কেন ভেঙে গেল দেব-শুভশ্রীর প্রেম, ভাঙা প্রেম নিয়ে মুখ খুললেন শুভশ্রী

কেন ভেঙেছিল দেব-শুভশ্রীর সম্পর্ক, জানালেন অভিনেত্রী

টলিউডের (Tollywood) তারকা জুটিদের মধ্যে দেব (Dev) এবং শুভশ্রীর (Subhashree Ganguly) জুটি দর্শকরা আজও ভুলতে পারেননি। বেশ কয়েক বছর আগে পর্যন্ত একের পর এক ছবিতে অভিনয় করেছেন তারা। দেব-শুভশ্রী অভিনীত সবকটি ছবিই হত সুপার হিট। এখন আর তারা একসঙ্গে অভিনয় করেন না। দেব ও শুভশ্রী আলাদা আলাদাভাবে অভিনয় করে চলেছেন এখনও। পর্দাতে তাদের কেমিস্ট্রিটা তাই মিস করেন দর্শকরা।

পর্দাতে তাদের মাখোমাখোর রসায়ন দেখে দর্শকরা বাস্তবেও তাদের সম্পর্কের মধ্যে ঘনিষ্ঠতার আভাস পেতেন সেই সময়। ইন্ডাস্ট্রিতে গুঞ্জন, সত্যি সত্যিই নাকি একে অপরের প্রেমে পড়েছিলেন দেব এবং শুভশ্রী। তবে কখনও তা মুখে স্বীকার করেননি তারা। তারা তাদের এই সম্পর্ককে নাম দিয়েছিলেন বন্ধুত্ব।

কিন্তু বন্ধুত্বের বাইরেও দেব-শুভশ্রীর মধ্যে নতুন কোনও সম্পর্ক তৈরি হলে বরং খুশিই হতেন ভক্তরা। কিন্তু বিধি বাম। একটা সময় পর এই বন্ধুত্বের সম্পর্কটাও ভেঙে গেল। আর কখনও একে অন্যের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করলেন না দেব কিংবা শুভশ্রী। হঠাৎ কেন তাদের সম্পর্কের এই ছন্দপতন? কেনই বা আলাদা হয়ে গেলেন দুজনে? কেন ভেঙেছিল দেব-শুভশ্রীর সম্পর্ক?

দেব-শুভশ্রী দুজনেই তাদের সম্পর্কে এই অধঃপতন নিয়ে বরাবর মুখে কুলুপ এঁটেছেন। তবে একটি টক শোতে এসে এই নিয়ে মুখ খুলেছিলেন শুভশ্রী। তিনি বলেন, “আমার জীবনের এমন একটা পর্যায় এসেছিল যখন কাজ থেকে আমার ফোকাসটা একদম শিফট করে গিয়েছিল এবং সেটা কিন্তু আমার ডিসিশন ছিল। আফটার ‘পরাণ যায়…’ আমি কাজটা ছেড়ে দিয়েছিলাম।’’

তিনি আরও বলেন, “যেটার জন্য ডিসিশনটা নিয়েছিলাম সেই জিনিসটা যখন থাকলো না জীবনে তখন আমি বুঝতে পারলাম জীবনটা খুব অনিশ্চিত। কিন্তু আমি আফসোস করি না যে কেন আমি আমার চারটে বছর নষ্ট করেছি! আমি আমার বাবা-মার সাথে সব কথা শেয়ার করতে পারতাম না, আমি আমার খুশিটাই আমার বাবা-মার সাথে শেয়ার করতে চাই। ডেফিনেটলি ওরা বুঝতে পারতো”।

শুভশ্রী তার কথার মাঝে কোথাও দেবের নাম নেননি। তবে তার কথা শুনে কারও বুঝতে বাকি ছিল না তিনি কাকে উদ্দেশ্য করে কথাগুলো বলছেন। শুভশ্রী এও বলেছেন সেই সময় তিনি অবসাদের জেরে বাথরুমে গিয়ে লুকিয়ে কাঁদতেন। ব্রেকআপের সময় সেই মানুষটিকে তিনি কী বলেছিলেন? অভিনেত্রী বলেছেন, “যেই সময় আমি জিরো হয়ে গিয়েছিলাম সেই সময় আমি ওই মানুষটিকে বলেছিলাম, দ্যাখো আমার জীবনে কিন্তু ইনসিকিউরিটি নেই। কারণ আমার হারানোর কিছু নেই। আমার কিছুই নেই। আর ভগবানের আর্শীবাদে আমরা কেরিয়ার তারপর থেকেই নতুন মোড় নেয়…”।