দাঁত কেটে সোজা, ঠোঁট কেটে মোটা, টলিউডের ৫ প্লাস্টিক সুন্দরী বদলে ফেলেছেন নিজেদের রূপ

Avatar

Published on:

নিজের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলার জন্য কী না করেন তারকারা। তবে শুধু স্কিন কেয়ার (Skin Care) নয়, নিজেকে সম্পূর্ণ নতুন রূপে গড়ে তুলতে তারা বদলে ফেলেন নাক, ঠোঁট ও মুখের গঠন। আর এই সব কিছুই করা সম্ভব শুধু মাত্র প্লাস্টিক সার্জারির (Plastic Surgery) মাধ্যমে। হলিউড(Hollywoood), বলিউডের (Bollywood) মতো এখন টলিউডের (Tollywood) জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও প্লাস্টিক সার্জারির মাধ্যমে বদলে ফেলছেন নিজের রূপ। এমনি কিছু অভিনেত্রীর নাম রয়েছে তালিকায়।

Mimi Chakraborty

মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty): টেলিভিশনের পর্দায় প্রথম দেখা গিয়েছিল তাকে। তারপর বহু ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। টলিউডের এই সুন্দরী নিজের ঠোঁট এবং চোয়ালের আদল অনেকটাই বদলে ফেলেছেন। এই সব কিছুই করেছেন প্লাস্টিক সার্জারির মাধ্যমে। তবে এই কথা তিনি স্বীকার করেন না।

Raima Sen

রাইমা সেন (Raima Sen): অভিনেত্রী রাইমা সেন হলেন ‘মহানায়িকা’ সুচিত্রা সেনের নাতনি। লিপ ফিলার্স করানোর খুব ইচ্ছে রয়েছে। অবশ্য তার আগে নিজের দাঁতের আকারে বেশ কিছু পরিবর্তন করে ফেলেছেন। এছাড়াও লেজারের দ্বারা হেয়ার রিমুভ করিয়েছেন।

Nusrat Jahan

নুসরত জাহান (Nusrat Jahan): টলিউড অভিনেত্রীর পাশাপাশি নুসরত জাহান বাংলা রাজনীতির অন্যতম বড় নাম। বহু ব্লকবাস্টার ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় দেখা গিয়েছে তাকে। কিন্তু এখন লক্ষ্য করলে দেখা যাবে নুসরতের ঠোঁট আগের চেয়ে অনেকটাই মোটা হয়ে গিয়েছে। লিপ ফিলার্স
-এর মাধ্যমে নিজের ঠোঁট মোটা করিয়েছেন।

Sayantika Banerjee

সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় (Sayantika Banerjee): নুসরতের মতো সায়ন্তিকাও অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। কিন্তু নিজেকে সুন্দর করে তোলার ইচ্ছা রয়েছে তার। তাই লিপ ফিলার্স করিয়ে নিজের ঠোঁট মোটা করেছেন। এছাড়াও বহু মানুষের ধারণা, তিনি নাকি প্লাস্টিক সার্জারি করে কালো থেকে ফর্সা হয়েছেন।

Subhashree Ganguly

শুভশ্রী গাঙ্গুলী (Subhashree Ganguly): সম্প্রতিকালে টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। তার স্বামী হলেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। তবে তিনিও নিজেকে সুন্দর করে তোলার জন সার্জারি করিয়েছেন। অনেকের ধারণা, তিনি মেলানিন থেরাপির মাধ্যমে নিজের গায়ের রঙও ফর্সা করেছেন এবং লিপ ফিলার্স করিয়ে ঠোঁট মোটা করিয়েছেন।