নুসরাতের থেকেও সুন্দরী যশের প্রাক্তন স্ত্রী, গুণে গুণে দশ গোল দেবে অভিনেত্রীকে

নুসরাতের চেয়ে কম সুন্দরী নন যশের প্রাক্তন স্ত্রী, আলাপ করুন যশ দাশগুপ্তের প্রাক্তন স্ত্রী শ্বেতা সিং কালহানসের সঙ্গে

বিবাহিতা নুসরাত জাহানের (Nusrat Jahan) সঙ্গে সম্পর্কে জড়ানো থেকে শুরু করে পিতৃ পরিচয়হীন সন্তানের জন্ম দেওয়া, টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্তকে (Yash Dasgupta) নিয়ে বিতর্ক এমনিতেই কিছু কম নেই। তবে জানেন কি টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত কিন্তু তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে এর আগেও বহুবার প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছেন? যদিও বিশেষ উপায়ে এতদিন তিনি তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে বিতর্ক ঢেকেই রেখেছিলেন। তবে বিতর্কের আগুন কি কখনো চাপা থাকে?

সম্প্রতি আনন্দবাজার অনলাইনের কাছে দেওয়া যশ দাশগুপ্তের প্রাক্তন স্ত্রী শ্বেতা সিং কালহানসের (Shweta Singh Kalhans) একটি সাক্ষাৎকার বিতর্কের আগুনে যেন ঘিয়ের কাজ করলো। ৮ বছর আগেকার পুরনো স্মৃতি উসকে দিল তার এই সাক্ষাৎকার। অনেকেই হয়তো জানতেন না যশের জীবনে একসময় শ্বেতার উপস্থিতি ছিল। আর জানবেনই বা কেমন করে? ‌ উইকিপিডিয়াতেও তো যশ নিজেকে অবিবাহিত বলেই পরিচয় দেন।

Shweta Singh Kalhans

শ্বেতা সিং কালহানসের সঙ্গে আজ থেকে প্রায় দশ বছর আগে বিয়ে হয় যশের। তাদের ১০ বছরের এক পুত্র সন্তানও রয়েছে। কিন্তু পুত্রের বয়স যখন মাত্র ২ বছর, তখনই আলাদা হয়ে যান যশ এবং শ্বেতা। যশ এবং শ্বেতার আলাদা হয়ে যাওয়ার রাস্তাটা মোটেও সহজ-সরল ছিল না। সম্পর্কের অবনতিজনিত কারণে তাদের সম্পর্কটা ঠিক এতটাই নিচে নেমে গিয়েছিল যে শ্বেতার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গার্হস্থ্য হিংসা মামলায় জড়িয়ে পড়েছিলেন যশ।

সময়টা ২০১৩। সেই সময় ‘বোঝে না সে বোঝে না’ ধারাবাহিকে চুটিয়ে অভিনয় করছিলেন যশ দাশগুপ্ত। এদিকে স্ত্রীর সঙ্গে তখন তার সম্পর্কটা ঠিক এতটাই জটিল হয়ে উঠেছিল যে শ্বেতা তখন যশের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে পুলিশের দ্বারস্থ হন। তার দাবি ছিল, যশ তাকে মারধর করেছেন। স্ত্রীর এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ৪৯৮ ধারায় দায়ের হওয়া মামলায় জেলেও যেতে হয়েছিল অভিনেতাকে। যদিও সেই সময় ‘বোঝে না সে বোঝে না’র প্রযোজনা সংস্থা ধারাবাহিকের জনপ্রিয়তা কমে যাওয়ার ভয়ে বিষয়টিকে সাত তাড়াতাড়ি ধামাচাপা দিয়ে দেয়।

এরপরে আর এই বিষয়টিকে নিয়ে টু শব্দটিও করতে শোনা যায়নি টলিউডকে। যশের থেকে বিচ্ছেদ নিয়ে তার স্ত্রী শ্বেতা ফিরে যান মুম্বাইয়ে। বর্তমানে তিনি মুম্বাইয়ের একটি সংবাদসংস্থার সংবাদকর্মী হিসেবে কাজ করেন। তাদের ছেলে অবশ্য এই মুহূর্তে যশের সঙ্গেই রয়েছে। বিবাহ-বিচ্ছেদের মামলার সময়েই তারা সিদ্ধান্ত নেন, তাদের সন্তান থাকবে পারস্পরিক হেফাজতের অধীনে।

দূরে থাকলেও যশের জীবনে কি ঘটছে সে সম্পর্কে সব খবরই তার কানে গিয়ে পৌঁছায়। বর্তমানে নুসরাতকে নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছেন যশ। তবে নুসরাতের আগে যশের সহকারী পুনম ঝাঁকে নিয়েও কিছু কম সমালোচনা হয়নি। যশের ম্যানেজার এতদিন তার বাড়িতেই থাকতেন। যশের অভিনয় জীবনে পা রাখা থেকে শুরু করে রাজনৈতিক জীবনে প্রবেশ পর্যন্ত পুনম নেপথ্যে সব দায়িত্ব সামলেছেন। যশও তার অবদান অস্বীকার করেন না। তবে পুনমের সঙ্গে নিজের সম্পর্ককে বিশেষ কোনও নামও দিতে চান না তিনি। নুসরাতের সন্তানের জন্মের পরই নাকি যশের বাড়ি ছেড়ে গিয়েছেন পুনম।

yash dasgupta ex wife sweta singh kalhans

আরও পড়ুন : প্রকাশ্যে এল যশের কুকীর্তি, সংবাদমাধ্যমে মুখ খুললেন যশের প্রাক্তন স্ত্রী

পুনম অথবা নুসরাত, যশের জীবনে একাধিক মহিলার সমাগম নিয়ে বিশেষ কিছুই বলতে চাননি শ্বেতা। আনন্দাবাজার অনলাইনের কাছে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে প্রাক্তন স্বামী সম্পর্কে তিনি বলেন, “যশকে চিনি। ওকে জানি। যশের মেলামেশা করার একটা পদ্ধতি আছে। সেটাও জানি আমি। তবে আমার মনে হয় এ বার সময় হয়েছে! ভবিষ্যতে যশ কীভাবে নিজেকে প্রকাশ করবে, তার সিদ্ধান্ত এ বার ওর নিয়ে নেওয়া উচিত।”

আরও পড়ুন : লাগবে না বাবার পরিচয়, মায়ের পরিচয়ই যথেষ্ট, চরম সিদ্ধান্ত নিলেন নুসরাত