১লা জুন থেকে বদলে যাচ্ছে একাধিক নিয়ম, দেখে নিন কি কি

কোরোনা আবহে দেশ জুড়ে চলতে থাকা বিভিন্ন দফার লক ডাউনের চতুর্থ পর্যায় চলছে। এই পর্যায় শেষ হবে আগামী ৩১ মে। জুন মাস থেকে আবারও বদলাতে পারে নিয়ম। চতুর্থ লক ডাউন শেষে অর্থাৎ জুন থেকে রেল, বাস, রেশন কার্ড ও এয়ারলাইন ইত্যাদির পূর্বের বহু নিয়মের পরিবর্তন ঘটতে চলেছে।

বহু পরিষেবা মার্চ মাস থেকেই বন্ধ ছিল দেশ জুড়ে, তার মধ্যে বেশ কিছু পরিষেবা চালু হবে। আমরা সবাই জানি, কোরোনা সংক্রমণের জেরে ভেঙে পড়েছে দেশের অর্থনৈতিক কাঠামো, এমন অবস্থায় ধীরে ধীরে কোরোনা কে সঙ্গী করে সাধারণ জীবনে ফিরতে হলে সব পরিষেবার ক্ষেত্রেই কম বেশী দামের হেরফের ঘটবে। কোনো পরিষেবার দাম কমবে, আবার কোনটার দাম বাড়বে।

১লা জুন থেকে কি কি বদল হচ্ছে?

২০০টি ট্রেন :- কোরোনা ভাইরাস সংক্রমণের জেরে শুরু হওয়া লক ডাউনের ফলে পুরো দেশে বিভিন্ন মানুষ নানান জায়গায় আটকে পড়েছেন। তাদের বাড়ি ফেরাতে ১লা জুন থেকে ২০০ টি করে ট্রেন চালাবে ভারতীয় রেলওয়ে। রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল সম্প্রতি ট্যুইটারে জানিয়েছেন ১লা জুন থেকে টাইম টেবিল মেনে প্রতিদিন ২০০ টি করে নন এসি ট্রেন চালানো হবে। বুকিং কবে শুরু হবে তা এখনও বলা হয় নি, তবে শীঘ্রই বুকিং শুরু হবে এবং ট্রেনের রুট প্রকাশ করা হবে।

এক দেশ এক রেশন কার্ড :- ১লা জুন থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন স্কিম চালু হচ্ছে। এই যোজনাটি হলো এক রাজ্য এক রেশন কার্ড। এই স্কিমের উদ্দেশ্য একটাই, দেশের ২০টি রাজ্যের প্রত্যেক নাগরিকের কাছে একই রেশন কার্ড থাকবে। এর ফলে এই রেশন কার্ড হোল্ডাররা ভারতের যেকোনো রাজ্য থেকে রেশন তুলতে পারবে। এর ফলে গরীব মানুষেরা লাভবান হবেন বলেই মনে করছেন তারা।


আরও পড়ুন :- কোন রেশন কার্ডে পাবেন কতটা চাল-গম-আটা, জানুন আপনার অধিকার


শুরু হচ্ছে ফ্লাইট পরিষেবা :- গো-এয়ার  ফ্লাইট শুরু হবে পয়লা জুন থেকে। তবে সেক্ষেত্রেই বিধিনিষেধ মানা হবে, সরকারি নির্দেশিকা মেনেই অন্তর্দেশীয় বিমান পরিষেবা চালু হবে পয়লা জুন থেকে।

একটি পেট্রোল পাম্প প্রতিদিন কত টাকা রোজগার করে


আরও পড়ুন :- পেট্রোল পাম্পে এই ৪টি পদ্ধতিতে আপনাকে প্রতিদিন ঠকানো হয়


দাম বাড়তে চলেছে পেট্রোলের :- করোনার জেরে শুধু দেশেরই নয়, অর্থনৈতিক ব্যবস্থা ভেঙে গেছে সমগ্র বিশ্বের। তাই অনুমান করা হচ্ছে এবার পেট্রোলের দাম বাড়তে পারে। চতুর্থ দফার লক ডাউনেই গাড়ি যাতায়াতের ক্ষেত্রে বেশ কিছু ছাড় দেওয়া হয়। জুন মাসের ১ তারিখ থেকেই পাবলিক ও প্রাইভেট ট্রান্সপোর্টের ক্ষেত্রে আরও ছাড় দেওয়া হবে। তবে সেই ক্ষেত্রেও সরকারি নির্দেশ পালন করা হবে। এতদিন পর ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম চালু হওয়ায় পেট্রোলের চাহিদা ও দাম উভয়ই বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে।