মাত্র ১০ টাকায় রাজার হালে খাওয়া-দাওয়া! ঘুরে আসুন বাংলার এই রাজবাড়ী থেকে

রাজার হালে থাকা-খাওয়া, তাও মাত্র ১০ টাকা থেকে শুরু! ঘুরে আসুন বাংলার এই রাজবাড়ী থেকে

Travel Guide To Mahishadal Rajbari : হাতে টাকা নেই কিন্তু রাজার মত দিন কাটাতে ইচ্ছা করছে। কিন্তু টাকা না থাকলে কিভাবে রাজকীয় জীবনযাত্রা অতিবাহিত করবেন আপনি? মন খারাপ করবেন না, আজ এমন একটি লোকেশনের কথা আপনাকে বলব যেখানে একদিনের জন্য হলেও আপনি রাজার মতো দিন কাটিয়ে আসতে পারবেন। আজ আপনাকে বলব মহিষাদল রাজবাড়ি (Mahishadal Rajbari) -র কথা।

Travel Guide to Best Places to Visit in West Bengal

ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ার কল্যাণে বহু মানুষ এই রাজবাড়ীর সন্ধান পেয়ে গেছেন। বহু মানুষ এখানে গিয়ে ব্লগ এবং ভিডিও তৈরি করে এসেছে। আপনি যদি এখনো এই স্থানটির সন্ধান না জেনে থাকেন তাহলে এই প্রতিবেদন শুধুমাত্র আপনার জন্য। আজ এই প্রতিবেদনে আপনাকে বলব মহিষাদল রাজবাড়ি সম্পর্কিত বিস্তারিত তথ্য।

Mahishadal Rajbari

বিভিন্ন রাজ্য থেকে বহু পর্যটক আসেন মহিষাদল রাজবাড়ি, সংগ্রহশালা, আম্রকুঞ্জ এবং পুষ্করিনী দেখতে। পর্যটকদের কথা চিন্তা করে এবার পূজো থেকে প্যালেসের সামনেই চালু করা হয়েছে ক্যাফে কাম ফ্যামিলি রেস্টুরেন্ট পরিষেবা। শীতকালে এখানে প্রচুর অতিথির সমাগম হয় তাই সকলের কথা মাথায় রেখে এই ক্যাফেটি খোলা হয়েছে। নাম দেওয়া হয়েছে ‘রাজার হালে ক্যাফে’।

এই রেস্টুরেন্টে আপনি পেয়ে যাবেন ইন্ডিয়ান, সাউথ ইন্ডিয়ান এবং চাইনিজ খাবারের প্রচুর বিকল্প। ১০ টাকা থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে আপনি পেয়ে যাবেন আপনার মনের মতো হরেক রকম খাবার। প্রতিদিন সকাল দশটা থেকে দশটা পর্যন্ত খোলা থাকে ক্যাফে। এই ক্যাফের মূল আকর্ষণ হল, এই ক্যাফেটি মহিলাদের দ্বারা পরিচালিত।

Mahishadal Rajbari

রাজবাড়ীর প্রাচীন বৃক্ষের তলায় সুমধুর শান্ত দুপুরের অসাধারণ সৌন্দর্য উপভোগ করার সুযোগ হাতছাড়া নিশ্চয়ই করতে চান না তাই একেবারে দেরি না করে অল্প খরচের মধ্যেই চলে আসুন মহিষাদল রাজবাড়ি আর শান্ত পরিবেশে একান্তে সময় কাটানোর পাশাপাশি উপভোগ করুন রাজকীয় ঘরানার খাবার। এই রাজবাড়ির প্রাচীন ইতিহাস আপনাকে বারবার মুগ্ধ করবে।

আরও পড়ুন : ভুলে যান দীঘা-পুরি, কম খরচে ঘুরে আসুন বাংলার খুব কাছে ভারতের নায়গ্রা থেকে

Mahishadal Rajbari

আরও পড়ুন : দার্জিলিং নয়, মাত্র ৫০০ টাকায় ঘুরে আসুন ‘ডুয়ার্সের স্বর্গ’ থেকে, রইল ঠিকানা

কলকাতা থেকে ১১০ কিলোমিটার দূরত্ব এই স্থানটির তাই সকাল সকাল করে বেরোলে এখানে দুপুরের এলাহী আয়োজনের সুযোগ সুবিধা পাবেন আপনি। কলকাতা থেকে বোম্বে রোড ধরে নন্দকুমার মোর পার হয়ে ৮ কিলোমিটার গেলেই পেয়ে যাবেন কাপাসিরিয়া মোড়। সেখান থেকে পাঁচ কিলোমিটার গেলেই পেয়ে যাবেন মহিষাদল রাজবাড়ি। তবে রাজবাড়িতে থাকতে গেলে আগে থেকে বুকিং করে আসতে হবে আপনাকে।