বলিউডের এই ৫ বডিগার্ডের বেতন দেখে লজ্জায় মুখ ঢাকছে সবাই

বলিউডের সেলিব্রেটিরা “দেহরক্ষী’ ছাড়া এক পাও কোথাও নড়েন না। প্রকাশ্য রাস্তায় তারা একা চলতে রীতিমত ভয় পান। শাহরুখ খান, অমিতাভ বচ্চন, সালমান খান, অক্ষয় কুমারের মত বলিউডের বলিষ্ঠ অভিনেতারা যখনই বাইরে বেরোন, তাদের সঙ্গে তাদের দেহরক্ষীরা ছায়ার মতো লেগে থাকেন। অনেকেই হয়তো মনে করবেন সেলিব্রিটিদের আবার কিসের এত ভয়? তাদেরতো মানুষ এত ভালবাসেন! এত পছন্দ করেন! তাও ভয়?

অনেক সময় অতিরিক্ত ভালোবাসাও কিন্তু ভয়ের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। শাহরুখ খানের “ডর”‘ সিনেমার কথাই ধরে নিন, সেখানে ভালোবাসার জন্য কত ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করতে দেখা গিয়েছিল কিং খানকে! আবার শাহরুখের “ফ্যান” সিনেমাটিও কিন্তু বলিউড সেলবদের পাগল-প্রেমী সম্পর্কে বেশ ভালোমতোই ধারণা দেয়। অতএব বুঝতেই পারছেন, মিডিয়া কিংবা ফ্যানদের ঠেলাঠেলি থেকে ‌ সেলিব্রিটিদের রক্ষা করাটা কতটা জরুরি।

আর নিজের প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে যারা সেটি করে থাকেন তারাই হলেন সেলিব্রিটিদের দেহরক্ষী বা বডিগার্ড। তাদের দৌলতেই রাস্তায় নিশ্চিন্তে ঘুরে বেড়াতে পারেন সকলের প্রিয় সেলিব্রেটিরা। সেলিব্রিটিদের রক্ষা করতে গিয়ে অনেক সময় বিপদের সম্মুখীন হতে হয় তাদের। বডিগার্ডদের এই‌ পেশায় তারা সর্বদা সেলিব্রিটিদের সঙ্গে সঙ্গেই ঘুরতে পারেন।

তবে প্রভুর উপর আছড়ে পড়া প্রতিটি বিপদে তারা বুক দিয়ে আগলে রাখেন তাদের। যাদের কার এতটা ঝুঁকিপূর্ণ, স্বভাবতই তাদের বেতন হবে আকাশছোঁয়া। আসুন জেনে নেওয়া যাক বলিউড সেলিব্রেটিরা তাদের জীবন রক্ষার বিনিময়ে দেহরক্ষীদের ঠিক কত বেতন দিয়ে থাকেন।

সলমান খানের বডিগার্ড শেরা : প্রায় ২৬ বছর ধরে শেরা সালমান খানের বডিগার্ড হিসেবে কাজ করছেন। সলমানকে তিনি “মালিক’ বলে সম্বোধন করেন। শেরা সালমানের দেহরক্ষী দলের প্রধান। আজ থেকে বহু বছর আগে ভারত ট্যুরের মিউজিক কনসার্টে হলিউড গায়িকা উইগফিল্ডের দেহরক্ষীর দায়িত্বে ছিলেন শেরা। সেখানেই সালমানের সঙ্গে তার প্রথম আলাপ হয়। হলিউড নায়ক কিয়ানু রিভসকেও দেহরক্ষী হিসেবে সুরক্ষা প্রদান করেছিলেন তিনি। সেই সময় সালমানের সঙ্গে তার দ্বিতীয়বার সাক্ষাৎ হয়।

এর পরেই ঘটে যায় এক অঘটন। চন্ডিগড়ের একটি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছিলেন সালমান। সেই সময় দর্শক সালমানকে দেখে কোনও বাধা না মেনেই স্টেজের উপরে উঠে আসেন। এইসময় সালমানের ভাই সোহেল খান প্রথম ভাইয়ের জন্য বডিগার্ডের প্রয়োজনীয়তা উপলব্ধি করেন। সালমানের বডিগার্ড হিসেবে শেরাই ছিলেন তার প্রথম পছন্দ। অতএব সেরার ডাক পড়ে এবং সেই থেকেই ভাইজানের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করে আসছেন শেরা। সলমানের সুরক্ষা নিশ্চিত করার বিনিময়ে ভাইজান শেরাকে বছরে ২ কোটি টাকা পারিশ্রমিক দেন!

