রাজ্যে বদলে গেল কোয়েরেন্টাইনের নিয়ম, জেনে নিন নতুন নিয়ম

দিন এগোনোর সাথে সাথেই কোরোনা ভাইরাসের প্রকৃতিতে বদল এসেছে। কোরোনা সংক্রান্ত নীয়মাবালিতেও এসেছে বদল। কোরোনা উপসর্গ বদল হতেও দেখা গেছে। দেশের প্রতিটি রাজ্যে লকডাউন যেমন শিথিল হয়েছে, তেমনই বদল এসেছে কোয়ারেন্টাইন সংক্রান্ত নীয়মাবলিতেও।

কোরোনা পরিস্থিতিতে রাজ্য বদল করা ব্যাক্তিদের আইসলেশনের ক্ষেত্রেও নির্দেশিকার বদল করেছে বেশ কিছু রাজ্যের সরকার। সবার আগে কর্নাটকে পরিবর্তিত নির্দেশ চালু হয়েছে। আগে অন্য রাজ্য থেকে এই রাজ্যে এলে ১৪ দিনের হোম আইসোলেশনে থাকা বাধ্যতামূলক ছিল। বর্তমানে পরিবর্তিত নির্দেশিকা অনুযায়ী এই দিনসংখ্যা ৭ করা হয়েছে। এছাড়াও দেশের অন্যান্য রাজ্যেও কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্ধারিত দিন সংখ্যা ১৪ থেকে কমিয়ে ৭ করা হয়েছে।

কোথাও ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন আবার কোথাও ৭ দিন করে ইনস্টিটিউশনাল এবং হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ জারি হয়েছে। সব রাজ্যেই প্রথম ৭ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকাকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

আগে বাইরে থেকে রাজ্যে আসা যাত্রীদের ক্ষেত্রে আইসলেশনের নিয়মে কড়াকড়ি করা হতো, কিন্তু এখন সেই গাইডলাইন অনেক সহজ করা হয়েছে। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কোয়ারেন্টাইন নিয়মে কোন রাজ্য কী পরিবর্তন করেছে।

দিল্লিতে কোয়ারেন্টাইনের নতুন নিয়ম

বিদেশি যাত্রীদের জন্য : রাজধানীতে বাইরে থেকে আসা যাত্রীদের ক্ষেত্রে কোয়ারান্টিন বিধিগুলি হলো

১॰ সরকারের তরফ থেকে নির্ধারিত কিছু হোটেলে বিনামূল্যে ৭ দিনের কোয়ারান্টিন সুবিধে দেওয়া হবে।
২. এর পরবর্তী ৭ দিন যাত্রীকে থাকতে হবে হোম
কোয়ারান্টিনে।
৩. হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে বেরিয়ে স্বাভাবিক জীবনের জন্য যাত্রীকে যাত্রা শুরুর ৯৬ ঘন্টা আগে আরটি-পিসিআর পরীক্ষার রিপোর্টগুলি (অবশ্যই তা নেগেটিভ হবে) আপলোড করতে হবে।

আরও পড়ুন : সামাজিক দূরত্ব মেনে মাস্ক পরে কতটা করোনা আটকানো গেল, দেখুন পরিসংখ্যান

অন্তর্দেশিয় যাত্রীদের জন্য : বাইরের দেশ থেকে ভারতে কোনো যাত্রী করলে সেক্ষেত্রে যে নিয়ম গুলি মানতে হবে
১. এক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক ৭ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন।
২. এক্ষেত্রেও পরবর্তী সাত দিনের কোয়ারেন্টাইনের কথা বলা হয়েছে।
৩. তবে এক্ষেত্রে সাংবিধানিক পদে থাকা ব্যক্তি এবং সরকারী কর্মী-সদস্যদের ক্ষেত্রে পরবর্তী সাত দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক নয়।

পশ্চিমবঙ্গের কোয়েরেন্টাইনের নতুন নিয়ম

পশ্চিমবঙ্গে বাইরের রাজ্য থেকে এই রাজ্যে আসা ব্যাক্তিদের জন্য কোয়ারেন্টাইন নীয়মাবলি
১. যারা উপসর্গহীন তাঁদের বাড়িতেই ১৪ দিনের স্ব-পর্যবেক্ষণের পরামর্শ দিয়েছে প্রশাসন।
২. উপসর্গ আছে এমন ব্যাক্তিদের কতদিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার প্রয়োজন সেই বিষয় সিদ্ধান্ত নেবে স্বাস্থ্য আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন : লকডাউনে কাজ হারিয়েছেন? জেনে নিন বাড়ি বসেই উপার্জন করার ৯টি উপায়

বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের জন্য : বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের ক্ষেত্রে যাত্রার ৯৬ ঘন্টা আগে কোভিডের আরটি-পিসিয়ার পরীক্ষার রিপোর্ট ( নেগেটিভ) এর একটি কপি বিমানবন্দর ছাড়ার আগে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটে (‘এয়ার সুবিধা পোর্টালে’) আপলোড করতে হবে এবং সেখান থেকেই যাত্রীরা নো অবজেকশন সার্টিফিকেট পাবেন।