হাত স্যানিটাইজ করে দোকানে ঢুকে ৩৬ লাখ টাকা লুট, ভাইরাল ভিডিও

করোনার সময় তাই সামাজিক দূরত্ব থেকে শুরু করে পরিচ্ছনতা সবটাই মানতে হচ্ছে। তা বলে চোরেরাও যে চুরি করার আগে নিয়মাবলী মেনে চুরি করবে এমনটা সকলের ভাবনার ও অতীত।

আধুনিক যুগে যখন সবকিছুই আধুনিক হচ্ছে তখন চোরেরাও যে একটু আধুনিক হবে সে আর নতুন কথা কি। সম্প্রতি চুরি করার আগে একদল দুষ্কৃতী ও করোনার আচরণ বিধি মেনেই  চুরি করল, যা দেখে সকলেই তাজ্জব বনে গেছেন।

উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে দোকানে লুট করতে এসেও হাত ভালো করে স্যানিটাইজ করে নিল দুষ্কৃতীর দল। দুষ্কৃতীদের এই পুরো কর্মকাণ্ডটি সিসিটিভি ক্যামেরায় উঠে এসেছিল। পরে সিসিটিভি ফুটেজটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

আলিগড়ের একটি সোনার দোকানে অন্যান্য দিনের মতোই সবকিছু হচ্ছিল। দোকান খোলার পর যথারীতি কাস্টমাররাও এসে ভিড় করেছে। হঠাৎ করে সেই দোকানে তিনজন যুবক প্রবেশ করে। তাদের মুখে ছিল মাক্স। দোকানে ঢোকার পরে করোনার নিয়ম মেনে তারা  হাত স্যানিটাইজ করে। এরপর তাদের আসল উদ্দেশ্য প্রকাশ করে তারা।

কোমরে গোঁজা পিস্তল বের করে সকলের সামনে সেটা উঁচিয়ে ধরে। পিস্তল দেখে দোকানে সকল কর্মচারীরা ভয়ে সিঁটিয়ে যান।এরপর দোকান থেকে ৩৬ লাখ টাকার সোনার জিনিস ও ৫০  হাজার  নগদ টাকা নিয়ে তারা চম্পট দেয়।

ওই তিন অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ তাদের খোঁজে তল্লাশিও শুরু করে দিয়েছে ইতিমধ্যেই। আশা করা যায় খুব শীঘ্রই ঐ তিন অপরাধীর নাগাল পাবে পুলিশ।