স্বামীর আয় জানার আইনত অধিকার কী স্ত্রীর আছে, কী বলছে কেন্দ্র

কথায় আছে, মেয়েদের বয়স আর ছেলেদের আয় নাকি কখনো কাউকে জিজ্ঞাসা করতে নেই। এবার প্রশ্ন প্রতি মাসে স্বামী কত টাকা রোজগার করে সেটা জানার অধিকার কী স্ত্রীর আছে? অন্তত আইনের চোখে?

“স্বামীর আয়ের ওপর স্ত্রীর অধিকার” – বিষয়টি বরাবরই বিতর্কিত। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশন (CIC) এই বিষয় একটি গুরুত্বপূর্ন মন্তব্য করেছে। কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশন (CIC) জানায়, স্বামীর আয় জানার সম্পূর্ণ অধিকার আছে স্ত্রীর। সম্প্রতি তথ্য জানার অধিকার বা RTI এর এক আবেদনের উত্তরে এই মন্তব্য করা হয়।

যোধপুরের রহমত বানো তাঁর স্বামীয় আয় সম্পর্কিত তথ্য জানতে চেয়ে আয়কর দফতরে (Income Tax Office) একটি আবেদন জানান।

কিন্তু যেহেতু প্রচলিত সংজ্ঞা অনুযায়ী, আয়কর (Income Tax) দিয়ে থাকেন এমন ব্যক্তির অর্থ সম্পর্কিত তথ্য তৃতীয় ব্যাক্তির কাছে প্রকাশ করা যায়না (বৃহত্তর স্বার্থ জড়িত না থাকলে)। তাই মহিলার আবেদন খারিজ করে দেয় আয়কর দফতর (Income Tax Office)।

এই ঘটনার পরে RTI করেন মহিলা। মহিলার RTI এর উত্তরে তথ্য কমিশন (CIC) জানায়, স্বামীর আয় সম্পর্কিত তথ্য জানার সম্পূর্ণ অধিকার আছে স্ত্রী।

সঙ্গে আরও বলা হয় যে আয়করের (Income Tax) প্রচলিত নিয়মে যে “তৃতীয় পক্ষের” কথা বলা হয়েছে তা স্বামীর আয় সম্পর্কিত তথ্য চেয়ে স্ত্রীর আবেদনের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়।

এর সাথেই যোধপুর আয়কর দফতরকে (Income Tax Office) নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে যেন সেই মহিলাকে তার স্বামীর আয় সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য তুলে দিতে হবে।

এর আগে যুক্তি দেখানো হয়েছিল যে এই জাতীয় কোনরকম তথ্য যা তৃতীয় পক্ষের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত তা RTI এর আওতায় পড়েনা।কিন্তু এই যুক্তিকেও খারিজ করে দেয় তথ্য কমিশন (CIC)।

স্বামীর সঙ্গে ডিভোর্স-এর পর খোরপোশের প্রশ্ন উঠতেই স্বামীর প্রকৃত আয় কত আর তিনি কত টাকা পাবেন এই নিয়ে খোঁজ করতেই তথ্য তালাশ শুরু করেন তিনি। সেই সূত্রেই ‘তথ্য জানার অধিকার আইনে’ আয়কর বিভাগের কাছে স্বামীর আয়কর সংক্রান্ত নথি চেয়ে আবেদন জানান।

কিন্তু আয়কর বিভাগ সেই নথি তাঁকে দিতে অস্বীকার করে জানিয়ে দেয়, তথ্য জানার অধিকার আইনের (৮/১/জে) ধারা অনুযায়ী কোনও ব্যক্তির আয়কর সংক্রান্ত তথ্য ‘এক্সেমপ্টেড ইনফরমেশন’ এর পর্যায়ে পড়ে। দ্বিতীয় কোন ব্যক্তিকে সেই তথ্য দেওয়া যায় না। এরপর সরাসরি কেন্দ্রীয় তথ্য কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ওই মহিলা।