অবশেষে প্রকাশ্যে এল সুশান্তের বাড়িতে যাওয়া সেই রহস্যময়ী মহিলার পরিচয়

সুশান্তের মৃত্যু রহস্যের তদন্তে নিত্যদিন উঠে আসছে নতুন মোড়। সম্প্রতি এই ঘটনার সাথে জড়িত একটি ভিডিও নিয়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ভিডিওটি সুশান্তের মৃত্যুর দিনেরই, অর্থাৎ ১৪ জুনের। যখন সুশান্তের দেহ তার বাড়ি থেকে বার করে আনা হচ্ছিল তখনই একজন মহিলা পুলিশের পাশ কাটিয়ে ভেতরে ঢুকে যান!

মুম্বাই সংবাদমাধ্যম গুলি আগেই এই খবর প্রকাশ করেছিল যে ১৪ জুন সুশান্তের আবাসনে ভিডিও ফুটেজে সাদা নীল চেক কাটা শার্ট এবং লাইট ব্রাউন রঙের ট্রাউজার পড়ে এক মহিলাকে দেখা গিয়েছিল যাকে আবাসনের কেউ চিনতে পারেননি।এর পর থেকেই দানা বাঁধছে রহস্য।

সেইদিন যখন সুশান্তের মৃত্যুর সময় পুলিশের পাশ কাটিয়ে ভেতরে যাওয়ার পর কিছুক্ষন পর বাইরে বেড়িয়ে এসে সুশান্তের বিল্ডিং ম্যানেজারের সাথে তিনি কথা বলেন। বেশ খানিকটা সময় অ্যাম্বুল্যান্সের পাশেও কাটান তিনি।

ভিডিওতে এই মহিলার উপস্থিতি একটি রহস্যের সৃষ্টি করেছিল। কোনওভাবে এই প্রশ্নের উত্তর পাচ্ছিলেন না তদন্তকারীরা। এই বিষয় সুশান্তের পরিবারকে প্রশ্ন করা হলে তারাও কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি। তবে মুম্বাইয়ের কিছু সংবাদ মাধ্যম সূত্র থেকে জানা যাচ্ছে ওই মহিলা নাকি রিয়া চক্রবর্তীর ভাই সৌভিক চক্রবর্তীর প্রেমিকা। তার নাম জামিলা।কিভাবে তাকে চেনা গেল?

তাকে শনাক্ত করতে সাহায্য করেছে রিয়া চক্রবর্তীর ইনস্টাগ্রাম। হ্যা, রিয়া চক্রবর্তীর ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি আছে যেখানে দেখা যাচ্ছে সুশান্ত, রিয়া, রিয়ার ভাই সৌভিক এবং জামিলা বেশ খোশমেজাজে। এই ছবিতে জামিলা যে জুতো পড়ে আছেন তা হুবহু মিলে যাচ্ছে ভিডিওতে দেখা যাওয়া সেই রহস্যময়ী মহিলার জুতোর সাথে।

সুশান্তের মৃত্যুর পর তার ঘরের যে ভিডিও ফুটেজ ফাঁস হয় সেখানে এক ব্যাক্তিকে দেখা গিয়েছিল যিনি কালো টি শার্ট পড়ে এবং কালো ব্যাগ হাতে দাড়িয়ে ছিলেন। সেই ব্যাক্তির সাথেও কথা বলেছেন এই রহস্যময়ী মহিলা।

মৃত্যুর পরে যখন সুশান্তের দেহকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল তখন অ্যাম্বুল্যান্স ছাড়ার আগে পর্যন্ত সেই দেহের আশেপাশেই ছিলেন তিনি, যেন নজর রাখছেন কিছু একটা। এই মহিলা কি সত্যিই জামিলা? আর যদি তাই হয়, তিনি কেন সেদিন ওখানে ছিলেন? এই প্রশ্ন গুলির উত্তর জানার জন্যই এখন তৎপর তদন্তকারীরা।