লকডাউনে বাতিল হওয়া ট্রেনের টিকিটের টাকা ফেরৎ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশিকা

train-tickets-to-be-auto-refunded-amid-lockdown

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশে লকডাউন জারি হওয়ার কারণে যে সকল ট্রেন বাতিল হয়েছে সেই সমস্ত ট্রেনের টিকিটের টাকা সম্পূর্ণরূপে ফেরত পাবেন গ্রাহকরা এমনটা আগেই জানিয়েছে ভারতীয় রেল। আর ভারতীয় রেলের ঘোষণা মত সেই টাকা ফেরতও দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু এই টাকা ফেরত পেতে বেশ কয়েক দিন দেরি হওয়ায় অনেক গ্রাহকই দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। যে কারণে আইআরসিটিসি তাদের গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণায় জানিয়েছে, দেরি হলেও বাতিল হওয়া ট্রেনের টিকিটের সম্পূর্ণ মূল্য ফেরত পাবেন গ্রাহকরা।

আইআরসিটিসি বাতিল হওয়ার টিকিটের টাকা ফেরত দেওয়ার বিষয়ে জানিয়েছে, একসাথে এত বেশি ট্রেন বাতিল হওয়ায় কিছুটা হলেও তাদের কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হয়েছে। কারণ এর আগে কখনো একসাথে এত ট্রেন ও টিকিট বাতিল হয়নি। তাই টিকিটের মূল্য ফেরাতে কিছুটা হলেও সময় লাগছে। আর এই সময় লাগছে প্রসেসিং ও অন্যান্য কাজ করতে। সাধারণভাবে বাতিল হওয়া ট্রেনের টিকিটের মূল্য ফেরত আসে ৪ থেকে ৭ কাজের দিনের মধ্যে। আর এখন এমনটা সম্ভব হচ্ছে না কারণ তাদের কর্মীর সংখ্যাও অনেক কম রয়েছে।

আরও পড়ুন :- লাইন দাঁড়িয়ে টিকিট কাটার দিন শেষ! চালু হল রেলের নতুন পরিষেবা

তবে তারা গ্রাহকদের নিশ্চিত করেছে, নিয়ম অনুযায়ী বাতিল হওয়া ট্রেনের টিকিটের সম্পূর্ণ মূল্য কিছুটা দেরি হলেও ফেরত পাবেন। যে সমস্ত গ্রাহকরা অনলাইনে টিকিট করেছিলেন তাদের বাতিল হওয়া ট্রেনের টিকিটের দাম নিজে থেকেই যে অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে টিকিট কাটা হয়েছিল সেই অ্যাকাউন্টে ঢুকে যাবে। আর টিকিটের সম্পূর্ণ মূল্যই চলে আসবে। তবে কোনো গ্রাহক যদি নিজে থেকে টিকিট বাতিল করে থাকেন তাহলে পুরো মূল্য পাবেন না।

আরও পড়ুন :- লকডাউনের পর ৭ দিনের জন্য কি ট্রেন চলবে, কি বলছেন রেল মন্ত্রক

এছাড়াও যারা রেলের কাউন্টার থেকে টিকিট করেছেন তারা জার্নি ডেট থেকে তিন মাস সময় পাবেন বাতিল হওয়া ট্রেনের টিকিটের মূল্য ফেরত পেতে। এর জন্য গ্রাহককে ওই সময়ের মধ্যে রেলের টিকিট কাউন্টারে গিয়ে টিকিট জমা দিলেই সঙ্গে সঙ্গে পুরো টাকা হাতে তুলে দেওয়া হবে। লকডাউনের কারণে কাউন্টারে গিয়ে টাকা ফেরত নেওয়ার নিয়ম শিথিল করা হয়। আগেই নিয়ম ছিল টিকিটের মূল্য ফেরত পাওয়ার জন্য ৭২ ঘণ্টার মধ্যে কাউন্টারে আসতে হতো।