সোশ্যাল মিডিয়ায় ধ`র্ষণের হুমকি পেয়েছেন যে ৯ অভিনেত্রী

সোশ্যাল মিডিয়ায় যা খুশি বলার স্বাধীনতা এবং তার সাথে সাইবার ক্রাইমের বিরুদ্ধে নরম আইন। দুই মিলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মহিলাদের প্রতি নির্যাতন দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। মহিলা সেলিব্রিটিদের বিরুদ্ধে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করার জন্য ক্রমাগত তাদের ধর্ষনের হুমকি দিচ্ছে এক শ্রেণীর মানুষ এবং তাতে রীতিমত নাজেহাল অবস্থা এই তারকাদের।

মহিলা সেলেব্রিটির প্রতি আক্রোশ মেটানোর সবচেয়ে সহজ পথ যেন ধর্ষণের হুমকি দেওয়া। আমাদের দেশে সাইবার-অপরাধের বিরুদ্ধে কোনও কড়া আইন পোক্ত না থাকায় ক্রমাগত এক শ্রেণির মানুষ এই ঘৃণ্য কাজ করে চলেছে প্রতিনিয়ত। করোনা ভাইরাস এবং লকডাউনের জেরে বাইরে বার হওয়ার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনলাইনে হেনস্থার পরিসংখ্যান দিন দিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

পূজা ভাট :-  মহেশ ভাটের কন্যা অভিনেত্রী, পরিচালক পূজা ভাটের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে এত পরিমাণ খুন এবং তার সাথেই ধর্ষনের হুমকি এসেছে যে শেষমেষ তিনি তার প্রোফাইল প্রাইভেট করে দিয়েছেন। অনুরাগীদের ফলো রিকুয়েস্ট পাঠাতে বলেন তিনি। বেশ কিছুদিন হলো অভিনয় জগতের সাথে বিশেষ সম্পর্ক ছিলনা পূজা ভাটের। অনেকদিন পর সড়ক ২ এর হাত ধরে ফের বড় পর্দায় ফিরছেন তিনি।

 

আলিয়া ভাট :-  বর্তমানে বলিউডের প্রথম সারির নায়িকা হলেও সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর বলিউডে নেপটিসম বিতর্কে নেটিজেনদের ক্ষোভের শিকার হন আলিয়া ভাট। প্রোফাইলে আসছে খুন ও ধর্ষনের হুমকি।

শাহীন ভাট :-  সোশ্যাল মিডিয়ায় আসা খুন ও ধর্ষনের হুমকির বিরুদ্ধে গলা তুলেছেন শাহীন ভাট।ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে আসছে ধর্ষনের হুমকি।

রিয়া চক্রবর্তী :-  সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে নেটিজেনরা রিয়া চক্রবর্তীকে প্রথম থেকেই দোষী সাব্যস্ত করে দেয় এবং তখন থেকে চলছে একটানা ধর্ষনের হুমকি। একটা দুটো নয়, হাজার হাজার। সুশান্তের মৃত্যুর মাস খানেক পর তিনি হুমকি দেওয়া চ্যাটের স্ক্রিনশট তুলে মুম্বাই পুলিশকে ট্যাগ করে উপযুক্ত পদক্ষেপ নিতে বলেন। মুম্বাই পুলিশের সাইবার ক্রাইমের শাখা দুটি প্রোফাইল শনাক্ত করলেও গ্রেফতার করেনি কাউকেই।

ঊষসী সেনগুপ্ত :- বাংলা ইন্ডাস্ট্রিতে চিত্রটা খুব একটা অন্যরকম নয়। একটি অ্যাপ ক্যাবে তাঁর চালক তাঁকে হেনস্থা করে। আবার লকডাউনে একদিন তিনি যখন নিজের প্রোফাইলে লাইভ ছিলেন, সেখানে একজন লোক ক্রমাগত অশালীন মন্তব্য করে যায়। তার রাগ হলেও কমেন্ট ডিলিট করেননি তিনি। তিনি এও বলেন যে তার মনে হয় সব মহিলার এরকম আঘাতে কম বেশী বিপর্যস্ত হন।

দীপিকা পাড়ুকোন :- ‘পদ্মাবত’ ছবি মুক্তির আগে তাকে নিয়ে নানান মহলে চলতে থাকে নানারকম বিতর্ক। তিনি রাজপুত দের ভাবাবেগে আঘাত করেছেন :- এই অভিযোগে ধর্ষন থেকে শুরু করে খুন বা মুণ্ড ছেদ, সব রকমের হুমকিই পান তিনি।

স্বরা ভাস্কর :- তিনি নির্দিষ্ট এক রাজনৈতিক মিটার বিরুদ্ধে বারবার দাড়িয়েছেন। ফলে বারবারই সোশ্যাল মিডিয়ায় ধর্ষনের হুমকি পান তিনি।

নুসরত জাহান :- তার পাওয়া হুমকি গুলির সাথে রাজনৈতিক মতাদর্শ থেকে ধর্মভেদ, সবই জড়িয়ে। যখনই তিনি কোনো হিন্দু অনুষ্ঠানে উপস্থিত হন তখনই কিছু ধর্মীয় সংগঠন তার বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করে এবং তার সাথেই চলতে থাকে ধর্ষনের হুমকি। এই পরিস্থিতি সবথেকে ভয়াবহ রূপ নেয় যখন মহালয়ায় মা দুর্গা হিসেবে অভিনয় করেছিলেন তিনি। নুসরাত এর মতে যারা অনলাইনে খুন, ধর্ষনের হুমকি দেয় তাদের মানসিকতা বিকৃত। তিনি আরও বলেন যে অনলাইনের এই অবস্থায় তিনি চিন্তিত হলেও বিভ্রান্ত নন।

সোনাক্ষি সিনহা :- নেপটিসম বিতর্কের পর হুমকির মুখোমুখি হন শত্রুঘ্ন কন্যা সোনাক্ষি সিনহা। তবে ১৪ আগস্ট মুম্বাইয়ের অপরাধ দমনের শাখায় গিয়ে ইনস্টাগ্রামে হুমকি দেওয়া এক ব্যাক্তির বিরুদ্ধে সোনাক্ষি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন এবং ছয় দিন পর ঔরঙ্গাবাদ থেকে ওই ব্যক্তি গ্রেফতার হয়।