দেশের দরবারে বাংলার জয় জয়কার,বাংলার মুখ উজ্জ্বল করলো এই ৬ বাঙালি গায়ক

সারেগামাপার মঞ্চে স্টেজ মাতালো ৬ বাঙালি গায়ক, দেশের দরবারে বাংলার জয় জয়কার

Ananya Chakraborty selected on Zee TV SaReGaMaPa by Singing A Bengali Folk Song

সংগীতের মহাযুদ্ধের আসর বসেছে জি টিভির (Zee TV) সারেগামাপাতে (Sa Re Ga Ma Pa)। বিশাল দাদলানি (Vishal Dadlani), হিমেশ রেশমিয়া (Himesh Reshammiya), শঙ্কর মহাদেবনরা (Shankar Mahadevan) একে একে পুঙ্খানুপুঙ্খ বিচার করে বেছে নিচ্ছেন আগামীদিনের প্রতিভাদের। সারা দেশের প্রতিটি প্রান্ত থেকে সঙ্গীত দুনিয়ার রথী-মহারথীরা বিচারকদের সামনে স্টেজ মাতাচ্ছেন। সেই দলে রইলেন বাংলার ৬ রত্ন।

অনন্যা চক্রবর্তী (Ananya Chakraborty) : জি বাংলার সারেগামাপার রানার্স আপ ছিলেন তিনি। তার গায়কীতে উঠে আসে বাংলা লোকসঙ্গীত। বাংলা ও বাঙালির গর্ব তিনি। বিচারকদের সামনে ভাটিয়ালি গান পরিবেশন করে তিনি সকলের মন জিতে নিয়েছেন। জায়গা করে নিয়েছেন টপ ১৬তে।

স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক (Snigdhajit Bhowmik) : জি বাংলার সারেগামাপা থেকে এবার অনেক তারকাই জায়গা করে নিয়েছেন জি টিভির সারেগামাপাতে। এদের মধ্যে একজন হলেন স্নিগ্ধজিৎ ভৌমিক। ২০১৯ সালে বাংলা সারেগামাপাতে দ্বিতীয় স্থান দখল করেছিলেন স্নিগ্ধজিৎ। এবার তিনিও হয়েছেন সংগীতের এই মহাযুদ্ধের প্রতিযোগিতার অংশীদার।

কিঞ্জল চট্টোপাধ্যায় (Kinjal Chatterjee) : বাংলার সারেগামাপাতে ২০১০ এর প্রতিযোগী ছিলেন কিঞ্জল চট্টোপাধ্যায়। সারেগামাপা তাকে দিয়েছে সার্বিক জনপ্রিয়তা। আজ তিনি বাংলার একজন অত্যন্ত পরিচিত গায়ক। তিনিও টপ ১৬তে নিজের জায়গা পাকা করে নিয়েছেন।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kinjal Chatterjee (@kin4u)

নীলাঞ্জনা রায় (Nilanjana Roy) : আলিপুরদুয়ারের মেয়ে নীলাঞ্জনাও পৌঁছে গিয়েছেন টপ ১৬তে। ‘দ্য ভয়েস ইন্ডিয়া কিডস’ এর প্রতিযোগী নীলাঞ্জনা এবার জি টিভির সারেগামাপাতে অংশ নিয়েছেন।

দীপায়ন বন্দ্যোপাধ্যায় (Dipayan Banerjee) : বাংলার আরেক জনপ্রিয় গায়ক দীপায়ন বন্দ্যোপাধ্যায়। এতদিন তার গান শুনে মুগ্ধ হয়েছেন বাঙালিরা। নিজের গায়কী দিয়ে সারেগামাপার বিচারকদেরও মুগ্ধ করে নিলেন দীপায়ন। তিনিও রয়েছেন টপ ১৬তে।

বিদিপ্তা চক্রবর্তী (Bidipta Chakraborty) : জি বাংলা সারেগামাপার গত সিজনের চূড়ান্ত পর্বের প্রতিযোগী ছিলেন বিদীপ্তা। তবে টপ ১৬তে পৌঁছতে পারলেন না তিনি। বিদীপ্তার গান বিচারকদের মধ্যে তেমন সাড়া ফেলতে পারলো না। তাই শেষমেষ মঞ্চ থেকে ছিটকেই গেলেন তিনি।