কবে কোন স্লটে আসছে ‘সোহাগ জল’, শ্বেতা-হানির নতুন সিরিয়াল এসে বন্ধ হচ্ছে এই ধারাবাহিক

বন্ধ হয়ে যাচ্ছে জি বাংলার এই সিরিয়াল, বদলে জায়গা নেবে শ্বেতা-হানির সোহাগ জল

sohag jol will rwplace laalkuthi serial on zee bangla

জি বাংলার (Zee Bangla) দর্শকরা দারুণ খুশি। বহুদিন বাদে তারা আবার ফিরে পাচ্ছেন তাদের পছন্দের নায়িকা শ্বেতা ভট্টাচার্যকে (Sweta Bhattacharya)। ‘যমুনা ঢাকি’র পর তিনি এতদিন বড় পর্দার সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। দেবের বিপরীতে ‘প্রজাপতি’ সিনেমাতে অভিনয় করে টলিউডে নিজের খাতা খুলে ফেললেন শ্বেতা। তাই অনেকেরই মনে সন্দেহ দানা বেঁধে ছিল যে হয়তো আর বাংলা সিরিয়ালে ফিরবেন না তিনি।

কিন্তু না, নিন্দুকদের মুখ বন্ধ করে দিয়ে নতুন সিরিয়ালের খবর দিয়ে ভক্তদের আবার স্বস্তি দিলেন শ্বেতা। জি বাংলার আসন্ন নতুন সিরিয়াল ‘সোহাগ জল’ (Sohag Jol) এর হাত ধরে তিনি আবার ফিরে আসছেন বাংলা টেলিভিশনের পর্দায়। তার বিপরীতে থাকছেন বাংলা টেলিভিশনেরই আরেক জনপ্রিয় অভিনেতা হানি বাফনা (Honey Bafna)। ‘গ্রামের রানী বীণাপাণি’র পর হানিও এবার ফিরছেন নতুন অবতারে।

sohag jol new serial on zee bangla

সম্প্রতি চ্যানেলের তরফ থেকে সিরিয়ালের প্রোমো শেয়ার করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে ধারাবাহিকের নায়ক জয়ী এবং শুভ্রর সম্পর্কটা এখন তলানিতে ঠেকেছে। তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়ে যাচ্ছে। তবে বিচ্ছেদের আগে পর্যন্ত শ্বশুরবাড়ির সমস্ত দায়িত্ব হাসিমুখে পালন করছে জয়ী। শ্বশুরের চা থেকে শাশুড়ির পান, ননদের জন্য গরম জল থেকে দেওরের জন্য জলখাবার, সবই হাতের কাছে এনে দিচ্ছে সে।

এমন এক ঘোরতরো সংসারী মেয়েকেও তার শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে চলে যেতে হচ্ছে। তার কারণ প্রোমোতে স্পষ্ট নয়। তবে নায়কের সঙ্গে নায়িকার যে মন কষাকষি রয়েছে তা স্পষ্ট। জলখাবারের থালা নায়কের দিকে এগিয়ে দিতেই নায়িকার উপর রাগ দেখিয়ে কাজের মেয়েকে ধমকে দেয় নায়ক। তারপর নায়িকাকে বলে ওঠে, ‘তুমি অনেক দেরি করে ফেলেছ’।

sohag jol new serial zee bangla

এরপরই দেখা যায় কাপড়-জামা গুছিয়ে ব্যাগ নিয়ে শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে পড়ে নায়িকা। তখন আবার নায়ক এসে পিছু ডাকে নায়িকাকে। বলে ওঠে, “আর কয়েকটা দিন থেকে গেলে হত না?” নায়িকা জবাব দেয়, “আমাদের এমনিতেই অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে।” নতুন ধারাবাহিকের প্রোমো দর্শকদের দারুন পছন্দ হয়েছে। এখন প্রশ্ন হল এই নতুন ধারাবাহিক কোন স্লট পাবে?

আপাতত যতদূর জানা যাচ্ছে, খুব শিগগিরই জি বাংলাতে লালকুঠি ধারাবাহিকের সম্প্রচার বন্ধ হয়ে যাবে। সম্ভবত সেখানেই দেওয়া হবে এই নতুন সিরিয়ালকে। রাহুল অরুনোদয় ব্যানার্জী এবং রুকমা রায়ের কেমিস্ট্রিটা ঠিকমত জমেনি জি বাংলাতে। এই মাত্র ছয় মাসের মাথাতেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে এই সিরিয়ালটি।