টানা ৪ দিন রাজ্যের কোন জেলায় কতটা বৃষ্টি হবে দেখে নিন

হাওয়া অফিসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই নিম্নচাপের প্রভাবে উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, কালিম্পং, মালদহ, দুই দিনাজপুরে রবিবার থেকে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। সোমবার থেকে এই সকল জেলাগুলিতে বৃষ্টি বাড়বে বলে পূর্বাভাস রয়েছে।

সোমবার দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, কালিম্পং, বীরভূম, পূর্ব-পশ্চিম বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, পুরুলিয়ায়। বাকি জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা।

ওইসব জেলায় কমলা সতর্কতা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি, বীরভূম, দুই বর্ধমান ও মুর্শিদাবাদে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে হাওয়া অফিস। মঙ্গলবারও ওই দুই জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

 

মঙ্গলবার অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ার ও কালিম্পংয়ে। এছাড়াও ভারী বৃষ্টি সম্ভাবনা রয়েছে মালদা ও দুই দিনাজপুরে। বুধ ও বৃহস্পতিবারও বৃষ্টির কথা জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। বৃষ্টি হবে মূলত উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়।

হাওয়া অফিস থেকে জানা গিয়েছে, সোম ও মঙ্গলবার এই নিম্নচাপ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের ওপর অবস্থান করবে। এর প্রভাবে সোমবার দক্ষিণবঙ্গে ও মঙ্গলবার উত্তরবঙ্গে ভারী বর্ষণের কমলা সর্তকতা জারি হয়েছে।

 

হাওয়া অফিসের তরফ থেকে সর্তকতা জারি মৎস্যজীবীদের বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। পাশাপাশি এই নিম্নচাপের পরিস্থিতিতে বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার জন্য বিদ্যুৎ দপ্তরের কর্মীদের আগাম সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

সম্ভাব্য বিদ্যুৎ সরবরাহে বিঘ্নের জন্য গ্রাহকদের থেকে আগাম ক্ষমা চেয়ে নিয়েছে সিইএসসি। পাশাপাশি একটি হেল্পলাইন নম্বরও দেওয়া হয়েছে। নম্বরটি হল ১৯১২। বিদ্যুৎ সরবরাহ সংক্রান্ত যে কোনও সমস্যা হলে সহায়তার জন্য এই নম্বরে ফোন করা যাবে বলে জানিয়েছে তারা।