শত বিতর্ক সত্বেও করণের সঙ্গ জীবনেও ছাড়বেন না এই বলিউড তারকারা

208

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের আত্নহত্যার পর থেকেই নেপোটিজম বা স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠে এসেছে বলিউডের বহু তাবড় তাবড় তারকাদের বিরুদ্ধে। নেট দুনিয়ায় জোরালো হয়ে উঠেছে স্বজনপোষণ নীতির বিরুদ্ধে আওয়াজ। আর সেই তালিকায় সবার ওপরে যার নাম রয়েছে তিনি হলেন করণ জোহর। বলিউডের নেপোটিজম ধারী ‘মুভী মাফিয়া’।

তবে তা সত্ত্বেও বলিউডের বহু তারকারা করণকে নিজের খুব ভালো বন্ধু বলে মনে করেন এবং তাঁর পক্ষ নিয়ে কথা ও বলেন। করণের এই কাছের মানুষ গুলির মধ্যে অনেকই বলিউডে নিজের জায়েগা করে নিয়েছেন করণের জন্যই। সুশান্তের মৃত্যুর পর এত সমালোচনার মুখে পড়েও কেন এই তারকার কারণ এর সঙ্গ ছাড়তে নারাজ? দেখে নিন সেই সকল তারকাদের।

১. আলিয়া ভাট :- করণ জোহরের সবথেকে প্রিয় স্টুডেন্টদের মধ্যে একজন হল আলিয়া ভাট। বলিউডে করণ জোহরের ‘স্টুডেন্ট অফ দা ইয়ার’ ছবি দিয়েই অভিষেক হয়েছিল আলিয়া ভাটের। করণের কথা অক্ষরে অক্ষরে পালন করে নাকি তিনি। এমন কি কোন মুভিতে অভিনয় করবেন বা কোন প্রজেক্ট নেওয়ার আগে তিনি কারাণের কাছে যান পরামর্শের জন্য।

করণ জোহর নাকি তাঁর বাবার মত এমনটাই জানিয়েছেন আলিয়া। ‘রাবতা’ ছবিতে সুশান্ত সিং এর বিপরীতে প্রাথমিকভাবে কাজ করার কথা ছিল আলিয়ার। তবে করণের কথা শুনেই নাকি কাজ করতে রাজি হননি আলিয়া। তিনি নাকি সেই সময়ের শুদ্ধি বলে একটি ছবিতে করণ এর সাথে কাজ করছিলেন। যদিও সেই ছবিটি থিয়েটারের আলো দেখেনি এখনো পর্যন্ত।

২. বরুণ ধাওয়ান :- করণ জোহরের আরও একজন প্রিয় স্টুডেন্টদের মধ্যে হলেন বরুণ ধাওয়ান। ‘স্টুডেন্ট অফ দ্যা ইয়ার’ মুভি থেকে বলিউডে পা রেখেছিলেন তিনিও। এছাড়াও করণের ছবি ‘মাই নেম ইজ খান’-এ তাঁর অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টরও ছিলেন বরুণ।

ফিল্মি ক্যারিয়ারে প্রথমে তিনি দিরেক্টর হতে চেয়েছিলে কারণ বাবা ডেভিড ধাওয়ান ও ভাই রোহিত ধাওয়ান দুজনেই পরিচালক। কিন্তু অভিনয় করার পরামর্শ তাকে নাকি করণ জোহর দিয়েছিলেন। শেষে ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার’-এ হিরোর চরিত্রে দেখা যায় বরুন কে। এর পর এক এক করে ‘বদ্রীনাথ কি দুলহানিয়া’, ‘কলঙ্ক’ এর মতো ফিল্মে বার বার দেখা গিয়েছে বরুণকে যার প্রযোজক ছিলেন করণ নিজে। নিজের গুরু বলে মানেন করণ কে।

 ৩. সিদ্ধার্থ মলহোত্র :- করণ জোহরের প্রিয় স্টুডেন্টদের মত এনারও বলিউডে অভিষেক করণের হাত ধরেই। যদিও সিদ্ধার্থ কোনও বলিউড তারকার পুত্র নন, তবুও তিনি করণের প্রিয়। সিদ্ধার্থ অবশ্য প্রকাশ্যেই করণের গুনগান করেন।

তাঁকে বডিউডে আনার পিছনে যে করণ রয়েছে, সে কথাও সরাসরি বলেন সিদ্ধার্থ। এখনো অব্দি নিজের অভিনয় ক্যারিয়ারে ১২ টি ছবি করেছেন। যদিও সবগুলো বক্স অফিসে হিট করতে পারেনি, তবে বড় ব্যানারের নিচেই দেখা যায় তাঁকে।

৪. মনীশ মলহোত্রা :- কেবল অভিনয় জগতে নয় ফ্যাশন ওয়াল্ডে ও রয়েছে করণের চাহানে ওয়ালে। ফ্যাশন দুনিয়ায় মনীশ মালহোত্রা নাম শোনেনি এমন অনেক কম লোকই আছে। কিন্তু তাকে তাঁর ক্যারিয়ারের এই উচ্চস্থানে পৌঁছালো কে? করণের ক্লোজ সার্কলের মধ্যে রয়েছেন তিনিও।

‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে’র সময় শাহরুখের পাশাপাশি তাঁর সঙ্গেও বন্ধুত্ব তৈরি হয়েছিল করণের। করণ জোহরের বন্ধু হওয়ার লাভ পেয়েছেন তিনিও। ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-তে কস্টিউম ডিজাইনার ছিলেন মণীশ। এমনকি করণের পার্টি হোক বা কোনও ইভেন্ট— সবেতেই উপস্থিত থাকেন মনীশ মলহোত্রা।

