বন্ধ হয়ে গেল রিমলি, গ্রামের খেটে খাওয়া মানুষের গল্প দেখবেনা দর্শক, কলাকুশলীদের চোখে জল

টিআরপি কমে যাওয়ার কারণে নির্দিষ্ট সময়ের অনেক আগেই শেষ হয়ে যাচ্ছে অ্যাক্রপলিস এন্টারটেইনমেন্টের দুটি ধারাবাহিক। রিমলি (Rimli) এবং ধ্রুবতারা (Dhrubotara), স্টার জলসা (Star Jalsha) এবং জি বাংলার (Zee Bangla) এই দুটি ধারাবাহিক প্রায় একইসঙ্গে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ধ্রুবতারা তবুও ৫০০ পর্বে এসে শেষ হচ্ছে। কিন্তু রিমলির যাত্রা মাত্র ২১৭ পর্বতে গিয়েই থেমে যাচ্ছে। এই নিয়ে গুঞ্জন চলছিল। আর সেই দুঃসংবাদে সীলমোহর দিলেন প্রযোজক স্নিগ্ধা বসু।

গ্রাম বাংলার খেটে খাওয়া মানুষদের গল্প নিয়ে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে রিমলির যাত্রা শুরু হয়েছিল। কিন্তু অতিমারীর পর্যায়ে টেলিভিশনের পর্দাতেও আর বাস্তবের প্রেক্ষাপট দেখতে চাননি দর্শক। তাই তারা এই ধারাবাহিক বয়কট করেছেন। বদলে বেছে নিয়েছেন বউ-এর বর পেটানো ধারাবাহিক! এমনটাই মনে করছেন প্রযোজক। আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে স্নিগ্ধা বসু এই নিয়ে তার মনে জমে থাকা ক্ষোভ উগরে দিলেন।

তিনি বলেন, ‘‘অতিমারি দর্শকের চিন্তাশক্তিতেও থাবা বসিয়েছে। নিজেরাই সমস্যায় জর্জরিত হওয়ায় ছোট পর্দায় আর বাস্তব দেখতে চাইছেন না তাঁরা। তাই শাশুড়ি-বৌমার কূটকচালি আর আজগুবি প্রেমের গল্পই ভাল লাগছে সবার।’’ তিনি আরও বলেন, যুগ বদলাতে দেখার জন্য বউয়ের হাতে বরের মার খাওয়ার দৃশ্য দেখতেও রাজি দর্শক। তবুও তারা নতুন কিছু ভাবতে চান না। টেলিভিশনের এমন সামগ্রিক অবক্ষয় নিয়ে চিন্তিত স্নিগ্ধা বসু।

একই সুর শোনা গিয়েছে রিমলির পরিচালক সৌমেন হালদারের কথাতে। তিনিও মনে করছেন গ্রাম বাংলার খেটে খাওয়া মানুষের দুঃখ-দুর্দশার গল্প দেখতে চাননি দর্শক। তাই ভালো গল্প এবং তাবড় তাবড় অভিনেতা-অভিনেত্রী থাকা সত্বেও পিছিয়ে পড়েছে রিমলি। যদিও রিমলিকে নিয়ে আশাবাদী ছিলেন পরিচালক। তিনি বলেছেন, ‘‘আমার জীবনপঞ্জিতে ‘বকুলকথা’, ‘ফিরকি’র মতোই ‘রিমলি’রও উল্লেখ থাকবে। এর আগে কোনও ধারাবাহিক সমান্তরাল ভাবে গ্রাম এবং শহরকে তুলে ধরেনি।’’

আরও পড়ুন : নুসরাতের থেকেও সুন্দরী যশের প্রাক্তন স্ত্রী, গুণে গুণে দশ গোল দেবে অভিনেত্রীকে

রিমলির পরিচালক জানিয়েছেন, ২২ শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রিমলির শুটিং চলবে। ২৬শে সেপ্টেম্বর টেলিভিশনের পর্দায় রিমলির শেষ সম্প্রচার হবে। নতুন টুইস্ট দিয়ে শেষ হবে ধারাবাহিকটি। যা আগামী বেশ কয়েক বছরের জন্য দর্শকের মনে দাগ কেটে যাবে। ১৯ শে সেপ্টেম্বর ধ্রুবতারার শেষ সম্প্রচার হবে। সেই জায়গায় আসবে অ্যাক্রপলিস এন্টারটেইনমেন্টের নতুন রিয়েলিটি শো।

আরও পড়ুন : ‘মানিকে মাগে হিথে’ গায়িকার এক মাসের আয় লজ্জায় ফেলে দেবে বড় বড় সংস্থার কর্মীদেরও

স্নিগ্ধা বসু জানিয়েছেন, ‘‘স্টার জলসার সঙ্গে কথাই হয়েছিল, ৫০০ পর্বের পরে এই ধারাবাহিক বন্ধ হয়ে যাবে। সেই জায়গায় নিয়ে আসব নতুন রিয়্যালিটি শো। সেটিই হতে চলেছে।’’ ধারাবাহিক বন্ধ হওয়ার খবর মিলতেই শুটিং ফ্লোরে মন খারাপের আবহাওয়া তৈরি হয়েছে।

আরও পড়ুন : বদলে গেল বাংলা সিরিয়ালের সময়সূচী, নির্দিষ্ট সময়ে আর দেখতে পাবেননা পছন্দের ধারাবাহিক