শুভশ্রীর সঙ্গে দেবীরূপে মিঠাই-যমুনারা, দেবী দুর্গার নানা রূপে থাকছেন জি বাংলার ১১ নায়িকা

রাত পেরোলেই মহালয়া, শুভশ্রীর সঙ্গে দুর্গার কোন রূপে কাকে দেখবেন, রইল বিস্তারিত

হাতে আর মাত্র কয়েকটা ঘন্টার অপেক্ষা। তারপরেই দেবী পক্ষের সূচনা নিয়ে আসবে মহালয়ার (Mahalaya) ভোর। আশ্বিন মাসের শারদপ্রাতে মনটা এমনিতেই খুশি খুশি থাকে। চারিদিকে কেমন যেন একটা পুজো পুজো গন্ধ। এরই মধ্যে দেবীপক্ষের সূচনা করবে জি বাংলা (Zee Bangla)। তার জন্য জি বাংলার বিশেষ আয়োজন ‘সিংহবাহিনী ত্রিনয়নী’ (Singhabahini Trinoyoni)। মহালয়ার এই অনুষ্ঠানে দেবী দুর্গা হয়েছেন শুভশ্রী গাঙ্গুলী (Subhashree Ganguly)। তার সঙ্গে রয়েছেন বাংলা সিরিয়ালের অন্যান্য নায়িকারাও।

শুভশ্রীর পাশাপাশি দেবী দুর্গার নানা রূপে জি বাংলার বিভিন্ন সিরিয়ালের নায়িকারা থাকছেন মহালয়ার অনুষ্ঠানে। পার্বতী রূপে রয়েছেন ‘যমুনা ঢাকি’ অভিনেত্রী শ্বেতা ভট্টাচার্য। তিনি মহাদেবকে স্বামী হিসেবে পাওয়ার জন্য কঠিন তপস্যা করেন। জগতের কল্যাণে নানা রূপে আবির্ভূতা হন দেবী পার্বতী। মিঠাই ওরফে সৌমিতৃষা রয়েছেন দেবী জয়দুর্গার রূপে। তাকে আরাধনা করলেই সমস্ত অমঙ্গল দূর হয়।

দেবী চণ্ডিকা রূপে ধরা দিয়েছেন পিলুর রঞ্জা ওরফে ইধিকা পাল। শম্ভু-নিশুম্ভকে বধ করার জন্য দেবী দুর্গা চন্ডিকার রূপ নিয়েছিলেন। ‘গৌরী এলো’ ধারাবাহিকের নায়িকা গৌরী অর্থাৎ মোহনা মাইতিও রয়েছেন দেবী দুর্গার এক রূপে। তিনি দেবী গন্ধেশ্বরীর রূপে অভিনয় করেছেন। গন্ধাসুরকে বধ করতে দেবী এই রূপ ধারণ করেছিলেন।

এছাড়াও ‘উড়ন তুবড়ি’র নায়িকা তুবড়ি অর্থাৎ সোহিনী বন্দ্যোপাধ্যায় মহাকালীর রূপে ধরা দিয়েছেন। দেবী কুষ্মান্ডার তেজ থেকে তার সৃষ্টি। অসুরদের সঙ্গে সকল যুদ্ধে তার জয় নিশ্চিত। উমা ধারাবাহিকের নায়িকা শিঞ্জিনী রয়েছেন দেবী কামাখ্যার অবতারে। কামদেবের তপস্যায় সন্তুষ্ট হয়ে তিনি তার রূপ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। এই দেবী ভক্তের সকল ইচ্ছে পূরণ করেন।

জি বাংলার খেলনা বাড়ি ধারাবাহিকের নায়িকা মিতুল অর্থাৎ আরাত্রিকা মাইতিকে আমরা দেখতে পাব মা লক্ষ্মীর অবতারে। তিনি গোটা ব্রহ্মাণ্ডকে প্রতিপালন করেন। পিলুর নায়িকা মেঘা দাঁ রয়েছেন দেবী কুষ্মান্ডার রূপে। তিনি বিশ্বব্রহ্মাণ্ডকে সৃজন করেছেন। তার ত্রিনয়নের জ্যোতি থেকে আবির্ভূতা হয়েছিলেন মহালক্ষ্মী, মহাকালী এবং মহা সরস্বতী।

লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টারের হংসিনী অর্থাৎ শার্লি মোদককে দেখবেন দেবী জগদ্ধাত্রী রূপে। এই সিংহবাহিনী দেবী দেবতাদের দর্প চূর্ণ করে। অনামিকা অর্থা লালকুঠি ধারাবাহিকের নায়িকা ওরফে রূকমা রায়কে দেবী স্কন্দমাতার রূপে পাওয়া যাবে। তিনি তারকা শুনতে বধ করেছিলেন এবং তিনি কার্তিকেয়র জননী। এছাড়া এই অনুষ্ঠানে মহাদেবের ভূমিকায় রয়েছেন যমুনা ঢাকির সম্বিত ওরফে রুবেল দাস।