মা-ঠাকুমার স্টাইলে ফুলকপি রাঁধুন এইভাবে, খেলে আঙুল চাটবেন কথা দিলাম

ফুলকপির একটি হারিয়ে যাওয়া রান্না, খেলে স্বাদ মুখে লেগে থাকবে এক মাস

শীতকাল মানেই বাজার ভর্তি শাকসবজির মেলা। ফুলকপি, বাঁধাকপি, গাজর, কড়াইশুঁটি, ক্যাপসিকাম, বিনস কি পাওয়া যায় না এই সময়! তবে আমাদের অনেকেরই যেটি সবথেকে পছন্দের সবজি সেটি হলো ফুলকপি। ফুলকপির রোস্ট অথবা আলু ফুলকপি ভাজা খেতে ভীষণ ভালোবাসি আমরা। শীতকালে ফুলকপির যেন আলাদাই স্বাদ বেড়ে যায়। আজ এই প্রতিবেদনে আপনাদের জানাবো দুধ-ফুলকপির রেসিপি (Dudh Fulkopi Recipe)।

দুধ-ফুলকপি তৈরি করার উপকরণ : এই রেসিপিটি মূলত মা ঠাকুমাদের। আপনার বাড়িতে যদি কোন বয়স্ক মানুষ থাকেন, তাহলে আপনি তাদের থেকে জেনে নিতে পারেন এই রেসিপিটি, আর যদি না থাকে তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক। এই রেসিপিটি তৈরি করার জন্য আপনার লাগবে একটি গোটা ফুলকপি, গোটা গরম মসলা, কাঁচা লঙ্কা, আদা, চিনি, দুধ, নুন, কাজু বাটা, গরম মসলার গুঁড়ো, ঘি এবং সাদা তেল।

Dudh Fulkopi Recipe

দুধ-ফুলকপি তৈরি করার পদ্ধতি : প্রথমে একটি কড়াই গরম করে তাতে ঘি এবং সাদা তেল মিশিয়ে ফুলকপিগুলি হালকা করে ভেজে নিতে হবে। আপনি যদি চান তাহলে ফুলকপি গুলি ভাজার আগে অল্প গরম জলে ভাপিয়ে নিতে পারেন। হালকা সেদ্ধ হয়ে গেলে ভাজতে আরো কম সময় লাগবে।

ফুলকপি ভাজা হয়ে গেলে কড়াইতে থাকা বাকি তেলে একে একে দিয়ে দিন গোটা গরম মসলা ও চিরে রাখা কাঁচা লঙ্কা। এরপর থেতো করে রাখা আদা দিয়ে দিন। বেশ কিছুক্ষণ ভালো করে কষাবেন যাতে আদার কাঁচা গন্ধ চলে যায় আপনার রান্না থেকে।

Dudh Fulkopi Recipe

আরও পড়ুন : ফুলকপির একটা দুর্দান্ত রেসিপি, একবার খেলে একমাস মুখে লেগে থাকবে

এরপর দিয়ে দিন কাজুবাটা। আরো কিছুক্ষণ ভালো করে কষিয়ে স্বাদমতো নুন এবং চিনি দিয়ে দিন। স্বাদমতো ঝালও মিশিয়ে দিতে পারেন এই সময়। এরপর অল্প দুধ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। কয়েক সেকেন্ড ফুটিয়ে নেওয়ার পর আগে থেকে গরম করে রাখা জল দিয়ে দিন মিশ্রণটির মধ্যে।

আরও পড়ুন : পেঁয়াজ-রসুন ছাড়া একটি দুর্দান্ত নিরামিষ রেসিপি, খেলে আঙ্গুল চাটবেন কথা দিলাম

Dudh Fulkopi Recipe

আরও পড়ুন : পনির ও ফুলকপির একটি সম্পূর্ণ নিরামিষ রেসিপি, রুটি হোক বা ভাত থালা হবে চেটেপুটে সাফ

বেশ কিছুক্ষণ অল্প আঁচে রান্না করার পর যখন গ্রেভি ফুটে উঠবে তখন ভেজে রাখা ফুলকপিগুলি দিয়ে দিতে হবে গ্রেভির মধ্যে। মিনিট পাঁচেক পর যখন গ্রেভি ঘন হয়ে আসবে তখন গ্যাস অফ করে ঘি এবং গরম মসলাগুঁড়ো ছড়িয়ে দিন ওপর থেকে। গরম গরম ভাত বা পোলাওয়ের সঙ্গে যদি এই রেসিপিটি আপনি পরিবেশন করতে পারেন, তাহলে আপনার পরিবারের সদস্যদের মন জয় করে নিতে পারবেন আপনি।

আরও পড়ুন : পালং শাক দিয়ে এইভাবে রাঁধুন ডিম কষা, একবার খেলে এক মাস জিভে লেগে থাকবে