ফাঁস হয়ে গেল বিরাট-অনুষ্কার বেডরুমের ভিডিও, রেগে আগুন অনুষ্কা দিলেন কড়া জবাব

ভাইরাল হয়ে গেল বিরাট-অনুষ্কার বেডরুম ভিডিও, অপরাধীকে ধুয়ে দিলেন অনুষ্কা

প্রিয় তারকাদের জীবনযাত্রা সম্পর্কে জানার আগ্রহ কার না থাকে? তবে কখনও কখনও ভক্তরা পছন্দের তারকাদের স্টক করতে করতে এমন এমন কিছু কান্ড ঘটিয়ে ফেলেন যে তাতে বেশ বিব্রত হয়ে পড়েন তারকারা। যেমনটা ঘটল বিরাট কোহলি (Virat Kohli) এবং অনুষ্কা শর্মার (Anushka Sharma) সঙ্গে। সম্প্রতি এক কোহলি ভক্ত শালীনতার সীমা ছাড়িয়ে রীতিমত অপরাধ করে বসলেন। এতে বিরাট এবং অনুষ্কা দুজনেই দারুণ ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

ঘটনাটা ঠিক কী ঘটেছিল? অস্ট্রেলিয়া টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলার জন্য কোহলি আপাতত দেশের বাইরে রয়েছেন। কোহলি যে হোটেলে উঠেছেন সেখানে পৌঁছে যান তার এক ভক্ত। তিনি শুধু হোটেলে পৌঁছেই ক্ষান্ত থাকেননি, রীতিমত বিরাটের ঘরে ঢুকে সেখানকার ভিডিও রেকর্ড করেছেন তিনি। তারপর সেই ভিডিও সোজা সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে দেন ওই ব্যক্তি।

Virat Kohli s Family

বিরাটের হোটেল রুমের এই ভিডিও তার অনুমতি ব্যতীত তোলা হয়েছে এবং সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট হয়েছে। বিষয়টিকে মোটেই স্বাভাবিকভাবে মেনে নিতে পারছেন না কোহলি দম্পতি। ইনস্টাগ্রামে বিরাট নিজে এই হোটেল রুমের ভিডিওটি পোস্ট করেন। রীতিমতো রেগে গিয়ে তিনি ওই ব্যক্তিকে পাল্টা আক্রমণও করেছেন। প্রশ্ন তুলেছেন তার ব্যক্তি স্বাধীনতা নিয়ে। অন্যদিকে ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছেন অনুষ্কাও।

ইনস্টাগ্রামে এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে অনুষ্কা লিখেছেন, “বেশ কিছু ঘটনার সম্মুখীন হয়েছি যেখানে ফ্যানেরা কোনওরকমের সহমর্মিতা এবং রুচিবোধ দেখাননি, কিন্তু এটা সবচেয়ে নিকৃষ্টতম। এটা বেইজ্জতি এবং সরাসরি মানবাধিকারের লঙ্ঘন। যারা এই ভিডিয়ো দেখে ভাববেন ‘সেলিব্রিটি হলে এইসব তো সহ্য করতেই হবে’ তারা জানবেন আপনারাও এই সমস্যার মূলে রয়েছেন। নিজেদের মধ্যে আত্মসংযম থাকাটা খুব জরুরি। আর ভাবুন তো যদি এটা আপনাদের বেডরুমে ঘটত? তাহলে চুপ থাকতেন?”

এদিকে সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রশ্ন উঠছে ওই ব্যক্তি কীভাবে কড়া নিরাপত্তা এড়িয়ে বিরাটের ঘর পর্যন্ত পৌঁছাতে পারলেন? বিরাট এই ব্যাপারে ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, “আমি বুঝতে পারছি যে ভক্তরা তাঁদের প্রিয় খেলোয়াড়কে দেখে খুব খুশি হয়। তাঁর সঙ্গে দেখা করার জন্য উত্তেজিত থাকেন এবং আমি সব সময়ে এটির প্রশংসা করে থাকি। কিন্তু এখানে এই ভিডিয়োটি বিপজ্জনক। এটা আমার গোপনীয় ভঙ্গ করেছে। যাতে আমি অস্বস্তি এবং বিষয়টি আমার মোটেও ভাল লাগেনি।”

এই বিষয়ে তিনি আরও লেখেন, “আমি যদি আমার হোটেলের রুমে গোপনীয়তা বজায় রাখতে না পারি, তা হলে আমি ব্যক্তিগত জায়গা কোথায় আশা করতে পারি? আমি এই ধরনের সম্পূর্ণ ভাবে গোপনীয়তা লঙ্ঘনের সঙ্গে একমত নই। দয়া করে লোকেদের গোপনীয়তাকে সম্মান করুন এবং তাদের বিনোদনের বস্তু হিসেবে বিবেচনা করবেন না।”

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Virat Kohli (@virat.kohli)