মহাচমক ধূলোকণায়, লালন-তিতিরের বিয়ের দিনেই অঙ্কুর ঘটাবে এই কান্ড, চমকে গেলেন দর্শকরা

লালন-তিতিরের বিয়েতে আসছে দারুণ মোড়, ধূলোকণার গল্পে আসছে মহা টুইস্ট

Ankur is going to play a vital role to bring Lalon back to Fuljhuri

স্টার জলসার (Star Jalsha) ধূলোকণা (Dhulokona) সিরিয়ালটি মাঝে কিছুদিন বেশ ভালই এগোচ্ছিল। টানটান উত্তেজনাময় পর্বের কারণে টিআরপিতে শ্রেষ্ঠ আসন দখল করেছিল এই সিরিয়ালটি। তবে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে টিআরপিতে বেশ খানিকটা নিচে নেমে গিয়েছে সিরিয়ালটি। ফুলঝুরিকে ছেড়ে লালনের তিতিরের কাছে চলে যাওয়াটা মোটেই ভালভাবে নেননি দর্শকরা। তাই গল্পে এসেছে কিছু পরিবর্তন।

লালন-ফুলঝুরিকে ছেড়ে গেলেও ফুলঝুরির জীবনে এখন একের পর এক নতুন মোড় আসছে। ইতিমধ্যেই দেখানো হয়েছে ফুলঝুরি প্রেগনেন্ট। ওদিকে আবার অঙ্কুরও ফিরে এসেছে। লালন-ফুলঝুরির সম্পর্কে যখন প্রায় ভেঙে যাওয়ার মুখে ছিল তখন অঙ্কুর এসে তাদের ভাঙ্গা সম্পর্ককে জোড়া লাগিয়ে দেয়। সে নিজে দাঁড়িয়ে থেকে লালন এবং ফুলঝুরির বিয়ে দিয়েছিল। আবার যখন তাদের সম্পর্কের মধ্যে চিড় ধরেছে তখনও দেবদূতের মত এসে হাজির হয়েছে অঙ্কুর।

অঙ্কুরের প্রবেশে আশার আলো দেখতে শুরু করেছেন দর্শকরা। কারণ এই চরিত্রটি এর আগেও লালন এবং ফুলঝুরির উপকার করেছে। সেই সময় চড়ুইকে উচিত শিক্ষা দিয়ে লাল-ফুলের মিল করিয়েছিল অঙ্কুর। স্বভাবে সে একজন প্রতিবাদ চরিত্র। তখন যেমন চড়ুই লালন এবং ফুলঝুরিকে আলাদা করতে চেয়েও অঙ্কুরের কারণে ব্যর্থ হয়েছিল, এবারেও তেমনটাই ঘটবে বলে আশা করছেন দর্শকরা।

এখন যেমন পর্ব চলছে তা থেকে অনুমান করা হচ্ছে খুব শীঘ্রই আবার লালন এবং তিতিরের বিয়ের ট্র্যাক আসবে। প্রথমবার লিপস্টিক পরিয়ে তিতিরকে বিয়ে করেছিল লালন। তবে সেটা বিয়ের পর্যায়ে পড়ে না কারণ সেই সময় লালনের স্মৃতি ফিরিয়ে আনাটাই ছিল সবার লক্ষ্য। এদিকে তিতিরের মা মেয়ের আবার বিয়ে দিতে চান লালনের সঙ্গে। এমনিতে এই সিরিয়ালটিতে বিয়ের পর্ব চলতেই থাকে। তাই আগামী দিনে লালন এবং তিতিরের বিয়ের ট্র্যাক যে খুব তাড়াতাড়িই আসছে তা সহজেই অনুমান করা যায়।

অন্যদিকে আবার অঙ্কুরের আগমনে বিষয়টি আরও নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। অঙ্কুর লালনের আচমকা এই পরিবর্তন দেখে নিজেও বেশ অবাক হয়ে গিয়েছে। সে কেন এমন করছে তা ভেবে পাচ্ছে না অঙ্কুর। লালন এবং ফুলঝুরির মধ্যে প্রেম দেখেই সে নিজে বিয়ে করার শখ ত্যাগ করে লাল-ফুলের মিল করিয়েছিল। মনে মনে ফুলঝুরিকে সে আজও ভালবাসে। ফুলঝুরির কষ্ট তাই সে দেখতে পারে না।

তাই দর্শকরাও আশায় বুক বাঁধছেন, লালন-তিতিরের ফের বিয়ে হতে গেলেই অঙ্কুর নিশ্চয়ই সেটা আটকানোর জন্য কিছু একটা করবে। সেই সঙ্গে হয়তো ঘুরে যাবে গল্পের মোড়। ফুলঝুরিকে ছেড়ে তিতিরের কাছে চলে যাওয়ার জন্য লালন চরিত্রটিকে অপছন্দ করতে শুরু করেছেন দর্শকরা। বেইমান লালনকে উচিত শিক্ষা দেবে অঙ্কুর! স্থির বিশ্বাস রেখেছেন দর্শকরা।