মার্চের পর ৫, ১০, ১০০ টাকার নোট কী বাতিল হচ্ছে? কী বলছে RBI

বাতিল হতে পারে পুরোনো ১০ টাকার এবং ১০০ টাকার নোট। চলতি বছরের মার্চ মাসের পর থেকে নাকি বাতিল হয়ে যেতে পারে বাজার চলতি ৫ টাকা, ১০ টাকা আর ১০০ টাকার পুরনো নোট! বিগত কয়েকদিন ধরেই দেশের হাজার হাজার মানুষের উদ্বেগ বাড়াচ্ছে এই প্রশ্ন।

তাহলে কি ফের একবার নোটবন্দির (Demonetisation) ভয়াবহ পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে চলেছে গোটা দেশ! কতটা সত্যি এই খবর? এ বিষয়ে ঠিক কী বলছে কেন্দ্রীয় সরকার, কী বলছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক? চলুন দেখে নিন

সোশ্যাল মিডিয়ায় এবং বেশ কিছু সংবাদ মাধ্যমে এই ভুল খবর ছড়িয়ে পড়ার পর সাধারণ মানুষদের মধ্যে নোটাতঙ্ক ছড়াতে শুরু করে। যার পরেই নড়েচড়ে বসে সরকারি প্রেস ইনফোরমেশন ব্যুরো। পরে তারা সেই তথ্য যাচাই করে জানায়, সম্পূর্ণ ভুল খবর ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এই প্রসঙ্গে প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো (PIB) জানিয়েছে, মার্চের পর থেকে ৫, ১০, ১০০ টাকার পুরনো নোট বাতিলের খবরটি সত্যি নয়। কারণ, এমন কোনও পরিকল্পনা কেন্দ্রীয় সরকারের নেই। মার্চের পরেও দেশের আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে সমান ভাবে গুরুত্ব থাকবে ৫, ১০, ১০০ টাকার পুরনো নোটের।

সাধারণ মানুষ, মূলত খুচরো ব্যবসায়ীদের মধ্যে ১০ টাকার কয়েন নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। সেই কয়েন আসল না নকল তাই নিয়েও প্রশ্ন উঠছে যার ফলে বড় ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে।এর আগে ২০১৯ সালে নতুন ১০০ টাকার নোট চালু করেছিল রিসার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া। কিন্তু বাতিল করা হয়নি পুরোনো নোট।

তবে ২০১৬ সালে নোট বন্দির সময় ১০০০ টাকার নোট সম্পূর্ন বাতিল করা হয় এবং তার জায়গায় নতুন ৫০০ এবং ২০০০ টাকার নোট চালু করা হয়। ১০ টাকার ক্ষেত্রে কোন পথে হাঁটবে রিসার্ভ ব্যাংক তা দেখা এখন সময়ের অপেক্ষা।