কোটি কোটি টাকা দুর্নীতির অভিযোগ গ্রেপ্তার তৃণমূলের প্রাক্তন সাংসদ

তৃণমূল কংগ্রেস থেকে আগেই বহিষ্কার করা হয়েছিল তাকে। এবার ২ হাজার কোটি টাকা তছরুপের অভিযোগ উঠলো প্রাক্তন সাংসদ কেডি সিং (KD Singh) এর সংস্থার বিরুদ্ধে।বুধবার অ্যালকেমিস্ট চিটফান্ড মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করেছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ED)।অভিযোগ, তদন্তে অসহযোগিতা করেছেন তিনি।

কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার দাবি কেডি সিং-এর সংস্থা অ্যালকেমিস্ট (Alchemist) বাজার থেকে বেআইনি ভাবে টাকা তুলেছে এবং বিভিন্ন প্রভাবশালীর কাছে সেই টাকা পৌঁছেছে। ইডির তরফ থেকে সেই টাকা বিদেশে পাচারের সম্ভাবনা প্রকাশ করা হয়েছে।এই মামলার তদন্ত সূত্রে বিভিন্ন কর্মী এবং আধিকারিকদের পাশাপাশি অ্যালকেমিস্ট কর্তা কেডি সিং-কেও জেরা করা হয়েছে। সেই সূত্রে তদন্তে অসহযোগিতা করার অভিযোগে বুধবার তাকে গ্রেফতার করেছে কেন্দ্রীয় সংস্থা।

ইডি সূত্রে জানা যাচ্ছে, গতকাল প্রায় ৬ ঘণ্টা ধরে ইডি অফিসে তাকে জেরা করা হয়েছে এবং জেরা চলাকালীন বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে গিয়েছেন তিনি।আবারও বুধবার তাকে প্রশ্নোত্তরের জন্য ডেকে পাঠায় ইডি কিন্তু এবারও একইরকম অসহযোগিতার আচরণ করেন তিনি। উত্তর দেননি একাধিক প্রশ্নের।এরপরে তাকে গ্রেফতার করে কেন্দ্রীয় সংস্থা।

অ্যালকেমিস্ট কোম্পানির নাম করে বাজার থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা তোলার অভিযোগ রয়েছে তাঁর বিরুদ্ধে। প্রায় ১৫০ কোটি টাকার কোনও হিসেব দিতে পারেননি কেডি সিং। সেই টাকা বিদেশে পাচার করেছেন তিনি এমনই জানতে পেরেছেন তদন্তকারী আধিকারীকরা। কার হাতে সেই টাকা বিদেশে পাচার করা হয়েছে এবং এই টাকা পাচারে আর কোনও প্রভাবশালী জড়িত আছে কিনা তা জানতেই দাফায় দফায় কেডি সিংকে জেরা করা হচ্ছিল কিন্তু তিনি কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি।

আরও পড়ুন : বাংলায় কত আসন পাবে বিজেপি, প্রকাশ্যে এলো সমীক্ষার রিপোর্ট

কেডি সিংয়ের বিরুদ্ধে প্রিভেনশান অব মানি লন্ডারিং ধারায় বা পিএমএলএ ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে ইডির তরফ থেকে। সূত্রের খবর আজই তাকে আদালতে তুলে হেফাজতে নিতে চায় সংস্থা।তবে কেডি সিং-এর সংস্থা অ্যালকেমিস্ট এর বিরুদ্ধে শুধু রাজ্যেই নয় পাশাপাশি ওড়িশা, ঝাড়খণ্ডেও চলছে মামলা।

আরও পড়ুন : কত টাকার মালিক ফিরহাদ হাকিম, প্রকাশ্যে এলো সম্পত্তির পরিমাণ

এই মামলার তদন্তের দায়ভার পড়েছে সিবিআই এর বিরুদ্ধে। ইডি চাইছে আজকেই তাকে হেফাজতে নিয়ে এই সংস্থার বাজার থেকে বেআইনি ভাবে তোলা টাকার হিসেব চাইতে। সেই টাকা কাদের কাছে গিয়েছে, কিভাবে বিদেশে গেছে ইত্যাদি প্রশ্ন গুলির উত্তর জানতে চায় ইডি।