রূপে-গুণে লক্ষী বউমা ঐশ্বর্য,৩০ জনকে খাইয়ে তবেই খেতে বসেন! প্রশংসায় পঞ্চমুখ বিশাল

Aishwarya Rai Bishal Dadlani image

বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বর্য রাই (Aishwarya Rai Bachchan), বচ্চন পরিবারের পুত্রবধূ। বিলাসবহুল জীবনযাত্রায় অভ্যস্ত হলেও একেবারেই মাটির মানুষ তিনি। রূপে-গুণে বলিউডে তার সমকক্ষ কেউ নন। অতিথির আপ্যায়নেও তিনিই সেরা। সম্প্রতি ঐশ্বর্য সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে সুরকার বিশাল দাদলানি বচ্চন পরিবারের পুত্রবধূর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন।

সদ্য আসন্ন ছবি ‘বব বিশ্বাস’ (Bob Biswas) এর প্রমোশনের জন্য জিটিভির ‘সারেগামাপা’তে (Sa Re Ga Ma Pa) অংশ নিয়েছিলেন অভিষেক বচ্চন (Abhishek Bachchan)। ছবি মুক্তির আগে প্রচারের জন্য অভিষেক বচ্চন এবং চিত্রাঙ্গদা সিং এসে উপস্থিত হয়েছিলেন রিয়েলিটি শো এর মঞ্চে। সেখানে সঞ্চালক আদিত্য নারায়ণ অভিষেককে প্রশ্ন করেন তার বিশ্ব সুন্দরী স্ত্রী ঘরের কাজ আদেও পারেন কি?

অভিষেক কিছু বলার আগেই মুখ খুললেন বিচারক বিশাল দাদলানি (Vishal Dadlani)। তিনি নিজের মুখে ঐশ্বর্যের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন। বিশাল জানালেন তার একটি অভিজ্ঞতার কথা। বিচারকের কথায়, “একবার আমরা টেক্সট ট্যুরে গিয়েছিলাম। মোট ৩০ জন ছিল সেই ট্যুরে। সকলের ইচ্ছা ছিল মিস্টার বচ্চন সাহেবের সাথে ডিনার করার। সবার আবদার পূরণ করে ডিনারের আয়োজন করা হয়। সাধারণত ডিনার সার্ভ করার জন্য অনেক চাকর বাকর থাকে কিন্তু ৩০ জন অতিথিদেরকেই নিজের হাতে খাবার পরিবেশন করে খাওয়ানোর অনুরোধ করেন ঐশ্বর্য নিজে”।

ঐশ্বর্যের আতিথেয়তায় মুগ্ধ হয়ে গিয়েছিলেন বিশাল। তিনি আরও বললেন, “ঐশ্বর্য এটা না করলেও পারত। কারণ অনেকেই হয়তো ভাববেন পাবলিসিটির জন্য করেছে, কিন্তু সেখানে কোনো ক্যামেরায় ছিল না যে পাবলিসিটি হবে। তবুও নিজেই সবাইকে খাবার পরিবেশন করেছে। আর সবাইকে খাওয়ানোর পর নিজে খেতে বসেছিল। আমরা সেদিন নিজেদের ভাগ্যবান মনে করেছিলাম ঐশ্বর্যের হাতের পরিবেশ করা খাবার খেয়ে”।

সারেগামাপার মঞ্চে এসে স্ত্রীর প্রশংসা শুনলেন অভিষেক। তিনি নিজেও বিশালের কথা অক্ষরে অক্ষরে মেনে নিলেন। সাফল্যের শিখরে থাকলেও মাটির সঙ্গে তার সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়নি। ভারতীয় সংস্কৃতি সর্বদা মেনে চলেন বচ্চন পরিবারের পুত্রবধূ। শ্বশুর-শাশুড়ির প্রতিও তিনি শ্রদ্ধাশীল। বড় কোনও কাজের আগে শ্বশুর-শাশুড়ির সামনে মাথা নত করে পায়ে হাত ছুঁইয়ে প্রণাম করতেও ভোলেন না বিশ্বসুন্দরী। আজ তার চরিত্রের আরেক বিশেষ দিকের কথা জেনে তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন নেটিজেনরাও।