চটি চেটে ‘মহানায়িকা’ নয়, যোগ্যতা গুণে ‘বাংলার কিংবদন্তি’ হলেন টলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী

বর্তমানে টলিউড (Tollywood) ইন্ডাস্ট্রিতে যারা রাজত্ব করছেন তাদের মধ্যে শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী, নুসরাত জাহান, কোয়েল মল্লিক থেকে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তদের নাম না নিলেই নয়। বাংলা পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানগুলোতে পুরস্কার ওঠে নুসরাত, ঋতুপর্ণাদের ঝুলিতে। তবে এবার ‘লেজেন্ড অফ বেঙ্গল’ (Legend Of Bengal) বা বাংলার কিংবদন্তী খেতাব জিতলেন টলিউডের আরেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)।

সম্প্রতি অল ইন্ডিয়া হিউম্যান রাইটসের তরফ থেকে শ্রীলেখাকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। শনিবার অর্থাৎ ১০ ডিসেম্বর কলকাতার রোটারি সদনে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে এই পুরস্কার হাতে পেয়েছেন শ্রীলেখা। এমন একখানা পুরস্কার পেয়ে শ্রীলেখা দারুণ আপ্লুত বোধ করছেন। ফেসবুকে তিনি তার পুরস্কার পাওয়ার সুখবর শুনিয়ে খুশি ব্যক্ত করেছেন।

ফেসবুকে এই সুখবরটি শুনিয়ে ক্যাপশনে শ্রীলেখা লিখেছেন, “আমি নাকি লেজেন্ড অফ বেঙ্গল! নিন্দুকরা শুনছো/শুনছেন?” শ্রীলেখার এই পোস্টের কমেন্ট বক্সে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়ে ভরিয়ে দিয়েছেন নেটিজেনরা। সেই সঙ্গে অভিনেত্রী জানিয়েছেন পুরস্কার পাওয়ার খবর পাওয়া মাত্র তার মনের অনুভূতির কথা। তিনি জানিয়েছেন এই পুরস্কার পেয়ে তিনি দারুণ অবাক হয়েছেন।

শ্রীলেখার কথায়, “আমি ভীষণ অবাক হয়ে যাই। কিন্তু সম্মান পেয়ে খুব ভাল লেগেছে। যারা আমাকে এই সম্মানে সম্মানিত করলেন তাদের অসংখ্য ধন্যবাদ।” অভিনেত্রী শ্রীলেখা বাস্তব জীবনে অত্যন্ত প্রতিবাদী স্বভাবের মানুষ। সোশ্যাল মিডিয়া হোক কিংবা বাস্তব জীবন, সাধারণ মানুষের জন্য হোক কিংবা পথপশুদের জন্য, অন্যায় দেখলে বারবার তিনি প্রতিবাদ করেছেন।

সোশ্যাল মিডিয়াতে বরাবর ভীষণ অ্যাকটিভ থাকেন শ্রীলেখা। তিনি অন্যায় দেখলে নিজের মত করে নিজের মতামত জানিয়ে রুখে দাঁড়ান। সোশ্যাল মিডিয়াতে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রতিক্রিয়া দেন তিনি। সমাজের প্রতি তার দায়বদ্ধতা রয়েছে। তার লেখা এবং কাজের মধ্যে ধরা পড়ে তিনি সমাজের সম্পর্কে কতটা দায়বদ্ধ এবং সচেতন। তাই তাকে এই সম্মান দেওয়া হয়েছে।

অল ইন্ডিয়া হিউম্যান রাইটস সংস্থার তরফ থেকে কৃষ্ণা পাল সংবাদ প্রতিদিনকে জানিয়েছেন, “শ্রীলেখা যে কেবল একজন ভালো অভিনেত্রী তাই নয়, তিনি একজন বড় মনের মানুষও বটে। তিনি অন্যায়ের প্রতিবাদ করেন। পশুদের যত্নে রাখেন। তাঁর পশুদের প্রতি প্রেম প্রমাণ করে যে তিনি কেবল একজন অভিনেত্রী নন, তাঁর আরও একাধিক পরিচয় আছে, সর্বোপরি তিনি একজন ভালো মনের মানুষ। আর তাই এই সম্মান তাঁকে দেওয়া হয়েছে।”