কিছু পরিবর্তন আনার দাবি জানাচ্ছেন তারা। এরই মধ্যে আবার চ্যানেলের তরফ থেকে শেয়ার করা হয় একটি ভিডিও যেখানে দেখানো হয়েছে লক্ষ্মী কাকিমা তার অন্তঃসত্ত্বা বৌমার সঙ্গে একসাথে বসে সাধ খাচ্ছেন!

অবশ্য সাধ খাওয়ার এই গোটা ঘটনাটাই ঘটে গিয়েছে লক্ষ্মী কাকিমার স্বপ্নে। হাসপাতালে রিপোর্ট দেখাতে এসে বসে বসেই ঘুমিয়ে গিয়ে তিনি তার সাধ খাওয়ার স্বপ্ন দেখে ফেলেন। গত কয়েকদিন ধরে সিরিয়ালে লক্ষ্মী কাকিমা তার স্বামী দেবুকে এই ঘটনার জন্য ক্রমাগত দোষারোপ করেছেন। তবে তিনি আদেও প্রেগন্যান্ট কিনা সেটা এখনও নিশ্চিতভাবে জানা যায়নি।

এদিকে দর্শকরা এসব দেখে বলছেন ৪০-৫০ বছর আগে এসব ঘটনা ঘটত, বর্তমানে বাস্তবের সঙ্গে গল্পের কোনও মিল নেই। কেউ কেউ তার বিরোধিতা করে বলছেন এখনও বাস্তবে এমন ঘটনা ঘটে। তবে সিরিয়ালে এটা দেখানো উচিত হয়নি বলে মন্তব্য করছেন তারা। দর্শকরা বলছেন, লক্ষ্মী কাকিমা এবং তার স্বামীর মধ্যে বর্তমানে যে কথোপকথন চলছে তা পরিবার নিয়ে সিরিয়াল দেখতে বসে শোনা যায় না।