দাঁড়াতে হবেনা লাইনে, এইভাবে বুকিং করলে বাড়িতে মদ পৌঁছাবে রাজ্য সরকার

লকডাউন এর মাঝেই গত সোমবার থেকে দেশের বেশ কয়েকটি জায়গায় খোলা হয়েছে মদের দোকান। এরপরই মদের দোকানের সামনে পড়ে যায় লম্বা লাইন। করোনা ভীতিকে উপেক্ষা করে মদের চাহিদার চিত্র অবাক করেছে অনেককে। কোথাও কোথাও জুতো, ব্যাগ, বোতল দিয়ে লাইন রাখতেও দেখা যায়। মদের এই চাহিদা দেখে অর্থনীতি চাঙ্গা করতে উঠে পড়ে লেগেছে দিল্লি ও পশ্চিমবঙ্গ।

দিল্লি সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মদের উপর বসাবেন বিশেষ কর, “বিশেষ করোনা ফি”। এবার থেকে মদ কিনতে গেলে দামের উপর ৭০ শতাংশ কর দিতে হবে। অর্থাৎ এবার থেকে যদি একটি মদের বোতলের দাম ১০০০ টাকা হয় তাহলে বিশেষ কর যোগ করে এখন সেই মদের বোতলের জন্য এখন দাম দিতে হবে ১৭০০ টাকা।

পিছিয়ে নেই পশ্চিমবঙ্গ সরকারও। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে, ওয়েস্টবেঙ্গল স্টেট বেভারেজ কর্পোরেশনের পোর্টালে গিয়ে গ্রাহকেরা Online-এ মদ কিনতে পারবেন। অ্যাপলিকেশনটি প্রাথমিক ভাবে খুচরো বিক্রয়কারীদের জন্য খোলা হলেও সাত দিনের মধ্যে সাধারণ গ্রাহকও এই সুবিধা নিতে পারবেন বলে সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে। প্রশাসনের মতে এই অনলাইনে মদ বিক্রির মাধ্যমে মানুষকে কষ্ট করে লাইনে এসে দাঁড়াতে হবে না, ফলে ভিড় অনেকটাই কমবে ও সামাজিক দূরত্বের বিষয়টিও সঠিকভাবে মানা সম্ভব হবে।

এদিকে একদিনে মদ বিক্রি করে পশ্চিমবঙ্গ ৫ কোটি টাকা উপার্জন করেছে। জলপাইগুড়িতে দুদিনে ১ কোটি ৭০ লক্ষ টাকার মদ বিক্রি হয়েছে। বীরভূমে বিক্রি হয়েছে ৮৮ লক্ষ টাকার মদ। মালদহে ৫০ লক্ষ টাকার মদ বিক্রি হয়েছে। করোনা সংক্রমনে যেখানে রাজ্যের অর্থনীতি থমকে গিয়েছিল সেখানে স্বাভাবিক ভাবেই মদ বিক্রি করে অর্থনীতি চাঙ্গা করার পথে হাঁটতে চলেছে রাজ্য সরকার।

কীভাবে Online-এ মদের বুকিং করবেন?

প্রথমত লগইন করুন excise.wb.gov.in। এবার ‘e-Retail’ অপশনে ক্লিক করে নিজেকে রেজিস্টার করুন। এরপর চলে আসুন হোম পেজে। এবার রেজিস্টার্ড থাকা মোবাইল নম্বর ও ক্যাপচা কোড দিয়ে ওটিপির মাধ্যমে লগইন করুন। রেজিস্টার করা না থাকলে ‘Sign Up for Registering as Buyer’ অপশনে ক্লিক করে আগে রেজিস্টার করুন।

এবার ‘APPLY NOW’ অপশনে ক্লিক করে নিজের মোবাইল নম্বর লিখে ‘Request for OTP’ তে ক্লিক করতে হবে। দেখবেন আপনার দেওয়া মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি চলে এসেছে। মোবাইলে আসা সেই ওটিপি নির্দিষ্ট জায়গায় দিয়ে Submit করুন। পরবর্তী পর্যায়ে চাওয়া হবে ক্রেতার নাম, ক্রেতার লিঙ্গ, জন্মতারিখ, অন্য কোন নম্বর, ইমেল আইডি। এগুলি ঠিকঠাক দেওয়ার পর Submit করে চলে যান পরবর্তী পর্যায়ে।

যেখানে দিতে হবে আপনার ডেলিভারির ঠিকানা। বেছে নিতে হবে জেলা, পুলিশ স্টেশন, সম্পূর্ণ ঠিকানা, পিন কোড, তারপর নির্ণয় করতে হবে আপনার লোকেশন। যা করার জন্য আপনাকে ‘Get Location’ অপশনে ক্লিক করতে হবে।সেখানে ক্লিক করলেই আপনার জিপিএসের সম্মতি চাওয়া হবে। সম্মতি দিলেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার লোকেশন নির্ণয় হয়ে যাবে।

এরপর আপনাকে বেছে নিতে হবে ‘Next’ অপশন। চলে যাবেন একেবারে শেষ পর্যায়ে। এখানে সবকিছু খতিয়ে দেখার পর ‘Submit Application’ অপশনে ক্লিক করুন। এরপর ‘OK’ বটনে ক্লিক করলেই আপনার নাম নথিভুক্ত হয়ে গেল। অর্ডার করার জন্য আবার আপনাকে ‘e-Retail’ লগইন পেজে যেতে হবে।সেখানে আপনার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বর দিয়ে ওটিপি মাধ্যমে লগইন করে আপনার পছন্দের মত অর্ডার করতে পারবেন।