শাহরুখ খানের বডিগার্ড রবি সিং : বলিউডের বেতাজ বাদশা জন্য তার অনুরাগীরা রীতিমতো পাগল। তাকে এক ঝলক দেখা কিংবা তাকে স্পর্শ করা, তার ফ্যানদের জীবনের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন। সেই স্বপ্নের পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়ে আছেন রবি সিং। তার বিনা অনুমতিতে একটি মাছিও শাহরুখের ধারেকাছে ঘেঁষতে পারবে না। এমনই কড়া নিরাপত্তায় তিনি রেখেছেন শাহরুখকে।

দীর্ঘ বেশ কয়েক বছর ধরেই এই কঠিন কাজটি করে আসছেন রবি সিং। রবি কখনো নিজে লাইমলাইটে আসতে পছন্দ করেন না। ক্যামেরার আড়ালেই যেন তিনি স্বচ্ছন্দ। তবে শাহরুখ খানের সঙ্গে বেশ কিছু ছবিতে মাঝেমধ্যেই ধরা পড়েন তিনি। শাহরুখ তার দেহরক্ষীকে বছরে কত টাকা দেন তা জানলে আপনার মাথা ঘুরে যাবে। রবি শাহরুখের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার পারিশ্রমিক স্বরূপ বছরে ২.৭ কোটি টাকা নিয়ে থাকেন! এই মুহূর্তে বলিউডের সবথেকে বেশি পারিশ্রমিক পাওয়া বডিগার্ড তিনি।

আরও পড়ুন : সলমান খানের বডিগার্ড শেরার এক বছরের বেতন সাধারণ ভারতীয়র সারাজীবনের রোজগার

অক্ষয় কুমারের বডিগার্ড শ্রেয়াসে থেলে : বলিউডের মিস্টার ফিট অক্ষয় কুমারের কোনও বডিগার্ডের প্রয়োজনীয়তা আছে বলে ভাবতেই পারেনা তার অনুরাগীরা। তবে জানলে অবাক হবেন, অক্ষয় কুমারেরও বডিগার্ড রয়েছেন। ‌যিনি‌ তার মতোই সর্বদা ফিট এবং এনার্জেটিক হয়ে থাকেন।

তার নাম শ্রেয়াসে থেলে। অক্ষয় কুমারের বডিগার্ড একা অক্ষয়কে নয়, তার ছেলে আরবকেও নিরাপত্তা দেন। আর এই কাজের বিনিময়ে তিনি বছরে অক্ষয় কুমারের থেকে ১.২ কোটি টাকা পারিশ্রমিক নেন।

আমির খানের বডিগার্ড যুবরাজ ঘোরপাদে : বলিউডের মিস্টার পারফেক্ট আমির খানের বডিগার্ডের নাম যুবরাজ ঘোরপাদে। বডি বিল্ডিংকেই পেশা হিসেবে নিতে চেয়েছিলেন যুবরাজ। তবে তেমনটা হলো না। মাত্র ১৬ বছর বয়সেই তাকে পড়াশোনা ছেড়ে দিতে হয়।

আরও পড়ুন : মুকেশ আম্বানি তার মানিব্যাগে কত টাকা রাখেন জানলে অবাক হবেন আপনি

এরপর তিনি Ace Security বিভাগে চাকরি নেন। তারপর তাকে আর কখনো ঘুরে তাকাতে হয়নি। এই বিভাগে চাকরি করতে করতেই তিনি আমির খানের বডিগার্ড হিসেবে মনোনীত হন। আমির খানকে নিরাপত্তা দেওয়ার পারিশ্রমিক হিসেবে বছরে ২ কোটি টাকা নেন যুবরাজ।

অমিতাভ বচ্চনের বডিগার্ড জিতেন্দ্র শিন্ডে : বলিউডের বিগ বি, শাহেনশা অমিতাভ বচ্চনেরও কিন্তু বডিগার্ডের প্রয়োজন হয়। অমিতাভ বচ্চনের বডিগার্ডের নাম জিতেন্দ্র শিন্ডে। জিতেন্দ্র সর্বদা বিগ বির সাথে ছায়ার মত লেগে থাকেন। শুটিং সেটে হোক কিংবা অন্য কোথাও, অমিতাভ বচ্চনকে একবারের জন্যেও নজরের আড়াল করেন না তিনি।

আরও পড়ুন : মুকেশ আম্বানির ড্রাইভারের বেতন লজ্জায় ফেলে দেবে দেশের বড় কর্পোরেট সংস্থার কর্মীদেরও

জিতেন্দ্র একটি সিকিউরিটি এজেন্সির মালিক। তবে অমিতাভ বচ্চনের নিরাপত্তার বিষয়টি তিনি নিজেই দেখেন। জিতেন্দ্রর সঙ্গে সর্বদাই একটি কারবাইন বন্দুক দেখতে পাওয়া যায়। অমিতাভ বচ্চনকে নিরাপত্তা দেওয়ার পারিশ্রমিক হিসেবে জিতেন্দ্র প্রতিবছর ১.৫ কোটি টাকা নিয়ে থাকেন।