কোন নেটওয়ার্ক দিচ্ছে সবথেকে বেশি সুবিধা? দেখে নিন প্ল্যান

জিও ভারতে পা ফেলার পর থেকেই পিছিয়ে পড়েছেন এয়ারটেল,ভোডফোনের মতো সংস্থাগুলি। জিও একের পর এক নতুন চমক এনেছেন বাজারে ফলে এয়ারটেল,ভোডফোনের গ্রাহক সংখ্যা কমে গিয়েছে অনেকটাই। নিজেদের অস্ত্বিত্ব বজায় রাখতে অন্যান্য টেলিকম সংস্থাগুলি মিয়ে আসেন একের পর এক অফার। কোটি কোটি টাকার দেনা চাপে এয়ারটেল,ভোডফোনের মাথায়। স্পেকট্রাম ও লাইসেন্স সংক্রান্ত সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে মাথায় হাত পড়ে এয়ারটেল,ভোডফোনের মতো টেলিকম সংস্থাগুলির। টিকে থাকার লড়াইয়ে হাত মেলাতে হয়েছে সরকারের সাথে। বাদ যায়নি জিও। বিপুল হারে রিচার্জ খরচ বাড়ায় টেলিকম সংস্থাগুলি। কোনো টেলিকম সংস্থা যে একটুও জায়গা ছাড়বেন না একেবারেই স্পষ্ট।

ডিসেম্বর মাসের শুরুতেই ভারতের টেলিকম সংস্থাগুলির নিজেদের ট্যারিফ রেট বাড়াতে শুরু করে। তারা ট্যারিফ রেট বাড়ায় সংস্থা অনুযায়ী প্রায় ৩৯ থেকে ৪২ শতাংশ পর্যন্ত। কিন্তু বিএসএনএল কোন রকম ট্যারিফ রেট বাড়ায়নি। এ নিয়ে গত ৪ই ডিসেম্বর তারা ট্যুইটারে একটি পোস্ট করে। আবার গত ৮ তারিখ তারা তাদের ট্যুইটার হ্যান্ডেলে জানায়, বিএসএনএলে আসুন, কেন অন্য নেটওয়ার্ক সংস্থা থেকে বিএসএনএলে আসবেন।

 

বিএসএনএল-এর যে প্ল্যানটি মাত্র ১৫৩ টাকায় গ্রাহকদের দিচ্ছে, সেই প্ল্যানটি জিও গ্রাহকরা পান ১৯৯ টাকায়, এয়ারটেল ও ভোডাফোনের আইডিয়া গ্রাহকরা পান যথাক্রমে ২৪৮ ও ২৪৯ টাকায়।

বিএসএনএল যে প্ল্যানটি গ্রাহকদের মাত্র ১৭১ টাকায় দিচ্ছে সেই একই প্ল্যান নিতে জিও গ্রাহক দিতে হয় ২৪৯ টাকা, এয়ারটেল ও ভোডাফোনের গ্রাহকদের যথাক্রমে ২৯৮ ও ২৯৯ টাকা।

আরও পড়ুন :- 

১০০০ মিনিট নয়,Vodafone-এ যে কোন নেটওয়ার্কে কল করুন যতখুশি

লাগবে না ৬ পয়সা, Airtel-এ যে কোন নেটওয়ার্কে কল করুন যতখুশি

বিএসএনএলের যে প্ল্যানের জন্য গ্রাহকদের খরচ হয় মাত্র ১৮৬ টাকা, সেই একই প্ল্যান জিও গ্রাহকদের চালাতে হলে খরচ হয় ৩৪৯ টাকা। এয়ারটেল ও ভোডাফোনের গ্রাহকদের খরচ হয় যথাক্রমে ৩৯৮ ও ৩৯৯ টাকা।

টেলিকম সংস্থাগুলি দাম বৃদ্ধি করায় বেশ খানিকটা অস্বস্তিতে গ্রাহকরা।তবে পরিষেবার দাম বাড়লেও যে গ্রাহক সেই দামেই পরিষেবা গ্রহন করবে তা নিশ্চিতভাবে বলা যায়।