কপাল পুড়লো ‘গাঁটছড়া’র, ‘গাঁটছড়া’কে সরিয়ে আসছে এই নতুন সিরিয়াল

স্টার জলসার টাইম স্লটে আসছে ব্যাপক পরিবর্তন, গাঁটছড়াকে সরিয়ে আসছে এই নতুন সিরিয়াল

এই মুহূর্তে স্টার জলসা (Star Jalsha) একের পর এক নতুন সিরিয়ালের ধামাকা দিয়েই চলেছে দর্শকদের। একদিকে রয়েছে নীল ভট্টাচার্য এবং তিয়াসা লেপচার ‘বাংলা মিডিয়াম’ (Bangla Medium), যার প্রমো গত এক মাস আগেই মুক্তি পেয়েছে। অন্যদিকে সুস্মিতা দে এবং রাজদীপ গুপ্তকে নিয়ে আসছে নতুন অতিলৌকিক সিরিয়াল যার নাম ‘পঞ্চমী’ (Panchami)। এই দু-দুটি ধারাবাহিক আসার খবরে দর্শকরা বেশ উৎসাহিত।

তবে দর্শকদের জন্য রয়েছে একটা দুঃসংবাদ। এই দুই নতুন ধারাবাহিকের জন্যই এবার নাকি চ্যানেলের কোপের মুখে পড়তে চলেছে ২টি জনপ্রিয় সিরিয়াল। এই মুহূর্তে স্টার জলসাতে যে ২ টি সিরিয়ালের টিআরপি সবথেকে কম অথচ প্রাইম টাইম জুড়ে রয়েছে, তাদের উপরেই এবার চ্যানেলের খাড়া নেমে আসবে। খুব তাড়াতাড়ি স্টার জলসার স্লটে একটা বড় পরিবর্তন আসতে চলেছে।

BANGLA MEDIUM

গত সপ্তাহ পর্যন্ত টিআরপি তালিকাতে জি বাংলাকে টক্কর দিয়ে স্টার জলসা সেরা ১০- এর তালিকায় এগিয়ে থেকেছে। শুধু সন্ধে ৭.০০ টায় গাঁটছড়া বাদে স্টার জলসার বাদবাকি সব ধারাবাহিক টিআরপি তালিকাতে জি বাংলার বিপরীতে স্লট পেয়েছে। অন্যদিকে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে দেখা যাচ্ছে গাঁটছড়া জগদ্ধাত্রীর কাছে ক্রমাগত স্লট হারাচ্ছে।

এরই মধ্যে আবার দু-দুটি নতুন ধারাবাহিক এনে দর্শকদের চিন্তায় ফেলে দিয়েছে স্টার জলসা। কারণ এই মুহূর্তে নতুন ধারাবাহিক আসা মানে সেগুলো প্রাইম টাইমেই দেওয়া হবে। কিন্তু প্রাইমটাইম জুড়ে স্টার জলসার প্রায় প্রতিটি সিরিয়ালই এখন খুব ভাল ফলাফল করছে। তবে গাঁটছড়া ক্রমাগত পিছিয়ে পড়ছে। তাই দর্শকদের অনুমান এবার বাংলা মিডিয়াম কিম্বা পঞ্চমী এলে যেকোনও একটি ধারাবাহিক গাঁটছড়ার স্লট দখল করবে।

প্রথমে অবশ্য অনুমান করা হচ্ছিল সন্ধ্যা ৭.৩০ টার সময় আলতা ফড়িংকে সরিয়ে সেই জায়গাতে কোনও এক নতুন সিরিয়াল আসবে। এই ধারাবাহিকের বিপরীতে রয়েছে জি বাংলার গৌরী এল। এই সিরিয়ালটি মাঝে কিছুদিন বেঙ্গল টপার হচ্ছিল। কিন্তু এখন আলতা ফড়িং আবার ছক্কা হাঁকাচ্ছে টিআরপি তালিকায়। তাই বিপদ বাড়ছে গাঁটছড়ার।

gantchhora

নতুন ধারাবাহিক আসার কারণে যদিও বা গাঁটছড়ার বিপদ বাড়ে তার মানে এই নয় যে ধারাবাহিকটি এখনই বন্ধ হয়ে যাবে। প্রথমে আর ৫ টা ধারাবাহিকের মত এই ধারাবাহিকের স্লট পরিবর্তন করে দেওয়া হবে। বিকেলে কিংবা রাতের দিকে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে ধারাবাহিকটিকে। তারপরও যদি গাঁটছড়া ভাল ফল না করতে পারে তাহলে ‘খড়িদ্ধি’র গল্পে এখানেই ইতি টানা হবে।