কাল থেকে এই ৯টি জেলায় চলবে ৭ দিনের কড়া লকডাউন

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন ''আগামী ৭দিন আপাতত কড়া নজর চলবে। পরিস্থিতি বুঝে ৭ দিন পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে''।

রাজ্যজুড়ে উত্তরোত্তর করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি রাজ্য সরকার তথা রাজ্যের বাসিন্দাদের কপালে ভাঁজ পড়তে শুরু করেছে। আর এই সংক্রমণ বৃদ্ধির দাওয়াই হিসেবে রাজ্য সরকার মঙ্গলবার সিদ্ধান্ত নেয় কন্টেনমেন্ট ও বাফার জোনে ফের কড়া লকডাউন করার বিষয়ে। কড়া লকডাউনের বিষয়ে ইতিমধ্যেই একটি নির্দেশিকা জারি করা হয় অতিরিক্ত স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফ থেকে।

যে নির্দেশিকা রাজ্যের প্রতিটি জেলার প্রশাসনিক কর্তাদের পাঠানো হয়। নির্দেশিকা অনুযায়ী আগামীকাল অর্থাৎ ৯ই জুলাই বিকাল ৫ টার পর থেকে রাজ্যের বেশ কিছু জেলার কন্টেনমেন্ট ও বাফার জোনে ফের কড়া লকডাউন জারি হতে চলেছে। আর এই লকডাউন কতদিন চলবে তা সম্পর্কে কোনরকম সুস্পষ্ট বার্তা দেওয়া হয়নি নির্দেশিকায়।

গত কয়েক দিনের পরিসংখ্যান দেখলে দেখা যাবে রাজ্যে গত চার দিন ধরে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে প্রতিদিন ৮০০-র বেশি সংখ্যায়। আর এই সংক্রমণ দেখতে দেখতে বর্তমানে পৌঁছে গেছে ২২৯৮৭ এ। ২৯ শে জুন থেকে ৭ই জুলাই পর্যন্ত রাজ্যে রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৭ হাজার ২৪৩ জন।

পাশাপাশি এই দিন কয়েকে সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যা কমে যাওয়ায় অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যাও বেড়েছে। বর্তমানে রাজ্যে মোট অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা হল ৬ হাজার ৯৭৩। এমত অবস্থায় কোনরকম ওষুধ অথবা প্রতিষেধক না থাকায় লকডাউন জারি করাকেই একমাত্র উপায় বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে, আগামীকাল থেকে ফের লকডাউন জারি হতে চলেছে রাজ্যের ৯টি জেলায়। এই ৯টি জেলার মধ্যে দক্ষিণবঙ্গের রয়েছে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা। অন্যদিকে উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির মধ্যে রয়েছে দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, উত্তর দিনাজপুর ও মালদা। এই জেলাগুলিতেই পুনরায় কড়া লকডাউন জারি হতে চলেছে। তবে এই কড়া লকডাউন জেলার সর্বত্র জারি হবে না বলেও জানা গিয়েছে। জেলার যে সকল জায়গাগুলি কনটেনমেন্ট ও বাফার জোনের অন্তর্ভুক্ত সেই সকল জায়গাগুলিতে জারি হবে কড়া লকডাউন।  বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টা থেকে আগামী ৭ দিনের জন্য় কনটেনমেন্ট জোনে কঠোর লকডাউন জারি করা হচ্ছে।

কলকাতায় কমটেনমেন্ট ও বাফার জোনের সংখ্যা ১৪৬টি। উত্তর ২৪ পরগনায় সংখ্যাটা হলো ২১৯ ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় এই সংখ্যাটা ১৫৫। হাওড়ায় কমটেনমেন্টও বাফার জোন রয়েছে ২৭টি। কলকাতায়, ভবানীপুর, ফুলবাগান, কাঁকরগাছি, বেলেঘাটা, উল্টোডাঙা, হাডকো, আলিপুর, বিজয়গড়, যাদবপুর, নিউ আলিপুর, কসবা, মুকুন্দপুর ও অজয়নগর কনটেনমেন্ট ও বাফার জোনের অন্তর্ভুক্ত।

Meeting with doctors at Nabanna Sabhaghar | নবান্ন সভাঘরে চিকিৎসকদের সঙ্গে বৈঠক

Meeting with doctors at Nabanna Sabhaghar | নবান্ন সভাঘরে চিকিৎসকদের সঙ্গে বৈঠক

Posted by Mamata Banerjee on Wednesday, July 8, 2020

উত্তর ২৪ পরগনার মধ্যে বিধাননগরের ১৭টি ওয়ার্ড, ব্যাপরাকপুর শিল্পাঞ্চলের বিস্তীর্ণ এলাকা কমটেনমেন্ট জোন বলে চিহ্নিত করা হয়ছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর, রাজপুর-সোনারপুর, বজবজ, ঠাকুরপুকুর, পুজালি ও মহেশতলা কমটেনমেন্ট জোন বলে চিহ্নিত হয়েছে। হাওড়ার পুরসভার ২৫টি ওয়ার্ড কমটেনমেন্ট জোন বলে চিহ্নিত হয়েছে। মালদার সদর, ইংরেজ বাজার, পুাতন মালদা চিহ্নিত হয়ে কড়া লকডাউন জারি হতে চলেছে।

আরও পড়ুন :- রাজ্যে ফের কড়া লকডাউন, কি কি বন্ধ থাকছে দেখে নিন

আগামী ৯ই তারিখ বিকাল ৫টার পর থেকে এই সকল এলাকায় অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা ছাড়া সমস্ত কিছু বন্ধ থাকবে। বন্ধ থাকবে সরকারি ও বেসরকারি অফিস, শিল্প প্রতিষ্ঠান, যাবতীয় দোকানপত্র অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবা ছাড়া, বন্ধ থাকবে সমস্ত রকম গণপরিবহন, বাড়ি বের হওয়ার ক্ষেত্রেও থাকছে নিষেধাজ্ঞা, এছাড়াও বেশ কিছু জায়গায় কেবলমাত্র সকাল ১১টা পর্যন্ত সবজির দোকান খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।