৫. করিনা কাপুর খান :- করণের কাছের মানুষদের মধ্যে নাম রয়েছে করিনা কপূর খানের। তাদের মধ্যে বেশ গসিপিং এর বন্ধুত্ব রয়েছে নাকি এমনটাই নিজেই জানিয়েছেন করণ। তারা দুজনেই গসিপিং করতে খুবই ভালোবাসেন। একটি শোতে করণ জানান, কারিনার কাছে নাকি বলিউডের সমস্ত গসিপ সবার আগে এসে পৌঁছায় আর তা তিনি সবার আগে রনবীর কাপুর কে ফোন করে জানান।

তিনি আবার নাকি করণ কে ফোন করে সেই সব মাসালাদার গসিপ গুলো বলেন। এইভাবেই নাকি তাদের তিনজনের মধ্যে গসিপিং চলে। তবে করণের সাথে কারিনার বন্ধুত্ব আজকের না। ২০০১ সালের মাল্টিস্টার মুভি ‘কভি খুশি কভি গম’-এ সেকেন্ড লিড রোলে ছিলেন করিনা। অথচ সেই সময় কারিনার কেরিয়ার অতটা ভালো ছিল না তা সত্বেও অমিতাভ বচ্চন শাহরুখ খানের মতো সুপারস্টারদের সঙ্গে দেখা যায় তাকে। আর তিনি যে তাঁর বলিউড ক্যারিয়ারে তাঁর পরিবারের মাধ্যমেই ঢুকেছেন সে কথা অজানা নয়।

আরও পড়ুন :- আত্মহত্যা নয়, “পরিকল্পিত খুন” সুশান্তের মৃত্যুতে উঠে আসছে ১০টি প্রশ্ন

৬. ভিকি কৌশল :- এই তালিকায় ভিকি কৌশল এর নাম দেখে হয়তো অনেকেই অবাক হবেন। তবে ইন্ডাস্ট্রিতে করণের ক্লোজ সার্কেলের মধ্যে তিনিও একজন। ‘গ্যাংস অব ওয়াসেপুর’-এর অ্যাসিন্ট্যান্ট ডিরেক্টর ভিকিকে প্রথম অভিনয় করতে দেখা যায় ‘লবসব তে চিকেন খুরানা’ ছবিতে একটি ছোটো চরিত্রে। তবে তাঁর জীবনে মোড় আসে ‘মশান’ ছবির পর। এখন বলিউডের অন্যতম সফল অভিনেতাদের মধ্যে তিনি একজন।

আর তাই এই সুযোগের হাত ছাড়া করেন না করণ, ভিকিকেও নিজের দলে টেনে নেন করণ। ২০১৫-তে ‘মশান’ করার পর থেকেই বলিউডে নাম ছড়াতে থাকে ভিকির। তারপরই কারণের চোখে পড়েন তিনি। এরপর থেকে করণের প্রায় সব পার্টিতে দেখা গেছে ভিকিকে। এমন কি ‘ভূত’ সিনেমা করার জন্য করণই তাকে রাজি করিয়েছিলেন। কারণ এর সাথে ফ্লাইটে বহুবার দেখা গেছে তাকে। প্রসঙ্গত সম্প্রতি মুক্তি পেতে চলেছে ভিকির নতুন ছবি ‘তখ্ত’, সেখানে তাঁর চরিত্রটি বাড়িয়ে আরও গুরুত্বপূর্ণ করার পিছনেও নাকি করণের হাত রয়েছে, এমনটাই শোনা যাচ্ছে বি টাউনের অলী গলিতে।

আরও পড়ুন :- দিল বেচারাই শেষ নয়, আবারও পর্দায় দেখা যাবে সুশান্ত সিং রাজপুতকে

৭. শাহরুখ খান :- কারণ জোহরের কাছের মানুষদের মধ্যে অন্যতম হলেন শাহরুখ খান। অনস্ক্রিন হোক বা অফস্ক্রিন করণের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক বেশ গভীর। হবেই না কেন? ‘দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে’ সময় শাহরুখের বন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল করণ কে। এছাড়া ছবির অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর ছিলেন করণ। অভিনয় তা তাঁর জন্য নয় বুঝে গিয়েছিলেন ওই ছবিতেই।

তারপরই নাকি শাহরুখকে কথা দিয়েছিলেন, নিজের ডেবিউ ফিল্মে তাঁকেই হিরো করবেন। সে কথা ও রেখেছেন তিনি। ‘কুছ কুছ হোতা হ্যায়’-তে হিরোর চরিত্রে দেখা গিয়েছিল শাহরুখকে। সেখান থেকেই শুরু তাদের গভীর বন্ধুত্ব। এরপর তাদের দুজনকে সঙ্গে কাজ করতে দেখা গিয়েছে একাধিক ছবিতে। যদিও অনেকে মনে করেন করণ জোহার কে বলিউডের ঢোকানোর পেছনে কিছুটা শাহরুখখানের হাত ছিল।

আরও পড়ুন :- মধুচক্র থেকে MMS ফাঁস, দেখুন বলিউড অভিনেত্রীদের বিতর্কিত জীবন

করণ জোহরের হোস্ট করা শো ‘ কফি উইথ করণ’ – এ বহু তারকাদের দ্বারা অপমানিত হয়েছেন সুশান্ত। এমনকি ধর্মা প্রোডাকশন থেকে ব্যান করে দেওয়া হয়েছিলো সুশান্তকে। সুশান্তের মৃত্যুর পর অনেকেরই প্রশ্ন, করণের প্রিয় মানুষ না হতে পারায় কি তবে তাঁর আজ এই পরিণতি হল? উত্তর টা এখনও ধোয়াশায়!