শুধু রয়েল বেঙ্গল টাইগার নয়, এবার সুন্দরবনে গেলে দেখা মিলবে এদেরও

রয়েল বেঙ্গল টাইগারের পাশাপাশি দেখা মিলবে এদেরও, নতুনভাবে সেজে উঠবে সুন্দরবন

Sundarbans Tour : চিড়িয়াখানায় বদ্ধ জীবজন্তু নয়, বরং প্রকৃতির মাঝে বন্য জন্তুদের যদি আপনি চোখের সামনে দেখতে চান, তাহলে অবশ্যই যেতে হবে সুন্দরবনে। সুন্দরবন মানেই সকলে জানে রয়েল বেঙ্গল টাইগার। যদিও খুব ভাগ্য না থাকলে এই প্রাণীটির দেখা পাওয়া যায় না। তবে এবার পর্যটকদের জন্য রয়েছে বিশাল বড় সুখবর। এবার শুধু রয়েল বেঙ্গল টাইগার (Royal Bengal Tiger) নয়, সুন্দরবনে এলে দেখা মিলবে এদেরও।

সুন্দরবন মানেই বন্যজন্তুদের সমাবেশ

দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলায় বঙ্গোপসাগরের তীরবর্তী একটি বিশাল অঞ্চল জুড়ে অবস্থিত সুন্দরবন। সুন্দরী, গরান সহ একাধিক ম্যানগ্রোভ গাছের সমাবেশে তৈরি সুন্দরবন অরণ্য। সুন্দরবনে বেড়াতে গেলে দেখা যায় কুমির, বাঁদর, সাপ, বন বিড়াল, বণ্য শুকর, কুমির, চিতল হরিণ সহ আরো নানান প্রাণী। মূলত ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যে পর্যটকরা ভিড় করেন সুন্দরবনে।

sundarban

পর্যটকদের আগ্রহ বাড়ানোর জন্য তৈরি করা হচ্ছে এনক্লোজার

সুন্দরবনের সবথেকে আকর্ষণীয় প্রাণী হল রয়েল বেঙ্গল টাইগার। যদিও এই প্রাণীটির দেখা পাওয়ার জন্য যথেষ্ট ভাগ্য থাকতে হয়। তবে এবার শুধু রয়েল বেঙ্গল টাইগার নয়, সুন্দরবনে আপনি দেখতে পাবেন নানান প্রজাতির পাখি। পর্যটকদের আকর্ষিত করার জন্য এবার সুন্দরবনে তৈরি করা হচ্ছে দুটি এনক্লোজার।

শুধু রয়েল বেঙ্গল টাইগার নয়, এবার সুন্দরবনের দেখা মিলবে এদেরও

বনদপ্তরের সমীক্ষা অনুযায়ী, এই মুহূর্তে প্রায় ৫ হাজারের বেশি পাখি রয়েছে সুন্দরবনে। প্রায় ১৪৫ টি প্রজাতির পাখি রয়েছে এই অরণ্যে। তবে বাঘের পাশাপাশি চট করে এই পাখিদেরও দেখা পান না পর্যটকরা, তাই আক্ষেপ থেকেই যায়। পর্যটকদের এই আক্ষেপ দূর করার জন্যই এবার এনক্লোজার তৈরি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

sundarban national park

ওয়াইল্ড অ্যানিমেল পার্ক

কিছু বছর আগে বাসন্তী ব্লকের ঝড়খালিতে বন বিভাগের উদ্যোগে তৈরি করা হয়েছিল ওয়াইল্ড অ্যানিমেল পার্ক। এখানে গেলে আপনি দেখতে পাবেন একটি বাঘিনী, দুটি বাঘ এবং বেশ কয়েকটি কুমির। এবার এই পার্কটিকে সংযোজন করে দুটি এনক্লোজার তৈরি করা হচ্ছে পাখিদের জন্য। সুন্দরবনের প্রায় ২০টির বেশি প্রজাতির পাখি থাকবে এখানে।

আরও পড়ুন : খরচ মাত্র ১২০০ টাকা! মিনি হানিমুন কাটাতে ঘুরে আসুন এই পাহাড়ি লোকেশন থেকে

BIRD ENCLOSER

আরও পড়ুন : জলের তলায় মন্দির, রয়েছে অভয়ারণ্যও! নামমাত্র খরচে ঘুরে আসুন পরিযায়ী পাখিদের গ্রাম থেকে

এই প্রসঙ্গে বন বিভাগের মাতলা রেঞ্জের রেঞ্জার শেখ রফিক আলী বলেন, “ফেব্রুয়ারি মাসের মধ্যেই এই এনক্লোজার দুটি চালু করা হবে। খুব সুন্দর করে পার্কটিকে সাজানো হচ্ছে। বাঘ এবং কুমিরের পাশাপাশি এবার স্থানীয় পাখিও দেখতে পাবেন পর্যটকরা। যদিও আরো কিছু পরিকল্পনা রয়েছে আমাদের।”