কম বাজেটে বেডরুম সাজাবেন কিভাবে, রইল ৩৫০০ টাকায় ঘর সাজানোর দুর্দান্ত উপায়

বাজেট কম হলে ঘর সাজান এইভাবে, উপায় বলে দিলেন টুইঙ্কল খান্না

TWINKLE KHANNA

বলিউডকে (Bollywood) বহুদিন আগেই বিদায় জানিয়েছেন টুইঙ্কল খান্না (Twinkle Khanna)। বর্তমানে তিনি একজন বিখ্যাত ব্লগার। বিভিন্ন জায়গায় লেখালেখি করে বেশ সুনাম পেয়েছেন তিনি। আবার ইউটিউবেও তার নিজস্ব চ্যানেল রয়েছে। রাজেশ খান্নার কন্যা তার ইউটিউব চ্যানেলে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলে থাকেন। সাধারণের সুবিধার কথা ভেবে নানা ধরনের দরকারি টিপসও দিয়ে থাকেন টুইঙ্কল।

সম্প্রতি টুইঙ্কল খান্না ইউটিউব চ্যানেলে শেয়ার করলেন DIY ডিজাইন সিরিজ স্পেসলিফ্টের একটি ভিডিও। এই ভিডিওতে বারান্দা এবং গেস্ট রুম কিভাবে সাজানো যায় সেই সম্পর্কিত বহু গুরুত্বপূর্ণ টিপস দিয়েছেন তিনি। সেইসঙ্গে আবার বাড়ির মাস্টার বেডরুমটিকেও কিভাবে কম খরচে সাজিয়ে তোলা যায় সেই আইডিয়াও শেয়ার করেছেন।

TWINKLE KHANNA

টুইঙ্কলের ইউটিউব চ্যানেলের নাম টুইক ইন্ডিয়া। এই চ্যানেলের নতুন ভিডিওতে মাস্টার বেডরুমকে কিভাবে সেরা করে তোলা যায় তার টিপস রয়েছে। টুইঙ্কল জানিয়েছেন মাত্র ৩৫০০ টাকাতেই একটা সুন্দর এবং শান্তিপূর্ণ বেডরুম পাওয়া যেতে পারে। বাড়ির মাস্টার বেডরুমকে কিভাবে ভাড়াবাড়িতে ‘শান্তির মরুদ্দ্যান’ করে তোলা যায় সেই টিপস নিয়ে হাজির টুইঙ্কল খান্না।

তার কথায়, ‘বাড়ির সাজসজ্জায়, বসার ঘরগুলি কলেজের জনপ্রিয় মেয়েদের মতো, সমস্ত মনোযোগ আকর্ষণ করে এবং শোওয়ার ঘর বন্ধ দরজার পিছনে লুকানো থাকে। একদিনে লন্ড্রির জিনিসপত্র, অন্যদিকে সুটকেসের তাজমহল… বিছিনায় ভেজে তোলায়েল পরে থাকাটা প্রত্যেকের ঘরের গল্প।’ তিনি বলেছেন প্রথমে মাস্টার বেডরুমটিকে একটি প্রাইভেট স্যাংচুয়ারিতে পরিণত করে ফেলতে হবে। তার জন্য প্রয়োজন ভাল মানের একটি গদি।

নিজের সুবিধা এবং ভালো ঘুমের কথা মাথায় রেখে গদি কেনার ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করা উচিত বলে মনে করেন টুইঙ্কল। খরচ কমাতে প্রয়োজনে নিজের হাতে বা স্থানীয় কাঠমিস্ত্রির সাহায্য নিয়ে একটি হেডবোর্ড তৈরি করে ফেলতে হবে। বাড়ি মেকওভার সম্পর্কিত টুকিটাকি টিপস নিয়ে এই ভিডিওটি ছিল তার বেডরুম মেকওভার সিরিজের তৃতীয় পর্ব।

এছাড়া তিনি তার ব্যক্তিগত সুবিধা-অসুবিধার কথাও শেয়ার করেছেন। টুইঙ্কল জানিয়েছেন তিনি তার বিছানার পাশে সব সময় এক জগ জল রাখা পছন্দ করেন। সারারা তিনি সেই জল পান করেন এবং যার ফলে তাকে বেশ কয়েকবার বাথরুম যেতে হয়। এভাবেই যখন অন্যরা ঘুমোয় তখন তিনি তার হাঁটার ২০০০ ধাপ সম্পন্ন করে ফেলেন।