৫৫ বছরের রূপা গাঙ্গুলীর কোল আলো করে এল একরত্তি সন্তান, শুভেচ্ছার বন্যা নেটপাড়ায়

অভিনেত্রী রূপা গাঙ্গুলীর ঘরে এল ছোট্ট সদস্য, শুভেচ্ছায় ভরিয়ে দিচ্ছেন নেটিজেনরা

RUPA GANGULY GRANDSON

অভিনেত্রী রূপা গাঙ্গুলী (Rupa Ganguly) সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়াতে এক বড় সুখবর শুনিয়েছেন নেটিজেনদের। সম্প্রতি তার কোল আলো করে এসেছে পরিবারের নতুন সদস্য। নতুন সদস্যের ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে নিয়েছেন তিনি। জনপ্রিয় টেলিভিশন তারকা তথা বিজেপি নেত্রী রূপা গাঙ্গুলীর জীবনের এত বড় একটা খুশির খবরে দারুণ উৎসাহিত হলেন তার ভক্তরা।

অভিনেত্রী একটা সময় বাংলা টেলিভিশনের পর্দাতে প্রচুর কাজ করেছেন। সেই সঙ্গে টলিউডেরও বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেন রূপা। তাকে গোটা দেশ চেনে মহাভারতের দ্রৌপদী হিসেবে। দূরদর্শনের মহাভারতের ‘দ্রৌপদী’ চরিত্রে অভিনয় করে দারুণ প্রশংসা পান রূপা। এহেন অভিনেত্রী অবশ্য এখন অভিনয় ছেড়ে রাজনীতিতেই পুরোদস্তুর ডুবে রয়েছেন। এখন টিভির পর্দায় তাকে বিজেপির হয়ে রাজনীতির ময়দান কাঁপাতে দেখা যায়।

Here is Why Roopa Ganguly Wears Sindoor Even After Divorce

সম্প্রতি রূপা তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে পরিবারে নতুন সদস্য আসার সুখবরটি শোনালেন। রূপা নবজাতকের দুটি ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখে জানিয়েছেন আবার দিদিমা হয়েছেন তিনি। রূপার সংসার আলো করে এসেছে পুত্র সন্তান। রূপা তার ছোট্ট নাতির দুটি ছবি শেয়ার করতেই সোশ্যাল মিডিয়াতে উপচে পড়ছে মানুষের ভালবাসা।

অভিনেত্রী অপর্ণা সেন এই সুখবর শুনে রূপাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। তিনি প্রশ্ন করেন এই একরত্তি শিশু কি তার ছেলে আকাশের সন্তান? উত্তরে রূপা লিখেছেন যে পরিবারের এই ছোট্ট সদস্য তার মেয়ে জুঁইয়ের ছেলে। আপাতত দিদা হওয়ার খুশিতে আনন্দে মাতোয়ারা হয়ে রয়েছেন রূপা। অভিনেত্রী ছোট্ট নাতি এবং তার পরিবারের সদস্যরা আগামী দিনগুলি এভাবেই ভাল কাটুক, আনন্দে থাকুন সকলে এমনই কামনা করছেন।

রূপার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে অবশ্য অনেক জল্পনা রয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। অনেকে বলেন তিনি বিবাহিতা, কেউ ভাবেন তিনি অবিবাহিতা, আবার কেউ মনে করেন রূপা বিবাহবিচ্ছিন্না। শোনা যায় স্বামী ধ্রুব মুখার্জীর সঙ্গে বহুদিন আগেই বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে রূপার। এখন তিনি নাকি গায়ক দিব্যেন্দুর সঙ্গে লিভ ইন সম্পর্কে রয়েছেন। রূপা নিজেই জানিয়েছিলেন স্বামীর সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে।

বিচ্ছেদের পরেও অবশ্য রূপার সিঁথিতে সিঁদুর দেখা যায়। যা দেখে অনেকেই অনেক রকম প্রশ্ন করেন। এই প্রশ্নের জবাবে রূপা বলেন, “দুটো কারণে আমি সিঁদুর পরি। এক আমার পরিবারের সুস্থতা যারা কামনা করেন, তারা যেন ভাল থাকেন। আর দ্বিতীয় নিজেকে সিঁদুর পরে দেখতে আমার খুব ভাল লাগে।”