প্রকাশ্যে এল যশের কুকীর্তি, সংবাদমাধ্যমে মুখ খুললেন যশের প্রাক্তন স্ত্রী

ফাঁস হয়ে গেল যশ দাশগুপ্তর কুকীর্তি, মুখ খুললেন প্রাক্তন স্ত্রী শ্বেতা সিংহ কালহানস

টলিউড (Tollywood) অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের (Nusrat Jahan) সঙ্গে সম্পর্ক, সহবাস, সন্তানের জন্ম থেকে শুরু করে রাজনৈতিক জীবনে অভিষেক, টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের (Yash Dasgupta) জীবন জুড়ে বিতর্ক এমনিতেই কিছু কম নেই। সম্প্রতি আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে সাক্ষাৎকার দিলেন তার প্রাক্তন স্ত্রী শ্বেতা সিং কালহানস (Shweta Singh Kalhans)। যশের বর্তমান জীবন এবং তাদের অতীত দাম্পত্য সম্পর্কে খোলামেলা বয়ান দিলেন শ্বেতা।

টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত যে বিবাহিত, একথা এতদিন হয়তো অনেকেই জানতেন না। বহু বছর আগেই তাদের বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে। সম্পর্ক থাকাকালীন অথবা বিচ্ছেদের পরেও কখনো শ্বেতা লাইমলাইটে আসেননি। বর্তমানে তিনি মুম্বাইয়ের বাসিন্দা। যশের সঙ্গে এখন আর তার তেমন কোনও যোগাযোগ নেই। মুম্বাইয়ের একটি সংবাদ সংস্থায় একজন সংবাদকর্মী হিসেবে নিতান্তই সাধারণ জীবনযাপন করছেন তিনি। তবে যশের বর্তমান জীবন সম্পর্কে খবরা-খবর তার কানেও গিয়ে পৌঁছায়।

Shweta Singh Kalhans

আজ থেকে বেশ কয়েক বছর আগে মুম্বাইতেই গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন শ্বেতা এবং যশ। তাদের ১০ বছরের একটি ছেলেও আছে। যদিও তাদের ছেলে যশের সঙ্গেই থাকে। এই সম্পর্কে শ্বেতার বক্তব্য, “সব মিটিয়ে দিয়েছি। আমার অতীত নিয়ে অনেক দিন থেকেই ভাবনাচিন্তা বন্ধ করে দিয়েছি। অনেক হয়েছে!” তবে তিনি আরও জানিয়েছেন, “যশ আমার ছেলের বাবা। ওর সঙ্গে সেই সূত্র ধরে যেটুকু যোগাযোগ রাখতে হয় রাখি। আমাদের সন্তান পারস্পরিক হেফাজতের অধীনে। ডিভোর্সের সময় আমরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম”।

যশরত বিতর্ক নিয়ে দীর্ঘ কয়েক মাস যাবত উত্তাল হয়ে রয়েছে টলিউড। শ্বেতার বক্তব্য তিনি নুসরাতকে দেখেছেন। তবে চেনেন না। তাই নুসরাত সম্পর্কে কোনও কথা তিনি বলতে চাননি। যশের প্রাক্তন বান্ধবী পুনম ঝা সম্পর্কেও বিশেষ কিছু মন্তব্য করতে চাননি তিনি। তবে তিনি বলেছেন, “যশকে চিনি। ওকে জানি। যশের মেলামেশা করার একটা পদ্ধতি আছে। সেটাও জানি আমি। তবে আমার মনে হয় এ বার সময় হয়েছে! ভবিষ্যতে যশ কীভাবে নিজেকে প্রকাশ করবে, তার সিদ্ধান্ত এ বার ওর নিয়ে নেওয়া উচিত।”

Shweta Singh Kalhans

টলিউডের সঙ্গে ৩ বছরের যোগাযোগ ছিল শ্বেতার। শ্বেতা জানিয়েছেন, সেই সময় যশের সঙ্গে তার বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা চলছিল। তবে মামলা শেষ হতেই তিনি ফিরে যান মুম্বাইতে। এরপর সেখানে একটি সংবাদ সংস্থার কর্মী হিসেবে নিজের নতুন জীবন শুরু করেন। প্রাক্তন স্বামী সম্পর্কে বিন্দুমাত্র ভালোবাসার অনুভূতি কি আদেও রয়েছে তার মনে? প্রশ্নের জবাবে শ্বেতার সাফ জবাব, “ভালবাসা? যশ যে দিন আমাদের পরিবার ছেড়ে চলে গিয়েছিল, সে দিন থেকেই ওর জন্য আমার ভালবাসা উধাও হয়ে গিয়েছে”।

আরও পড়ুন : বিবাহিত হয়েও পরকীয়া! রয়েছে ১০ বছরের সন্তান, বউ পিটিয়ে জেল খেটেছেন যশ

এখন মুম্বাইতে একা একাই বাঁচেন শ্বেতা। এতদিন তিনি কাউকে জানতেও দেননি যে তিনিই যশের প্রাক্তন স্ত্রী। অসুখী দাম্পত্য থেকে বেরোলেও সমস্যা এখনও রয়েছে শ্বেতার জীবনে। নিজের জীবন নিয়ে তিনি বলেন, “সমস্যা কখনও শেষ হয় না। নিজের মতো করে, নিজের ইচ্ছায় জীবন কাটাতে পারছি না। তবে এ সবের মধ্যেও আমার একার জীবন নিয়ে স্বপ্ন দেখি। মনে হয় স্বপ্নে বাঁচি।”

আরও পড়ুন : হয়ে গেল নামকরণ! ঈশান নয়, ছেলেকে এই নামেই ডাকেন নুসরাত ও যশ